ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন

বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়

গতকাল একুশে ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ঐতিহাসিক ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) উপাচার্য প্রফেসর ড. সাইফুল ইসলাম। এ সময়ে আরো উপস্থিত ছিলেন বুয়েটের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারিবৃন্দ।

বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস্

মায়ের ভাষার জন্য যারা প্রাণ দিয়েছিলেন সেই বায়ান্নর অমর ভাষা শহীদদের অমলিন স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের মাধ্যমে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস্ (বিইউপি) মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করে গতকাল। ভালোবাসা ও শ্রদ্ধা জানাতে বুধবার অতি প্রত্যুষে বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস্ (বিইউপি) এর উপাচার্য মেজর জেনারেল মো. এমদাদ উল বারী, এনডিসি, পিএসসি, টিই, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. আবুল কাশেম মজুমদার, সকল উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, ফ্যাকাল্টি মেম্বার, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীগণ উপস্থিত হন বাঙালির শোকের মিনার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে। এ ছাড়া সকালে বিইউপি বিজয় অডিটোরিয়ামে এক আলোচনা সভা এবং শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে কবিতা আবৃত্তি ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিইউপির উপাচার্য মেজর জেনারেল মো. এমদাদ উল বারী, এনডিসি, পিএসসি, টিই এবং উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. আবুল কাশেম মজুমদার।

ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি

পৃথিবীতে একটি মাত্র ভাষা বাংলা, যে ভাষায় কথা বলার অধিকারের জন্য প্রাণ দিতে হয়েছে। এর সম্মাননা স্বরুপ ২১ ফেব্রুয়ারি পেয়েছে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি। ২১ ফেব্রুয়ারি ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি ‘মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস ২০১৮’ উপলক্ষে প্রভাত ফেরি, পুষ্পস্তবক অর্পণ ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্র্মসূচি গ্রহণ করে। কর্মসূচির অংশ হিসেবে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ। প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষাবিদ ও বুদ্ধিজীবী অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক এবং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মো. আজিজুল ইসলাম, সাবেক চেয়াম্যান, বোর্ড অব ট্রাস্টিজ, ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটি এবং সভাপতিত্ব করেছেন ইস্টার্ন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. নুরুল ইসলাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য, ডিন, উপদেষ্টা, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীদের স্বতঃস্ফ‚র্ত উপস্থিতির মধ্য দিয়ে দিবসটি উদযাপন করা হয়।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়

যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে উদ্যাপিত হলো মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। দিবসটি উপলক্ষে কর্মসূচির মধ্যে ছিল সূর্যোদয়ের সঙ্গে সঙ্গে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতভাবে উত্তোলন, কালো ব্যাজ ধারণ, র‌্যালি, বিশ^বিদ্যালয়ে স্থপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে এবং শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ, আলোচনা সভা ও কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ভাষা শহীদদের আত্মার মাগফেরাত এবং দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ দোয়া। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে শহীদ মিনার ও বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াসউদ্দীন মিয়া।

এ সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর তোফায়েল আহমেদ, অনুষদীয় ডিনবৃন্দ, হলসমূহের প্রভোস্টবৃন্দ, প্রক্টর, পরিচালকবৃন্দ ও রেজিস্ট্রারসহ বিশ^বিদ্যালয়ের অন্যান্য শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের হলসমূহের ছাত্র-শিক্ষকবৃন্দ, গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ, গণতান্ত্রিক কর্মচারি পরিষদ ও বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের ছাত্র-শিক্ষকবৃন্দও পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন। পরে বিশ^বিদ্যালয় অডিটরিয়ামে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিশ^বিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াসউদ্দীন মিয়া আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। আলোচনা সভায় আরো বক্তৃতা করেন ট্রেজারার প্রফেসর তোফায়েল আহমেদ, প্রফেসর ড. মো. খোরশেদ আলম ভূঞাঁ ও প্রফেসর ড. এআরএম সোলাইমান। পরিচালক (ছাত্রকল্যাণ) প্রফেসর ড. মো. রুহুল আমিন আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন। এ সময়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারি ও বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলের ছাত্র-শিক্ষকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ক্যাম্পাস'র আরও সংবাদ
Bhorerkagoj