×

রাজধানী

মাদক ব্যবসায় বাধা, ছুরিকাঘাতে চোখ গেলো যুবকের

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১০ জুন ২০২৪, ১০:৫১ পিএম

মাদক ব্যবসায় বাধা, ছুরিকাঘাতে চোখ গেলো যুবকের

ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর জুরাইনে পূর্বশত্রুতার জের ধরে নুর ইসলাম স্বপন (৩০) নামে এক যুবকের চোখে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। এতে তার একটি চোখ নষ্ট হয়ে গেছে বলে চিকিৎসকের বরাত দিয়ে জানিয়েছেন স্বজনরা।

সোমবার (১০ জুন) বেলা ১২টার দিকে জুরাইন কলেজ রোডে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে। গুরুতর আহত অবস্থায় স্বপনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত নুর ইসলামের স্ত্রী আয়েশা আক্তার জানান, তাদের বাসা জুরাইন কলেজ রোড এলাকায়। নুর ইসলাম বর্তমানে মোটরসাইকেলে যাত্রী পরিবহন করেন। আগে কলেজ রোড এলাকার দিপু, শাকিল, রুবেল, মাসুম, শুক্কুরদের সাথে চলাফেরা করতেন তিনি। তাদের সাথে মাদক সেবনও করতেন। তবে গত ৩ বছর যাবৎ তাদের সাথে আর চলেন না নুর। তাদের কাছ থেকে দূরে থাকেন। একারণে তাদের সাথে মাঝে মাঝে ঝগড়াঝাটি হয়।

তিনি আরো জানান, গত এক সপ্তাহ আগে তার স্বামী নুর ইসলামকে হত্যার হুমকি দেয় ওই মাদক ব্যবসায়ীরা। ভয়ে তারা ঢাকা ছেড়ে মুন্সিগঞ্জে এক আত্মিয়ের বাসায় চলে যান। আজকে তারা স্বামী-স্ত্রী কাউকে না জানিয়ে আবার ঢাকার জুরাইনের বাসায় আসেন। কিছুক্ষণ পর বাসা থেকে বের হন কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া বিআরটিএ'তে যাওয়ার। বেলা ১২টার দিকে জুরাইন কলেজ রোডে পৌছালে তার স্বামী নুর ইসলামকে দিপু, শাকিল, রুবেল, মাসুম, শুক্কুর ডেকে নিয়ে যায়। কিছুটা দূরে নিয়ে সবাই মিলে তাকে মারধর শুরু করে। গামছা দিয়ে বেধে মাটিতে ফেলে শুক্কুর সুইচ গিয়ার দিয়ে নুর ইসলামের দুই চোখে আঘাত করতে থাকে। এছাড়া দুই হাতে ও পায়েও আঘাত করে। স্ত্রী আয়েশা আক্তার তাদের বাধা দিতে গেলে তাকেও মারধর করে ঘাতকরা। এরপর রাস্তায় ফেলে তারা পালিয়ে যায়।

তখন স্বজনরা নুর ইসলামকে উদ্ধার করে দ্রুত ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

হাসপাতালে বিছানায় শুয়ে আহত নুর ইসলাম বলেন, গত ২ দিন আগে ঘাতক শুক্কুরের দুই ছেলেকে পুলিশ ধরে নিয়ে যায়। এরপর থেকে শুক্কুর আমাকে সন্দেহ শুরু করে।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চক্ষু বিভাগের দায়িত্বরত চিকিৎসক জানান, নুর ইসলামের দুই চোখে ধারালো অস্ত্রের আঘাত আছে। তার বাম চোখ নস্ট হয়ে গেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। তবে মঙ্গলবার অস্ত্রোপচার কক্ষে নিয়ে তার চোখ ভালো মত দেখা হবে। এরপরই বুঝা যাবে চোখে দেখার সম্ভাবনা আছে কি না।

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App