ডিএনসিসি নির্বাচন : প্রচারে নামলেন আ.লীগ প্রার্থী আতিক

মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

কাগজ প্রতিবেদক : নৌকা প্রতীক বরাদ্দ পেয়েই আনুষ্ঠানিক প্রচারণায় নেমেছেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী আতিকুল ইসলাম। গতকাল সোমবার রাজধানীর উত্তরখানের শাহ কবিরের মাজার জিয়ারতের মাধ্যমে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন তিনি। প্রচারণায় নামেন অন্য মেয়র প্রার্থীরাও।

গতকাল সোমবার বিকেল ৩টায় বিমানবন্দরের রেলস্টেশন মাঠে ঢাকা মহানগর উত্তর শ্রমিক লীগের সঙ্গে মতবিনিময় করেন আতিকুল ইসলাম। এরপর সন্ধ্যা ৬টায় উত্তরার রাজলক্ষী কমপ্লেক্সের দোকান মালিক সমিতির সঙ্গে মতবিনিময় ও সন্ধ্যা সাতটায় উত্তরার ক্লাব মাঠে নির্বাচনী অফিস উদ্বোধন করেন তিনি। রাত ৮টায় উত্তরার সব সেক্টরের নেতাদের সঙ্গেও মতবিনিময় করেন তিনি।

এর আগে সকাল থেকেই আতিকুল ইসলামকে স্বাগত জানান ৪৮, ৪৭, ৪৫নং ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা। এ সময় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাবিব হাসান, ত্রাণ ও দুর্যোগ সম্পাদক এস এম মাহবুব আলম, প?রিবেশ সম্পাদক এস এম তোফাজ্জল হোসেন ও ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সহসভাপ?তি ডি এম শা?মিম উপস্থিত ছিলেন।

আগের দিন রবিবার ডিএনসিসির রিটার্নিং কর্মকর্তা আবুল কাসেম ৫ মেয়রপ্রার্থীর মাঝে প্রতীক বরাদ্দ দেন। তাদের মধ্যে আওয়ামী লীগের প্রার্থী আতিকুল ইসলাম (নৌকা), জাতীয় পার্টির শাফিন আহমেদ (লাঙ্গল), প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দল (পিডিপি) থেকে শাহিন খান (বাঘ), ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) আনিসুর রহমান দেওয়ান (আম) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী নর্থ সাউথ প্রপার্টিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম (টেবিল ঘড়ি) প্রতীক বরাদ্দ পান।

উল্লেখ্য, ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিল ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। কিন্তু নির্বাচনের আড়াই বছর পর ২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেয়র আনিসুল হক লন্ডনে মারা যান। এতে আসনটি শূন্য হয়ে পড়ে।

৩৬ ওয়ার্ডেও প্রচারণা শুরু : এদিকে প্রতীক বরাদ্দের পর ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ১৮টি করে মোট ৩৬টি ওয়ার্ডেও শুরু হয়েছে নির্বাচনী প্রচারণা। কাউন্সিলর প্রার্থীরা নিজ নিজ ওয়ার্ডে বিভিন্ন উঠান বৈঠক, জনসংযোগ কর্মসূচি শুরু করেছেন। বিভিন্ন মহল্লায় নিজের পক্ষে নির্বাচনী সভা করে ভোট চাচ্ছেন। ওয়ার্ডগুলোতেও একচেটিয়া প্রচারণা চালাচ্ছেন কাউন্সিলর প্রার্থীরা। বিজয়ী হলে এলাকার উন্নয়নের পাশাপাশি যে কোনো বিপদ-আপদে তাদের পাশে থাকার প্রতিশ্রæতি দিচ্ছেন। আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ডিএনসিসি মেয়র ও ৩৬টি ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে।

প্রথম পাতা'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj