×

বিনোদন

কান থেকে ফিরে যা বললেন অদিতি

কুদরত উল্লাহ

কুদরত উল্লাহ

প্রকাশ: ০১ জুন ২০২৪, ০৯:২২ এএম

কান থেকে ফিরে যা বললেন অদিতি

অদিতি রাও হায়দারি

সম্প্রতি শেষ হওয়া কান চলচ্চিত্র উৎসবে বলিউড অভিনেত্রী অদিতি রাও হায়দারির ফ্যাশনেবল আউটিং প্রশংসিত হয়েছে। তবে অভিনেত্রী মনে করেন এর একটা গভীর উদ্দেশ্য ছিল। অদিতি বলেন, যে এটা বিশ্বের মঞ্চে সৌন্দর্যের মানকে পুনরায় সংজ্ঞায়িত করার এবং অন্তর্ভুক্তি উদযাপন করার একটি সুযোগ ছিল। 

কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল থেকে ফিরে প্রথম সাক্ষাৎকারে , অদিতি নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানান। আত্ম-স্বীকৃতি এবং আত্মবিশ্বাসের একটা উপায় খুঁজে বের করার জন্য অদিতি নিজের সংগ্রামের কথা স্মরণ করেন। অদিতি কান চলচ্চিত্র উৎসবে ফরাসি কসমেটিক ব্র্যান্ড লরিয়াল প্যারিসের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে গিয়েছিলেন অদিতি।

কানে থাকার বিষয়ে অদিতি বলেন, ‘কান ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে ভারতের প্রতিনিধিত্ব করা আমার জন্য একটি বিশাল সম্মান এবং গর্বের মুহূর্ত। লাল গালিচায় আইকনদের হাঁটতে দেখা, পুরস্কার বিতরণ এবং ফ্যাশন সবসময় আমাকে অনুপ্রাণিত করেছে। সুতরাং, এর অংশ হওয়া আমার কাছে খুব দামী। 

কান শুধু বিশ্বের সিনেমার উদযাপন নয়, এটি এমন একটি প্ল্যাটফর্ম যেখানে বিভিন্ন সংস্কৃতি এবং গল্প একত্রিত হয়। আমি লরিয়াল প্যারিসের উত্তরাধিকার এবং কান উত্তরাধিকারের অংশ হতে পেরে বিশাল গর্ব অনুভব করি। লরিয়াল প্যারিস ২৭  বছর ধরে তাদের ভিত শক্ত করেছে’। আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে অদিতির এটা তৃতীয় বছর ছিল। তিনি ২০২২ সালে প্রথমবার কান-এর মঞ্চে পা রেখেছিলেন। লাল গালিচায় পা রাখার জন্য, অদিতি হাতে তৈরি, সূক্ষ এমব্রয়ডারি করা অর্গানজা শাড়ি পরেছিলেন।

অদিতির কথায়, কসমেটিক ব্র্যান্ডের প্রতিনিধিত্ব করা তার কাছে ছিল ‘অবিশ্বাস্যভাবে ক্ষমতায়নের উদাহরণ’। এবার কানে ব্র্যান্ডের থিম ছিল 'আইকন হওয়ার অনেক উপায়'। ‘এটা নিজের গুরুত্ব এবং বিশ্বাসকে পুনরায় জাগিয়ে তুলেছে। আমি আশাকরি কান নারীদের নিজেদের স্বপ্ন পূরণ করতে, অনুপ্রাণিত করতে এবং তারাও যাতে নিজেদের স্বপ্ন নিয়ে বাঁচতে পারে সেদিকে নজর দিয়েছে’। সম্প্রতি তিনি হীরামান্ডি সিরিজে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন অদিতি রাও হায়দারি।  

ভারতকে প্রতিনিধিত্ব করা বড় দায়িত্ব অদিতি আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যালে নিজের পা রাখার মাধ্যমে গোটা বিশ্বের দর্শকদের কাছে ভারতীয় সিনেমা এবং সৌন্দর্যের সমৃদ্ধি এবং বৈচিত্র্য প্রদর্শনের সুযোগ হিসেবে দেখছেন।

তিনি উল্লেখ করেন, ‘একজন ভারতীয় অভিনেতা হিসেবে, আমি শুধু আমার প্রতিভাই নয়, দেশের সাংস্কৃতি, ঐতিহ্য এবং আমাদের সিনেমাকে তুলে ধরেছি। কানে আমার উপস্থিতির মাধ্যমে, আমাদের গল্প বলার গভীরতা, বৈচিত্র্য, আমাদের চলচ্চিত্র নির্মাতাদের প্রতিভা ভারতের বৈচিত্র্যময় প্রাকৃতিক দৃশ্য ও সংস্কৃতির সৌন্দর্য তুলে ধরতে চেয়েছি। 

পাশাপাশি বিউটি ব্র্যান্ডের একজন ব্র্যান্ডের মুখপাত্র হিসেবে আমি সৌন্দর্যের মানগুলিকে পুনঃসংজ্ঞায়িত করা এবং বিশ্বব্যাপী অন্তর্ভুক্ত করার একটা সুযোগ হিসেবে দেখছি’। অদিতি আশা করেন যে তার উপস্থিতি ‘বিশ্বের দরবারে সৌন্দর্যের আরো অন্তর্ভুক্তিকরণ এবং বৈচিত্র্যময় উপস্থাপনাকে অনুপ্রাণিত করেছে।’

অদিতির জানান, ‘আত্ম-গ্রহণযোগ্যতা এবং আত্মবিশ্বাসের দিকে আমার যাত্রা বিস্তৃত এবং শেখার জন্য সবসময় খোলা। অনেক মানুষের মতো, আমি নিজের সন্দেহ এবং বিভ্রান্তির মুখোমুখি হয়েছি এবং নিজের সঙ্গে সংগ্রাম করেছি’।

অভিনেত্রী আরো বলেন, ‘এমন সময়ও গিয়েছে যখন আমি কিছু জিনিস মেনে চলার চাপ অনুভব করতাম বা সচরাচর যা সুন্দর এবং গ্রহণযোগ্য বলে বিবেচিত হয় সেই ছাঁচে নিজেকে ফিট করার জন্য চাপ অনুভব করতাম। কিন্তু সময়ের সঙ্গে আমি আমার ব্যক্তিত্বকে আলিঙ্গন করার এবং আমার নিজের অনন্য সৌন্দর্যকে উদযাপনের গুরুত্ব উপলব্ধি করতে পেরেছি’।

অদিতির কথায়, এই সবের জন্যই তিনি নিজেকে ভালোবাসতে বা গ্রহণ করতে শিখেছেন বলে মনে করেন। তিনি বলেন, ‘এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে, আমি নিজেকে আবিষ্কার করেছি যে সত্যিকারের আত্মবিশ্বাস ভেতর থেকে আসে, নিজেকে গ্রহণ করা এবং বাহ্যিক চেহারার বাইরে নিজস্ব মূল্যকে স্বীকৃতি দেয়ার সাহস জাগে।’

আরো পড়ুন:

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App