×

বিনোদন

‘এক্সট্রা ফিঙ্গার’ কেটে ফেলতে চেয়েছিলেন রাকেশ!

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০২৪, ০১:১৭ পিএম

‘এক্সট্রা ফিঙ্গার’ কেটে ফেলতে চেয়েছিলেন রাকেশ!

দেখতে দেখতে ৪৯ বেসন্ত পার করে এসেছেন বলিউড তারকা ঋত্বিক রোশান। অবশ্য পঞ্চাশেও দুরন্ত ‘সিক্স প্যাকের’ এই নায়ক। জন্মদিনে জানা গেল ঋত্বিকের অজানা এক তথ্য। আর তা হচ্ছে, তার শরীরের একটি অঙ্গ নাকি কেটে বাদ দিতে চেয়েছিলেন বাবা রাকেশ রোশান! 

২০০০ সালে রাকেশের পরিচালনায় ‘কহো না প্যায়ার হ্যায়’ ছবিতে আত্মপ্রকাশ করেন ঋত্বিক। বিপরীতে ছিলেন আমিশা প্যাটেল। প্রথম ছবিতেই বাজিমাত করে ঋত্বিক। কিন্তু রূপালি পর্দায় মুখ দেখানোর আগেই নাকি ছেলের হাতের এক্সট্রা ফিঙ্গার বা একাদশ আঙুলটি কেটে বাদ দিয়ে দিতে চেয়েছিলেন বাবা রাকেশ। 

অপারেশন করার সিদ্ধান্তও চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু, বাধা দেন মিসেস রোশন অর্থাৎ ঋত্বিকের মা।

‘কহো না প্যায়ার হ্যায়’ ছবির শ্যুটিংয়ের সময় সর্বত্রই হৃত্বিকের বাড়তি আঙুল স্পষ্ট দেখা যাচ্ছিল। হাত মেলানোর দৃশ্য হোক বা ক্লোজ শটে বাড়তি আঙুল দেখা যেতেই সেটা বাদ দিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন পরিচালক রাকেশ রোশন। ঋত্বিকও চরিত্রের স্বার্থে বাবার নির্দেশ মেনে নেন। অপারেশন করানোর বিষয়টা চূড়ান্তও হয়ে যায়। কিন্তু ঋত্বিকের মা রাকেশকে বোঝান, ছোট থেকেই ১১টা আঙুল রয়েছে। এটা তো কোনও সমস্যা তৈরি করেনি কখনও। তাহলে বাদ দেয়ার কারণ কী?

শেষ পর্যন্ত যুক্তির কাছে হার মানেন রাকেশ। টিকে যায় ঋত্বিকের ‘একাদশ আঙুল’। ছবি মুক্তির পরও কোনো সমস্যা হয়নি। বরং সুপারডুপার হিট ছবির তকমা পেয়েছিল ‘কহো না প্যায়ার হ্যায়’। 

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App