×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

আন্তর্জাতিক

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন লেবার পার্টির কিয়ার স্টারমার

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০২৪, ০৯:১৮ এএম

যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন লেবার পার্টির কিয়ার স্টারমার

লেবার পার্টির নেতা কিয়ার স্টারমার। ছবি : সংগৃহীত

যুক্তরাজ্যের সাধারণ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড, ওয়েলস এবং উত্তর আয়ারল্যান্ডের ৪০ হাজার কেন্দ্রে ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীদের ভোট দেন।

ভোটগ্রহণ শেষে চলছে গণনা। এর মধ্যেই সামনে এসেছে এক্সিট পোল বা নির্বাচনের বুথ ফেরত সমীক্ষা। শুক্রবার (৫ জুলাই) পৃথক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স এবং সংবাদমাধ্যম বিবিসি।

বুথফেরত জরিপের তথ্য অনুযায়ী যুক্তরাজ্যের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন লেবার পার্টির নেতা কিয়ার স্টারমার। বলা হচ্ছে, ৬৫০টি আসনের মধ্যে লেবার পার্টি ৪১০ আসনে জয় পাবে। জরিপে আরো বলা হয়েছে, ক্ষমতাসীন দল পেতে পারে ১৩১ আসন। ৬১টি আসনে জয়ী হয়ে তৃতীয় অবস্থানে থাকতে পারে লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি।

এখন পর্যন্ত প্রকাশিত ফলাফলে দেখা যাচ্ছে, ২০০ আসনের মধ্যে ১৫০টিতে জয় পেয়েছে লেবার পার্টি। অন্যদিকে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ দলটি ২৩ আসনে জয় পেয়েছে। বাকি আসনে জয় পেয়েছে অন্যান্য দল।

১৯৪৫ সালের পর থেকে যুক্তরাজ্যে প্রথমবারের মতো জুলাই মাসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সাধারণ নির্বাচন। বৃহস্পতিবার লন্ডনের স্থানীয় সময় সকাল সাতটা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। হাউজ অব কমন্সের সাড়ে ছয়শো সদস্যকে নির্বাচনের জন্য প্রায় ৪ কোটি ৬০ লাখ ভোটার রয়েছে। যুক্তরাজ্যের পার্লামেন্টের মোট ৬৫০টি আসনের মধ্যে সরকার গঠনের জন্য কোনো দলকে এককভাবে পেতে হবে ৩২৬টি আসনে জয়।

আরো পড়ুন : পার্লামেন্ট নির্বাচন: স্ত্রীকে নিয়ে ভোট দিলেন ঋষি সুনাক

নিয়ম মাফিক পরবর্তী সাধারণ নির্বাচন ২০২৫ সালের জানুয়ারির মধ্যে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। অনেকে আগামী শরতে তথা অক্টোবর মাসে নির্বাচন হতে পারে এমন অনুমান করলেও বাস্তবে তা হয়নি। প্রত্যাশিত সময়ের আগেই অনুষ্ঠিত এই নির্বাচনে কনজারভেটিভদের ‘ঐতিহাসিক পরাজয়’ হতে চলেছে বলে পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে বুথ ফেরত সমীক্ষায়। এর মাধ্যমে ব্রিটেনের মসনদ থেকে ১৪ বছর পর সরতে চলেছে ডানপন্থি কনজারভেটিভ পার্টি।

অবশ্য বুথ ফেরত সমীক্ষার ফল সবসময় মেলে না। ব্রিটেনের নির্বাচনের বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে, ব্রিটেনের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হতে চলেছেন বামপন্থি লেবার পার্টির নেতা কিয়ার স্টারমার। ব্রিটেনের গত ছয়টি সাধারণ নির্বাচনে শুধুমাত্র একবারই ভুল করেছিল এক্সিট পোল। ২০১৫ সালে পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল, কেউই স্পষ্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাবে না। কিন্তু, কনজারভেটিভরা সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছিল। তবে, তারপর থেকে ব্রিটেনের মসনদে বসেছেন পাঁচজন ভিন্ন ভিন্ন প্রধানমন্ত্রী।

উল্লেখ্য, জনমত সমীক্ষায় অনেক পিছিয়ে থাকা সত্ত্বেও গত মে মাসে, প্রয়োজনের থেকে অনেক আগে নির্বাচনের ঘোষণা দিয়েছিলেন ঋষি সুনাক। যা তার প্রতিপক্ষকে তো বটেই, নিজের দলকেও চমকে দিয়েছিল। তিনি আশা করেছিলেন, এর মধ্যে লেবারদের সঙ্গে ব্যবধান তিনি কমিয়ে ফেলবেন।

কিন্তু নির্বাচনে তার প্রচার সেভাবে সাড়া ফেলতে পারেনি। লেবার নেতা কিয়ার স্টারমারকে ক্ষমতায় আনার জন্য যে জনগণের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ রয়েছে, তা নয়। তবে, তিনি যে পরিবর্তনের সহজ-সরল বার্তা দিয়েছেন, তা ভোটারদের মধ্যে প্রভাব ফেলেছে বলে মনে করা হচ্ছে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App