×

জাতীয়

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে বিশ্বব্যাপী সংহতি এবং অংশীদারিত্ব অপরিহার্য: পরিবেশমন্ত্রী

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ১০ জুলাই ২০২৪, ১২:৩৫ পিএম

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে বিশ্বব্যাপী সংহতি এবং অংশীদারিত্ব অপরিহার্য: পরিবেশমন্ত্রী

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে বিশ্বব্যাপী সংহতি এবং অংশীদারিত্ব অপরিহার্য। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী সাবের হোসেন চৌধুরী বলেছেন, কার্যকর ও উচ্চাভিলাষী জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক সহায়তা প্রদানে বিশ্বব্যাপী সংহতি ও অশীদারিত্ব প্রণয়ন একান্ত অপরিহার্য। তিনি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের ক্ষেত্রে আন্তর্জাতিক সহযোগিতা ও সমর্থনের উপর গুরুত্বারোপ করেন। 

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) বেলজিয়ামের ব্রাসেলসে অনুষ্ঠিত ইউরোপিয়ান কমিশনের ক্লাইমেট অ্যাকশন কমিশনার ওয়াপকে হোয়েকস্ট্রার সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে পরিবেশমন্ত্রী এ কথা বলেন। খবর বাসসের।

বৈঠকে পরিবেশ মন্ত্রী টেকসই উন্নয়ন ও পরিবেশ সংরক্ষণে দেশের অঙ্গীকারের ওপর জোর দেন। তিনি জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব প্রশমনে বাংলাদেশের চলমান প্রচেষ্টার কথা তুলে ধরেন। মন্ত্রী জলবায়ু পরিবর্তন ও পরিবেশগত চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বাংলাদেশ ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের মধ্যে সহযোগিতা জোরদারের ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

কমিশনার হোয়েকস্ট্রা জলবায়ু সংক্রান্ত কর্মকাণ্ডে সক্রিয় অবস্থানের জন্য বাংলাদেশের প্রশংসা করেন এবং উন্নয়নশীল দেশগুলোকে তাদের জলবায়ু স্থিতিস্থাপক প্রচেষ্টায় সহায়তার জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করেন।

আলোচনায় পূণমূল্যায়নযোগ্য শক্তি এবং জলবায়ু অর্থায়নসহ সহযোগিতার সম্ভাব্য ক্ষেত্রগুলি চিহ্নিত করা হয়েছে। উভয় পক্ষই জলবায়ু স্থিতিশীলতা বাড়াতে এবং টেকসই উন্নয়নের জন্য একসঙ্গে কাজ করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছে।

আরো পড়ুন: মেয়ের অসুস্থতার খবরে একদিন আগেই দেশে ফিরছেন প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন উভয়ই বৈশ্বিক জলবায়ু উন্নয়নে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে প্রস্তুত। এজন্য প্রয়োজনীয় পারস্পরিক সংলাপ ও সহযোগিতা অব্যাহত রাখতে পারস্পরিক চুক্তির মাধ্যমে বৈঠকটি সমাপ্ত হয়।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App