‘দেবী’র প্রদর্শনী বন্ধের আহ্বান

মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

বিনোদন প্রতিবেদক : সরকারি অনুদানে নির্মিত ‘দেবী’ গত ১৯ অক্টোবর দেশের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়। মুক্তির আগেই বেশ কয়টি তামাকবিরোধী সংগঠন ছবিটির বিরুদ্ধে ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য আইন না মানার অভিযোগ আনে। এবার টিভিতে প্রচার হতে যাচ্ছে ‘দেবী’। সেই সঙ্গে বেশকিছু অনলাইন প্লাটফর্মেও মুক্তি দেয়া হচ্ছে এই ছবি। এদিকে তামাক আইন না মেনে ‘দেবী’র টিভি ও অনলাইন প্রদর্শনী থেকে বিরত থাকার জন্য আহ্বান জানিয়েছে তামাকবিরোধী সংগঠনগুলো। আইন মেনে তামাক ব্যবহারের অপ্রয়োজনীয় দৃশ্য ও একটি বহুজাতিক কোম্পানির সিগারেটের দৃশ্য বাদ দিয়ে ‘দেবী’ চলচ্চিত্র প্রদর্শনের দাবি জানিয়েছে তারা। গত রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করে ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ, ঢাকা আহ্ছানিয়া মিশন, এসিডি, ইপসা, ব্যুরো অব ইকনোমিক রিসার্চ, ডব্লিউবিবি ট্রাস্ট, নাটাব, প্রত্যাশা, টিসিআরসি, তাবিনাজ, সুপ্র, বিটা, গ্রামবাংলা উন্নয়ন কমিটি, বিসিসিপি, এইড ফাউন্ডেশন, প্রজ্ঞাসহ বিভিন্ন তামাকবিরোধী সংগঠন। সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা বলেন, গত ১৯ অক্টোবর দেশের বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে সরকারি অনুদানপ্রাপ্ত ও জয়া আহসান প্রযোজিত ‘দেবী’র প্রদর্শনী শুরু হলেও ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার (নিয়ন্ত্রণ) আইন ও এর বিধিমালার এই সুস্পষ্ট নির্দেশনাগুলো মানা হয়নি। তামাক নিয়ন্ত্রণ আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ থাকার পরও এবার মাছরাঙা স্যাটেলাইট টিভি চ্যানেল ও অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম বায়োস্কোপে ‘দেবী’র ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হতে যাচ্ছে। অনুষ্ঠানে বক্তারা আইন মেনে ‘দেবী’র প্রদর্শনে বাধ্য করার পাশাপাশি ভবিষ্যতে সব চলচ্চিত্র, নাটক ও প্রামাণ্যচিত্রে ধূমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহারের দৃশ্য বর্জনের দাবি জানান।

বিনোদন'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj