×

অর্থনীতি

ফায়ার সেফটি নিশ্চিত না হলে অর্থনৈতিক উন্নয়ন ব্যাহত হবে

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১১ জুন ২০২৪, ১২:৪৭ পিএম

ফায়ার সেফটি নিশ্চিত না হলে অর্থনৈতিক উন্নয়ন ব্যাহত হবে

ছবি: ভোরের কাগজ

দিন দিন আকার বাড়ছে দেশের অর্থনীতির। অর্থনীতির আকার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে গড়ে উঠছে বহুতল ভবন, অট্টালিকা। ৪৬৫ বিলিয়ন ডলারের অর্থনীতির এই দেশ অদূর ভবিষ্যতে ট্রিলিয়ন ডলার অর্থনীতির দেশে পরিণত হবে। অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রার মাধ্যমে দেশকে আধুনিক, সুখী-সমৃদ্ধ দেশে রুপান্তরিত করতে হলে শিল্প কারখানা, আবাসিক ও বাণিজ্যিক ভবনে অগ্নিনিরাপত্তা নিশ্চিত এখন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সেটি নিশ্চিত করা না গেলে দেশের টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়ন ব্যাহত হবে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) ইলেকট্রনিক্স সেফটি অ্যান্ড সিকিউরিটি অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইসাব) আয়োজিত অগ্নি নিরাপত্তা বিষয়ক কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এই মন্তব্য করেন। সম্প্রতি রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে অবস্থিত ইসাব কার্যালয়ে এই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেশের বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। অগ্নি নিরাপত্তার প্রয়োজনীয়তা মেনে চলার গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে এই প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয় বলে জানিয়েছে আয়োজকরা।

আরো পড়ুন: সংসদে ৩৮ হাজার কোটি টাকার সম্পূরক বাজেট পাস

সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আমিন হেলালী। প্রধান অতিথির বক্তব্যে এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র সহ-সভাপতি মো. আমিন হেলালী ফায়ার সেফটির গুরুত্ব তুলে ধরে বলেন, অর্থনীতির আকার বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাণিজ্যিক ও আবাসিক ভবনের অগ্নি নিরাপত্তা নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবি। গ্রাহকরা এখন আগের চেয়ে অনেক সচেতন। তারা কোনো শপিংমল বা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার আগে এসব বিষয় ভেবে দেখে। কাজেই শপিংমল, শিল্প প্রতিষ্ঠানসহ বাণিজ্যিক ভবনগুলোতে অগ্নি নিরাপত্তা নিশ্চিতসহ অন্যান্য কমপ্লায়েন্স নিশ্চিত করা অত্যন্ত জরুরী। বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিতে ভবন নির্মাণে মানদণ্ড মেনে চলা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

ইসাব সভাপতি এবং এফবিসিসিআই পরিচালক মো. নিয়াজ আলী চিশতী জানান, অগ্নি নিরাপত্তা নিয়ে জনসচেতনতা বৃদ্ধির পাশাপাশি টেকসই অবকাঠামো নির্মাণ নিশ্চিতে ভবন নির্মাণ নীতিমালার যথার্থ প্রয়োগে ইসাব ভবিষ্যতেও তাদের কার্যক্রম চালিয়ে যাবে। এই ধরনের প্রশিক্ষণ কর্মশালার মাধ্যমে মানুষের মধ্যে প্রয়োজনীয় জ্ঞান ও দক্ষতা নিশ্চিত করা গেলে ফায়ার সেফটি বাস্তবায়নে তারা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারবেন।

ইসাবের সেক্রেটারি জেনারেল জাকির উদ্দিন আহমেদ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- এফবিসিসিআইয়ের সাবেক পরিচালক আক্কাস মাহমুদ, ইসাবের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এসএম শাহজাহান সাজু, সহ-সভাপতি মোহাম্মদ ফয়সাল মাহমুদ, ইঞ্জি. এম মাহমুদুর রশিদ, যুগ্ম মহাসচিব মো. মাহমুদ-ই-খোদা, কোষাধ্যক্ষ মো. নূর-নবী, প্রচার সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, পরিচালক মো. ওয়াহিদ উদ্দিন, ইঞ্জি. মো. আল-ইমরান হোসেন, মো. রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App