মুক্তিযোদ্ধা হত্যায় যুবলীগ নেতা অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার

মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

পাবনা প্রতিনিধি : পাবনায় মুক্তিযোদ্ধা ও আওয়ামী লীগ নেতা মুস্তাফিজুর রহমান সেলিম হত্যার ঘটনায় আরজু বিশ্বাসকে (৪৫) পিস্তল ও গুলিসহ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আরজু বিশ্বাস ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশী ইউনিয়নের এমদাদুল হক টুলু বিশ্বাসের ছেলে ও পাকশী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এনাম বিশ্বাসের ভাতিজা। তিনি ঈশ্বরদী উপজেলা যুবলীগের সাবেক সহসভাপতি বলে জানা গেছে।

গতকাল সোমবার দুপুরে ঈশ্বরদী থানায় পাবনার পুলিশ সুপার রফিকুল ইসলাম সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সেলিম হত্যার ঘটনায় আরজু বিশ্বাসের গ্রেপ্তারের বিষয়টি জানিয়েছেন।

এ সময় তিনি বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত রবিবার রাতে নিজ বাড়ি থেকে তাকে অস্ত্রসহ গ্রেপ্তার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি অনেক চমকপ্রদ তথ্য দিয়েছেন। তদন্তের স্বার্থে যা প্রকাশ করা হচ্ছে না। তবে আমরা হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের ব্যাপারে মোটামুটি নিশ্চিত হয়েছি। এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুই রাউন্ড গুলি ও একটি ম্যাগজিন উদ্ধার করা হয় বলে পুলিশ সুপার জানান।

উল্লেখ্য, গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাত ১০টার সময় পাকশীতে নিজ বাড়ির সামনে দুর্বৃত্তরা গুলি করলে আহত হন মুক্তিযোদ্ধা মুস্তাফিজুর রহমান সেলিম। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে প্রথমে ঈশ্বরদী হাসপাতালে এবং পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে তিনি মারা যান। ঘটনার পর থেকে হত্যাকারীর গ্রপ্তার দাবিতে প্রতিদিন পাকশী, রূপপুর এবং ঈশ্বরদীতে মুক্তিযোদ্ধা, এলাকাবাসী এবং সুধিসমাজ মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও সভা-সমাবেশ চালিয়ে যাচ্ছে।

শেষ পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj