×

সারাদেশ

বেনাপোল-মোংলা রুটে ট্রেনের সময়সূচি ও ভাড়া

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০১ জুন ২০২৪, ০৩:৪৩ পিএম

বেনাপোল-মোংলা রুটে ট্রেনের সময়সূচি ও ভাড়া

ছবি: সংগৃহীত

বেনাপোল বন্দর থেকে মোংলা পর্যন্ত ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। শনিবার (১ জুন) সকাল ১০টায় যাত্রীবাহী ট্রেনটি বেনাপোল থেকে মোংলার উদ্দেশে ছেড়ে যায়। সকাল ১০টায় কমিউটার ট্রেনটি ৫০০ যাত্রী নিয়ে বেনাপোল থেকে মোংলার উদ্দেশ্যে ছেড়ে গেছে। ট্রেনটি যশোর, ফুলতলা ও খুলনা হয়ে মোংলায় যাবে। প্রথম দিনেই শতশত যাত্রীর ভীড় ছিল চোখে পড়ার মতো। বেনাপোল রেলস্টেশন মাস্টার সাইদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের সহকারী চিফ অপারেটিং সুপারিনটেনডেন্ট মো. আব্দুল আওয়াল বলেন, শনিবার সকাল ১০টার ট্রেনটি দুপুর ১২টা ৩৫ মিনিটে মোংলায় পৌঁছাবে। পরে মোংলা থেকে ট্রেনটি ছাড়বে দুপুর ১টায়। বেনাপোলে পৌঁছাবে বিকেল সাড়ে ৪ টায়। বেনাপোল থেকে মোংলা পর্যন্ত যাত্রীপ্রতি ৮৫ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে। 

মঙ্গলবার ছাড়া সপ্তাহের ৬ দিন এই রুটে একই সময়ে ট্রেন চলাচল করবে। এই রুটের দূরত্ব ১৩৮ দশমিক ৬৪ কিলোমিটার। বেনাপোল থেকে ট্রেন ছাড়ার পর নাভারণ, ঝিকরগাছা, যশোর জংশন, রূপদিয়া, সিঙ্গিয়া, চেঙ্গুটিয়া, নওয়াপাড়া, বেজেরডাঙ্গা, ফুলতলা, আড়ংঘাটা, মোহাম্মদনগর, কাটাখালী, চুলকাটি বাজার, ভাগা ও দিগরাজ স্টেশনে যাত্রাবিরতির পর মোংলায় যাবে।

রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের জেনারেল ম্যানেজার অসীম কুমার তালুকদার জানান, খুলনা-মোংলা রুটের জন্য এখনো জনবল নিয়োগ সম্পন্ন হয়নি। রেলওয়ের বিভিন্ন জায়গা থেকে জনবল এনে আপাতত কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে। খুলনা-মোংলা রেলপথ চালু হওয়ায় এ অঞ্চলের ব্যবসায়ীরা বিষয়টিকে ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখছেন। মোংলা বন্দর ব্যবহার করে সবাই উপকৃত হবেন। 

উল্লেখ্য, ট্রানজিট সুবিধার আওতায় ভারত, নেপাল ও ভুটানে পণ্য পরিবহন সহজ করতে ২০১০ সালে খুলনার ফুলতলা রেলস্টেশন থেকে মোংলা বন্দর পর্যন্ত রেলপথ স্থাপন প্রকল্প হাতে নেয় সরকার। প্রকল্পটি তিন বছরে শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ হতে সময় লেগেছে প্রায় ১৪ বছর। মেয়াদ বাড়ার সঙ্গে বেড়েছে প্রকল্পের ব্যয়ও। 

শুরুতে প্রকল্পের ব্যয় ১ হাজার ৭২১ কোটি টাকা থাকলেও কয়েক দফায় মেয়াদ বেড়ে মোট ব্যয় দাঁড়ায় ৪ হাজার ২৬০ কোটি টাকার বেশি। ভারত সরকারের ঋণসহায়তায় প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করেছে ভারতীয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান লার্সেন অ্যান্ড টার্বো ও ইরকন ইন্টারন্যাশনাল।

গত বছরের ১ নভেম্বর খুলনা-মোংলা পর্যন্ত নতুন রেললাইনের উদ্বোধন করা হয়েছিল। উদ্বোধনের ৭ মাস পর এ রুটে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। ট্রেনটি খুলনা থেকে বেনাপোল চলাচলের সময় ‘বেতনা এক্সপ্রেস’ নাম ঠিক রেখে বেনাপোল-মোংলা রুটে চলাচলের সময় ‘মোংলা কমিউটার’ নাম ধারণ করবে।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App