×

রাজনীতি

আবার পাসপোর্ট পাচ্ছে ৬৯ হাজার রোহিঙ্গা

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ১৩ মে ২০২৪, ১১:০১ পিএম

আবার পাসপোর্ট পাচ্ছে ৬৯ হাজার রোহিঙ্গা

ছবি: সংগৃহীত

৬৯ হাজার রোহিঙ্গা নাগরিকের পাসপোর্ট নবায়নের বিষয়ে তাগিদ দিয়েছে সৌদি সরকার বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। কয়েক দশক আগে তাদের সৌদি আরব আশ্রয় দেয়ার সময় বাংলাদেশি পাসপোর্টে তাদের সেখানে পাঠানো হয়েছিলো। সেই সব পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় সৌদি আরবের প্রস্তাবে সম্মত হয়ে ওই সব রোহিঙ্গার পাসপোর্ট রিনিউ করে দিচ্ছে বাংলাদেশ।

রবিবার (১২ মে) রাজধানীতে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সৌদি আরবের উপস্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে এ বিষয়ে আলোচনায় এসব জানানো হয়। 

হোটেল লা-মেরিডিয়ানে অনুষ্ঠিত বৈঠক শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান সাংবাদিকদের বলেন, দেশ স্বাধীনের পর বাংলাদেশ থেকে কিছু রোহিঙ্গা সৌদি আরবে গিয়েছিলো। এর সংখ্যা কত আমাদের জানা নেই। সৌদি আরব আমাদের জানিয়েছে ৬৯ হাজার। সৌদি আরবের নিয়ম অনুযায়ী পাসপোর্ট না থাকলে তাদের ফেরত পাঠায়। সে ক্ষেত্রে আমাদের সঙ্গে সৌদি আরবের একটি চুক্তি হয়েছিলো তারা রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাবে না, তাদের কাগজ রিনিউ করে দেয়া হবে। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ বিষয়ে আমরা স্লো যাচ্ছি কেন? কিংবা আমাদের কোনো অসুবিধা আছে কি না সেটা দেখার জন্য তারা এসেছিলেন। সৌদি আরবে থাকা ৬৯ হাজার রোহিঙ্গার দায়িত্ব কোন রাষ্ট্র নেবে? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সৌদি আরব কিন্তু ফেরত পাঠাবে না কাউকে। আবার সৌদি সরকার রোহিঙ্গাদের ওই দেশের নাগরিকত্বও দেবে না। তবে কীভাবে থাকবে? সেই জন্য তাদের কিছু ডকুমেন্টস প্রয়োজন। সেজন্য তারা আমাদের অনুরোধ করেছিল। আমরা গত বছর সেটি স্বাক্ষর করেছিলাম। সেখানে আমাদের কোনো অসুবিধা হচ্ছে কি না, বা কোনো লু-ফলস রয়েছে কি না, সে বিষয়ে সরাসরি কথা বলতে তারা এসেছিলেন। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তারা তো বাংলাদেশি পাসপোর্ট নিয়ে গিয়েছিল। সুতরাং আমরা শুধু তাদের পাসপোর্ট রিনিউ করে দেব। তাদের নাম-ঠিকানা পাসপোর্টে যেমন আছে তেমনি থাকবে। তিনি আরও জানান, সৌদি আরবের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আমাদের উভয় দেশের সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে আলাপ হয়েছে। বৈঠকে বিজিবি-পুলিশের সক্ষমতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে আলোচনা হয়েছে। হজ নিয়ে ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। দুই দেশের মধ্যে ইমিগ্রেশন ব্যবস্থা চালু করা হয়েছে, ফলে দ্রুত সময়ে হাজিরা গাড়িতে চড়তে পারবেন। এ ছাড়া রুট টু মক্কা নামে একটি সার্ভিস চালু করেছে, যাতে হাজিদের ব্যাগ-লাগেজ এয়ারপোর্ট থেকে তাদের ঠিকানায় পাঠানো হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরো বলেন, সৌদি আরবের প্রতিনিধিদল উভয় দেশের বন্দিবিনিময় চুক্তির বিষয়ে প্রস্তাব করেছে। বিশ্বের অনেক দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্দিবিনিময় চুক্তি রয়েছে। যদি সৌদি আবর এই চুক্তি করে তবে ভালো হবে। বাংলাদেশ থেকে তাদের সিকিউরিটি গার্ডের জন্য আনসার পাঠানোর কথা বলেছি। এ বিষয়ে তারা পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে দেখবেন। তিনি বলেন, দুই দেশের সম্পর্ক জোরদারে বন্ধুত্বসুলভ আলোচনা হয়েছে। বর্তমানে সৌদিতে ৩০ লাখ প্রবাসী কর্মী আছেন, যাদের সংখ্যা আরো বাড়ানো হবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App