×

জাতীয়

ট্রেন্ডিংয়ে আবেদ আলী, ধর্মচর্চা-নীতিবাক্য নিয়ে সীমাহীন ট্রল

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০২৪, ১১:০৮ পিএম

ট্রেন্ডিংয়ে আবেদ আলী, ধর্মচর্চা-নীতিবাক্য নিয়ে সীমাহীন ট্রল

ছবি: সৈয়দ আবেদ আলীর ফেসবুক থেকে নেয়া

বিসিএসসহ সরকারী চারকরির পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে সদ্য গ্রেপ্তার হওয়া পিএসসির চেয়ারম্যানের সাবেক গাড়িচালক সৈয়দ আবেদ আলীকে নিয়ে ইতোমধ্যে দেশজুড়ে বইছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষ করে ফেসবুকে অভিযুক্ত আবেদ আলী চরমভবাবে ভাইরাল। নেটিজেনরা বিভিন্ন সময় তার ফেসবুকে নামাজের ছবি, মানবিক গল্প ও সততার বাণী দে‌য়ার পোস্টগুলো নিয়ে ট্রল করছেন। এমনকি এর থেকে বাদ পড়েননি ছোট পর্দার তারকারাও।

সবার একটাই প্রশ্ন যে আবেদ আলী একজন গাড়িচালক হওয়া সত্ত্বেও তার ছেলে সৈয়দ সোহানুর রহমান সিয়ামসহ তাদের বিলাসবহুল জীবনযাপন করছেন কীভাবে? অসৎ ও অসাধু পথ অবলম্বন করেই অর্থবিত্তের মালিক হয়েছেন এই গাড়িচালক। ফেসবুকে এমনসব লেখা বিভিন্ন স্ট্যাটাসে শেয়ার করে ব্যাপক সোরগোল পাকাচ্ছেন নেটিজেনরা । এক কথায়  আবেদ আলী এখন নেট দুনিয়ায় ট্রেন্ডিংয়ে।

আরো পড়ুন: যুক্তরাজ্যের নগরমন্ত্রী হলেন বঙ্গবন্ধু্র নাতনি টিউলিপ সিদ্দিক

এছাড়া নূরানী লেবাসধারি এই ব্যক্তিকে নিয়ে ধিক্কারে ফেটে পড়ছে নেটদুনিয়া। বিভিন্ন সময় তোলা আবেদ আলীর ছবিগুলো ঘুরে বেড়াচ্ছে নেটিজেনদের টাইমলাইনে। তার ওইসব ছবিগুলোকে নিয়ে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী তার পোষ্টে ট্রল করে লিখেন, শায়েখ আবেদ আলী, জনাব উঠুন আপনাকে যে বিসিএসের প্রশ্ন ড্রপ করতে হবে। তার নামাজরত ছবি পোষ্ট করে আরেকজন লিখেন, কাকা ওঠেন...আপনি ভাইরাল।
গরিব দুঃখীদের পাশে সদা সরব বুঝিয়ে আবেদ আলীর ফেসবুকে ছবি পোস্ট|| ছবি: আবেদের ফেসবুক থেকে

এদিকে সাধারণ নেটিজেনদের পাশাপাশি আবেদ আলীকে নিয়ে পোস্ট করতে দেখা গেছে তারকাদেরও। তাদেরই একজন অভিনেত্রী সোহানা সাবা। ফেসবুকে আবেদ আলীর নামাজরত একটি ছবি শেয়ার করে এই অভিনেত্রী লিখেছেন, যারা দেখিয়ে দেখিয়ে ধর্মচর্চার নামে বাড়াবাড়ি করে, পাশে মসজিদ কিংবা নামাজের স্থান রেখে রাস্তায়, খেলার মাঠে, সমুদ্র তটে নামাজ পড়ে ছবি দেয় সোশাল মিডিয়ায়, তাদের মাঝে আমি কোনো ভালো মানুষ দেখি না। সবগুলোই বাটপার।

শিল্পী লুৎফর হাসান এই গাড়িচালকের গাড়ির ড্রাইভিং সিটে বসে সিজদারত একটি ছবিসহ পোস্ট শেয়ার করে স্ট্যাটাস দিয়েছেন এবং কিছু প্রশ্ন ছুঁড়ে তিনি লিখেছেন, ‘শুনেছি তিনি অনেক টাকার মালিক হয়েছেন। সরকারি অফিসারের ড্রাইভার হয়ে কেন এত টাকা। আমার কথা হচ্ছে, নামাজ পড়লে সেটা তার অজান্তে তার ছেলে কীভাবে তুলল? আবার অজান্তে তুলে ফেলার পর সেই ছবি তিনি অজান্তে কীভাবে ফেসবুকে পোস্ট দিলেন? এই দেশে এত আলৌকিক ঘটনা কীভাবে ঘটে? কেন ঘটে? আমরা এইসব অলৌকিকতার ধারেকাছে যেতে পারি না কেন? কেন আমরা গড়পড়তার জীবন কাটাই? কেন? কেন? কেন?’.........

উল্লেখ্য, চ্যানেল টোয়েন্টিফোরে গত রবিবার (৭ জুলাই) ‘বিসিএস প্রিলি-লিখিতসহ গুরুত্বপূর্ণ ৩০ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস’ শিরোনামে এক প্রতিবেদনে পিএসসির ক্যাডার ও নন-ক্যাডারসহ বিভিন্ন সরকারী চাকরির পরীক্ষায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ আনা হয়। ওই প্রতিবেদনে গত ৫ জুলাই অনুষ্ঠিত রেলওয়ের ৫১৬টি পদের নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করা হয়। 

বেসরকারি এ নিউজ চ্যানেলটির এ প্রতিবেদনের পর বিষয়টি আলোচনায় আসে। পড়ে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে পিএসসির দুই উপপরিচালক ও গাড়ি চালক সৈয়দ আবেদ আলীসহ ১৭ জনকে গ্রেপ্তার করে সিআইডি।

টাইমলাইন: বিসিএসের প্রশ্নফাঁস কাণ্ড

আরো পড়ুন

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App