×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

আন্তর্জাতিক

হারিকেন বেরিল

১৭৯ কিলোমিটার গতিতে আঘাত হানার শঙ্কা

Icon

কাগজ ডেস্ক

প্রকাশ: ৩০ জুন ২০২৪, ০৮:৩৭ পিএম

 ১৭৯ কিলোমিটার গতিতে আঘাত হানার শঙ্কা

ছবি : সংগৃহীত

২০২৪ সালের আটলান্টিক মহাসাগরে তৈরি হওয়া প্রথম ঝড় ‘হারিকেন বেরিল’ খুব বিপজ্জনকভাবে তীব্র হচ্ছে। ক্যারিবিয়ানের দক্ষিণ পূর্বাঞ্চলের বেশিরভাগ এলাকায় আরো শক্তিশালী রূপ নিয়েছে এটি। এ কারণে সতর্কাবস্থা জারি করা হয়েছে অঞ্চলটিতে। খবর বিবিসির।

রবিবার (৩০ জুন, স্থানীয় সময়) ঝড়টি ক্যাটাগরি-৩ বা এর চেয়েও বিপজ্জনক হারিকেনে রূপ নিয়েছে বলে জানিয়েছে ইউএস ন্যাশনাল হারিকেন সেন্টার (এনএইচসি)। স্থানীয় সময় সকাল আটটার দিকে বারবাডোস উপকূলের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে ৪২০ মাইল দূরে ঝড়টি অবস্থান করছে। এসময় ঝড়টি প্রতি ঘণ্টায় ১১৫ মাইল গতিতে অগ্রসর হচ্ছে। 

সোমবার (১ জুলাই) সকালে উইন্ডওয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জে ‘বড় ধরনের বিপজ্জনক ঝড়’ হয়ে আসবে বলে পূর্বাভাসে বলা হচ্ছে। আঘাতের সময় ঘণ্টায় এর বাতাসের গতিবেগ থাকতে পারে ১৭৯ কিলোমিটার।

এনএইচসি এর সর্তক বার্তায় বলা হয়েছে, উইন্ডওয়ার্ড দ্বীপপুঞ্জের কিছু অংশের মধ্য দিয়ে ‘হারিকেন বেরিল’ এর চোখের প্রাচীর যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে এ অঞ্চলে বিধ্বংসী বাতাস বয়ে যাবে, যার কারণে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা রয়েছে।

আরো পড়ুন : রাস্তায় জমে থাকা পানিতে ডুবে ৪ শিশুসহ ৬ জনের মৃত্যু

উপকূলীয় অঞ্চলে স্বাভাবিকের চেয়ে ছয় থেকে নয় ফুট উচ্চতার জলোচ্ছাস হতে পারে বলে পূর্বাভাসে বলা হয়েছে। এ সময় আরো বলা হয়েছে, হারিকেনটি দ্রুত শক্তিশালী হচ্ছে এবং এর বাতাসের গতি ২৪ ঘণ্টার কম সময়ের মধ্যে ৩৬ থেকে ৭৫ মাইল প্রতি ঘণ্টায় বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ক্যারিবিয়ানের দক্ষিণ–পূর্বাঞ্চলের বেশির ভাগ এলাকায় আঘাত হানতে পারে ঝড়টি। এই অঞ্চলে হারিকেন মৌসুম সাধারণত ১ জুনে শুরু হয়ে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত চলে। আটলান্টিক মহাসাগর অঞ্চলে হারিকেন মৌসুমের শুরুতে এটি দ্বিতীয় শক্তিশালী ঝড় হতে যাচ্ছে। এর আগে প্রথম গ্রীষ্মমণ্ডলীয় ঝড় আলবার্টোর আঘাতে চারজনের মৃত্যু হয়। 

বিবিসির প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ভয়াবহ ঝড় আঘাত হানার আশঙ্কায় বারবাডোজের রাজধানী ব্রিজটাউনের গ্যাস স্টেশনগুলোয় সারিবদ্ধভাবে গাড়ি দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। এ ছাড়া সুপার মার্কেট এবং মুদিদোকানে খাবার, পানি ও অন্যান্য সামগ্রী কেনার জন্য মানুষের ভিড় লক্ষ করা গেছে। 

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App