×

রাজনীতি

রিজভী

দেশের মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে সরকার

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫০ পিএম

দেশের মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছে সরকার

ছবি: ভোরের কাগজ

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী তার লোকদের সুখে-শান্তিতে রাখতে গোটা দেশের মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, এই দেশে নাকি অনেক উন্নয়ন করা হয়েছে। প্রতিদিন আওয়ামী লীগের মন্ত্রী-এমপিরা চিৎকার করে কথা বলতে বলতে তাদের গলায় আলসার হয়ে গেছে। যদি সত্যিকারের উন্নয়ন হয়, তবে সেই উন্নয়ন তো হবে মানুষকে কেন্দ্র করে। আওয়ামী নেতাদের বিদেশে বাড়ি বানানোর জন্য তো উন্নয়ন নয়। যে উন্নয়নের ছবি দেখে আওয়ামী লীগের নেতারা আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ সেই উন্নয়ন তো জনগণ দেখতে চায়নি। 

সোমবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি ২৩ নম্বর ওয়ার্ডের উদ্যোগে রাজধানীর খিলগাঁও তালতলায় প্রচণ্ড দাবদাহে অতিষ্ঠ মানুষদের মধ্যে বিশুদ্ধ খাবার পানি, স্যালাইন ও লিফলেট বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির সদস্য সচিব আমিনুল হক এবং রামপুরা থানা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক নীলুফার ইয়াসমীন নীলু।

জনগণ একটু বুক ভরে শ্বাস নিতে চায় জানিয়ে রিজভী বলেন, মানুষ নিরাপত্তার মধ্যে থাকতে চায়। বিশুদ্ধ বাতাস গ্রহণ করতে চায়। কিন্তু আপনারা তো সেটি দেননি; জনগণের অক্সিজেন কেড়ে নিয়েছেন। তথাকথিত উন্নয়নের নামে দেশকে একটি গ্যাস চেম্বারে পরিণত করেছে। আজ দেশে বৃক্ষ নেই, নদী ভরাট, খালভরাট সব দখল করেছে। তাহলে বৃষ্টি হবে কেন, তাহলে গাছের পাতা থাকবে কেন, গাছে ফল থাকবে কেনো?

আরো পড়ুন: ভোট থেকে সরে দাঁড়ানোয় একজনের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার বিএনপির

রিজভী বলেন, সমস্ত বিশেষজ্ঞরা বলেছেন- ‘কয়লা পুড়িয়ে বিদ্যুৎ তৈরি করা যাবে না’। আপনি প্রধানমন্ত্রী কারও কথা শোনেননি। কারণ আপনার লোকদের টাকা চাই। আপনার লোকদের পকেট ভরা চাই। আপনি আপনার লোকদেরকে সুখে-শান্তিতে রাখতে গোটা দেশের মানুষকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়ে কবরস্থানের দিকে ঠেলে দিয়ে, কয়লা পুড়িয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদনের জন্য বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করেছেন। তার পরিণতি কি? আজ ২৮ দিন ধরে দেশের মানুষ তাপদাহে পুড়ছে, স্কুলের ছাত্র-শিক্ষকসহ ১৮ জন মারা গেছেন।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. মো. রফিকুল ইসলাম, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, নির্বাহী কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম, যুবদলের সহ-সভাপতি জাকির হোসেন সিদ্দিকী, মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আনোয়ারুজ্জামান আনোয়ার, ভিপি এজিএম শামসুল হক, হাজী মোহাম্মদ ইউসুফ, দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত এবিএমএ আব্দুর রাজ্জাক, যুবদলের সাহিত্য ও প্রকাশনা সম্পাদক মেহবুব মাসুম শান্ত, বিএনপি নেতা জাকির হোসেন, ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. তৌহিদুর রহমান আউয়াল, মহানগর উত্তর বিএনপি নেতা ফয়েজ আহমেদ ফেরু, আলহাজ্ব হেলাল কবির হেলু, নওগাঁ জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক তাজ, ছাত্রদল নেতা মিরাজ, ডা. মুশফিক, আশরাফুল আসাদ, যুবদল নেতা নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App