৪ দফা বাস্তবায়নের দাবি ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের বিক্ষোভ

আগের সংবাদ

টাঙ্গাইল থেকে অনলাইন জুয়ারির ডিলার গ্রেপ্তার

পরের সংবাদ

জাহাঙ্গীর কবির নানক

নির্বাচনে না এলে বিএনপির কবর রচনা হবে

প্রকাশিত: জুন ৫, ২০২৩ , ৯:১৬ অপরাহ্ণ আপডেট: জুন ৫, ২০২৩ , ৯:১৭ অপরাহ্ণ

বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী কর্মকাণ্ডের কঠোর সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, আপনারা যদি সন্ত্রাসের পথ পরিহার করে নির্বাচনের পথে না আসেন, তাহলে রাজনৈতিকভাবে আপনাদের কবর রচনা হবে।

সোমবার (৫ জুন) বিকালে রাজধানীর শ্যামলী ক্লাব মাঠে ঢাকা-১৩ আসনের আটটি ওয়ার্ডে যুবলীগের ১০৪ ইউনিটের সম্মেলনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এ সময় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলের বক্তব্যের কূটুক্তি করেন নানক । তিনি বলেন, বিএনপি ক্ষমতায় আসার আগে তাদের প্রতিষ্ঠান খুনি জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীর ছয়শতাধিক সামরিক সদস্যকে ফাঁসির কাষ্টে ঝুলিয়ে হত্যা করেছিলেন তারা নাকি রাষ্ট্রকাঠামোকে মেরামত করবে ৷ ওদের কথা শুনে ঘোড়াও হাসে।

আওয়ামী লীগ এই নেতা বলেন, যারা রাষ্ট্রের মধ্যে আরেকটি হাওয়া ভবন রাষ্ট্র গঠন করেছিল। ওই বিএনপি-জামায়াতের বিরুদ্ধে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে ও তাদের ষড়যন্ত্রের ‘বিষদাত’ ভেঙে দিতে হবে।

বিএনপির উদ্দেশ্যে নানক বলেন, ‘লজ্জা করে না আপনাদের? বিএনপি নেতারা বলেছিলেন আওয়ামী লীগ, শেখ হাসিনা কোনোদিন পদ্মা সেতুকরতে পারবে না। শুধু তাই নয়, বিএনপি পদ্মাসেতু নির্মাণ বন্ধে নানা ষড়যন্ত্র করেছে। আর এই ষড়যন্ত্রের পেছনে ড. ইউনূসের হাত রয়েছে বলে জানান তিনি।

সরকার বিরোধীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, দেশীয় ও আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র মোকাবেলা করে বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে। ষড়যন্ত্র চলছে চলবে কিন্তু শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের উন্নয়ন থেমে থাকবে না। শেখ হাসিনা নেতৃত্বে সরকার কোন অপশক্তিকে ভয় পায় না।

এসময় দলের বার্তা পাওয়া মাত্রই আগামী নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর পক্ষে ঝাঁপিয়ে পড়তে যুবলীগকে নির্দেশনা দেন যুবলীগের সাবেক চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর কবির নানক। যুবলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের ফোনে যদি কোনো ম্যাসেজ পান। সে ম্যাসেজ পেয়ে আপনারা ঝাঁপিয়ে পড়তে পারবেন না? আমাদের কোনো বিবেধ নেই। শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দেবেন, তার পক্ষে আমরা সবাই ঝাঁপিয়ে পড়বো।

সম্মেলনে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বলেন, আগামী নির্বাচনে আপনারা দেশপ্রেমিক ও ত্যাগী নেতৃত্ব আপনারা নির্বাচন করবেন বলে আমি বিশ্বাস করি। সামনের সব নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও অত্যন্ত প্রতিযোগিতামূলক হবে। সকল নির্বাচনের জন্য আমাদের প্রস্তুত থাকতে হবে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে আওয়ামী লীগকে আবারো সরকার নির্বাচন করতে হবে।

নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, আমাদেরকে মাঠে ময়দানে থাকতে হবে। যে কোনো ষড়যন্ত্র মোকাবেলায় সর্বোচ্চ ত্যাগ স্বীকার করতে তৈরি থাকতে হবে। এটা সম্ভব হবে যখন আমরা নিজেদের মধ্যে গ্রুপিং বন্ধ করতে হবে।

সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন। এসময় আরব বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, ঢাকা-১৩ আসনের সংসদ সদস্য সাদেক খান,যুবলীগের প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দি, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের দপ্তর সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল, উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াজ মাহমুদ। এ সময় যুবলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়