স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়ার প্রতিশোধ নিতে বন্ধুকে হত্যা, গ্রেপ্তার ঘাতক

আগের সংবাদ

গরমে অতিষ্ঠ হাতিদের জল দিয়ে ঠাণ্ডা করা হচ্ছে

পরের সংবাদ

১৪ দলের নেতারা

বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে বাড়াবাড়ি করছে একটি দেশ‌

প্রকাশিত: জুন ৬, ২০২৩ , ৪:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৬, ২০২৩ , ৪:৪৪ অপরাহ্ণ

বাংলাদেশের আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে তৃতীয় একটি দেশ বাড়াবাড়ি করছে। বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার মালিক আমাদের দেশের জনগণ। সেখানে কারো মাথা ঘামানো সমীচিন নয়।

সেই দেশটির বাড়াবাড়ির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃঢ অবস্থানকে সমর্থন করেছেন চট্টগ্রামে ১৪ দলের নেতারা। তবে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা সেই দেশটির নাম উল্লেখ করা হয়নি ১৪ দল প্রেরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

চট্টগ্রামে ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজনের সভাপতিত্বে সোমবার রাতে তার উত্তর কাট্টলীস্থ বাসভবনে এক সভায় উপরোক্ত মত প্রকাশ করেন নেতৃবৃন্দ।

সভায় বক্তব্য রাখেন-জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক জসিমুদ্দিন বাবুল, ওয়ার্কাস পার্টির জেলা সভাপতি এডভোকেট আবু হানিফ, ন্যাপের কেন্দ্রীয় সহ সভাপতি গাজী আলমগীর, ওয়ার্কাস পার্টির চট্টগ্রাম জেলা সাধারন সম্পাদক শরীফ চৌহান, ন্যাপের মহানগর সাধারন সম্পাদক ফয়েজউল্লাহ মজুমদার, জাসদ মহানগর সদস্য বেলায়েত হোসেন, সাম্যবাদী দলের আহবায়ক অমূল্য বড়ুয়া, গন আজাদী লীগের সভাপতি মাওলানা নজরুল ইসলাম আশরাফী, সাধারণ সম্পাদক মো. খোরশেদ আলম, ওয়ার্কার্স পার্টির সম্পাদকমন্ডলীর সদস্য মনসুর মাসুদ, সদস্য মো. দিদারুল আলম প্রমূখ।

সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনটি সুষ্ঠু এবং অংশগ্রহণমূলক করতে যখন নির্বাচন কমিশন সব ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করতে শুরু করেছে ঠিক সেই মূহুর্তে একটি দেশের অতিরিক্ত বাড়াবাড়িতে দেশের সচেতন মহল উদ্বিগ্ন। ঐ দেশটির বাড়াবাড়ির বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী ও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার দৃঢ়তা সকল মহলে প্রশংসিত হয়েছে।

চট্টগ্রাম মহানগর ১৪ দল প্রধানমন্ত্রীর এই দৃঢ় অবস্থানকে স্বাগত জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নেয়ার মালিক আমাদের দেশের জনগণ। সেখানে কারো মাথা ঘামানো সমীচিন নয়।

নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের অতিরিক্ত মূল্যবৃদ্দির জন্য দেশের একশ্রেনীর অসাধু ব্যবসায়ীর সিন্ডিকেটকে দায়ী করে এসব সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের দৌরাত্ম্য বন্ধ করতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেন নেতৃবৃন্দ।

পাশাপাশি নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে চট্টগ্রামের জনগণের সুপেয় পানির চাহিদা পূরণের জন্য কোটি কোটি টাকার বরাদ্দ প্রদান করেছেন। কিন্তু দুঃখজনকভাবে চট্টগ্রাম ওয়াসা তাদের প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ হয়েছে।

নেতৃবৃন্দ নগরবাসীর পানির চাহিদা পূরণে ওয়াসাকে আরো আন্তরিক হওয়ার আহবান জানান।

সভায় নেতৃবৃন্দ সদ্য প্রয়াত চট্টগ্রাম ১০ আসনের সাংসদ এবং সাবেক মন্ত্রী ডা. মো. আফছারুল আমীনের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে তাঁর আত্মার শান্তি কামনায় মোনাজাত ও তাঁর শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়