চট্টগ্রাম আইনজীবী সমিতির নির্বাচন : বিএনপি সভাপতি ও আ.লীগ সম্পাদকসহ ৯টি করে পদে জয়ী

মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত দুই প্যানেলই ৯টি করে পদে জয়ী হয়েছে। এই দুই গ্রুপের বাইরে সমমনা গ্রুপের প্যানেল থেকে পাঠাগার সম্পাদক পদে সমমনা প্যানেলের ভাস্কর রায় বিজয়ী হয়েছেন। আওয়ামীপন্থিদের সঙ্গে অন্য প্রগতিশীল মতাদর্শে বিশ্বাসী আইনজীবীদের মধ্যে নানা টানাপড়েনের কারণে এমন ফল হয়েছে বলে মনে করছেন অনেক আইনজীবী। ১৯টি পদের মধ্যে সভাপতিসহ ৯টি পদে জিতেছে বিএনপি। আর সাধারণ সম্পাদকসহ ৯টি পদে জিতেছে আওয়ামী লীগ। রবিবার সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টানা ভোটগ্রহণের পর গভীর রাতে ফল ঘোষণা করা হয়েছে।

অথচ একটি সময়ে আওয়ামী লীগ ও অন্যান্য প্রগতিশীল রাজনৈতিক দলের সমর্থিতরা এক সঙ্গেই মিলেমিশে নানা আন্দোলন-সংগ্রামসহ নির্বাচনে বেশ ভালো ফল পেয়েছেন। মাত্র দুই বছর আগে ২০১৭ সালের নির্বাচনে সমন্বয় পরিষদ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ ১২টি পদে জয় পেয়ে সংখ্যা গরিষ্ঠতা লাভ করে। অথচ গত বছরের নির্বাচনে সমন্বয় পরিষদ প্রচণ্ড রকমের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে জড়িয়ে পড়ায় সভাপতিসহ মাত্র ৭টি পদে জয়লাভ করে।

নির্বাচন পরিচালনা কমিটির কমিশনার এডভোকেট রতন রায় ভোরের কাগজকে জানান, সভাপতি পদে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত আইনজীবী ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী বদরুল আনোয়ার ১ হাজার ২৩৫ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের প্রার্থী এডভোকেট সৈয়দ মোক্তার আহম্মদ পেয়েছেন ৮০২ ভোট। সাধারণ সম্পাদক পদে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত সমন্বয় পরিষদের এডভোকেট আইয়ুব খান। তিনি পেয়েছেন ১০৮৮ ভোট।

তার নিকটতম প্রতিদ্ব›দ্বী সমমনা প্যানেলের এডভোকেট তৌহিদুল ইসলাম চৌধুরী টিপু পেয়েছেন ৮৩৮ ভোট।

এ ছাড়া সিনিয়র সহসভাপতি পদে বিএনপি সমর্থিত মো. ইসহাক, সহসভাপতি পদে আওয়া লীগ সমর্থিত মোহাম্মদ রফিকুল আলম, সহসাধারণ সম্পাদক পদে আওয়া লীগ সমর্থিত মো. রাশেদ ফারুকী, অর্থ সম্পাদক পদে বিএনপি সমর্থিত রফিকুল আলম, সাংস্কৃতিক ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে বিএনপি সমর্থিত জেবুন্নাহার লীনা, পাঠাগার সম্পাদক পদে সমমনা প্যানেলের ভাস্কর রায়, তথ্য ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে আওয়ামী লীগ সমর্থিত মোহাম্মদ হাসান মুরাদ জয়ী হয়েছেন। কার্যনির্বাহী সদস্যের ১০টি পদের মধ্যে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্যফ্রন্টের ৫ জন ও সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদের ৫ জন নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে ৩ হাজার ৪২৬ জন ভোটারের মধ্যে ২ হাজার ৭৩৩ জন ভোট দেন। নির্বাচনে চারটি প্যানেলে বিভক্ত হয়ে ৪৮ জন প্রার্থী প্রতিদ্ব›িদ্বতা করেন।

এই জনপদ'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj