×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

জাতীয়

ভোরের কাগজ গোলটেবিল বৈঠক

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের সোনালী অধ্যায় চলছে : শ্যামল দত্ত

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৪ জুন ২০২৪, ০৩:২১ পিএম

বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের সোনালী অধ্যায় চলছে : শ্যামল দত্ত

ভোরের কাগজ সম্পাদক ও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত।

ভোরের কাগজ সম্পাদক ও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল দত্ত বলেছেন, বাংলাদেশ-ভারত বৃহৎ প্রতিবেশী দেশ। দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কের সোনালী অধ্যায় চলছে। বাংলাদেশে কাঙ্ক্ষিত অগ্রগতিতে ভারতেকে লাগবে। আবার ভারতের কাঙ্ক্ষিত অগ্রগতিতে বাংলাদেশকেও প্রয়োজন।   

শুক্রবার (১৪ জুন) সকালে ঢাকায় ভোরের কাগজের কনফারেন্স রুমে গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করা হয়। আয়োজিত গোলটেবিল বৈঠকে তিনি এসব কথা বলেন।  

শ্যামল দত্ত বলেন, সম্প্রতি ভারতের নতুন সরকারের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির শপথ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেখানে অনুষ্ঠানের বাইরে নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে বৈঠকও করেছেন। পাশাপাশি দেশটির বিরোধী দল কংগ্রেস নেত্রী সোনিয়া গান্ধীর পরিবার এবং বিজেপির প্রবীণ নেতা লালকৃষ্ণ আডবানীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। এটা সম্পর্কের স্বর্ণ শিখর।

আরো পড়ুন : বাংলাদেশ-ভারতের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক বিশ্বে দৃষ্টান্ত : শাহরিয়ার আলম

শ্যামল দত্ত আরো বলেন, বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ক মানে সরকার টু সরকার। কিন্তু দুই দেশের জনগণের মধ্যে সম্পর্ক আরো বাড়ানো দরকার। বাংলাদেশে ভারত বিরোধী একটি মুভমেন্টও রয়েছে। তবে এরমধ্যেও দুই দেশের সম্পর্কে নতুন নতুন মাত্রা যোগ হচ্ছে। মানুষের প্রত্যাশাও আরো অনেক বেশি।

‘বাংলাদেশ ভারতের নতুন সরকার : সম্পর্ক উন্নয়নে নতুন দিগন্তের নতুন সূচনা’ শীর্ষক গোল টেবিল বৈঠক সঞ্চালনা করেন শ্যামল দত্ত। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও সংসদ সদস্য শাহরিয়ার আলম।

আলোচনায় অংশ নেন, সাবেক পররাষ্ট্র সচিব শমসের মবিন চৌধুরী, সাবেক রাষ্ট্রদূত ও কূটনীতিক মুন্সি ফয়েজ আহমেদ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক সাহাব আনাম খান, ভারত থেকে অনলাইনে যুক্ত হন প্রেস ক্লাব অব ইন্ডিয়ার সভাপতি গৌতম লাহিড়ী, টেলিগ্রাফের হেড অফ পলিটিক্যাল এফেয়ার্স দেবদীপ পুরোহিত, ডিপ্লোম্যাটিক করেসপনডেন্ট অব বাংলাদেশ (ডিক্যাব) সভাপতি নুরুল ইসলাম হাসিব ও ঢাকা ট্রিবিউনের সিনিয়র রিপোর্টার শেখ শাহরিয়ার জামান।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App