সংবাদ প্রকাশ করায় গণমাধ্যমকর্মীদের প্রাণনাশের হুমকি

আগের সংবাদ

ঢাবির ৪ শিক্ষার্থীকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার

পরের সংবাদ

‘আবু আসিফ নিখোঁজ নাকি আত্মগোপনে’, অডিও ফাঁসে তোলপাড়

প্রকাশিত: জানুয়ারি ৩০, ২০২৩ , ৯:০৮ অপরাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ৩০, ২০২৩ , ৯:০৮ অপরাহ্ণ

ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল-আশুগঞ্জ) আসনের উপনির্বাচনের স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপির বহিষ্কৃত নেতা, উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি আবু আসিফ ‘নিখোঁজ নাকি আত্মগোপনে’-এ নিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও আশুগঞ্জে তোলপাড় চলছে।

তার স্ত্রী তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বললেও আওয়ামী লীগ নেতারা মনে করছে, সে আত্মগোপনে থেকে নাটক করছে। তবে একটি অডিও রেকর্ড ফাঁস হওয়ার পর সোমবার (২৯ জানুয়ারি) আবু আসিফের বিষয়টি টক অব দ্য টাউনে পরিণত হয়।

আবু আসিফ আশুগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ (সরাইল ও আশুগঞ্জ) উপনিবাচনে তিনি বিএনপি চেয়ারপার্সনের সাবেক উপদেষ্টা ও এই আসন থেকে পাঁচ বারের সাবেক সংসদ সদস্য বহিষ্কৃত নেতা উকিল আবদুস সাত্তার ভূঁইয়ার অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী। আবু আসিফ মোটরগাড়ি প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে লড়ছেন।

আবু আসিফ অভিযোগ করে আসছিলেন, নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য তার ওপর প্রচণ্ড চাপ ছিলো। তার নির্বাচনী প্রচারণার দায়িত্বে নিয়োজিত কর্মী-সমর্থকদের নানাভাবে হয়রানি করাসহ ভয়ভীতি দেখানো হয়েছিল। তবে এর মধ্যেও তিনি নির্বাচন চালিয়ে যাওয়ার অঙ্গীকার করেছিলেন।

২৬ জানুয়ারি আসিফ অভিযোগ করেছিলেন, ২৫ জানুয়ারি রাত থেকে তার শ্যালক ও নির্বাচন পরিচালকারী কমিটির প্রধান সমন্বয়ক শাফায়েত হোসেন (৩৮) নিখোঁজ রয়েছেন। ওইদিন রাতে পুলিশ গ্রেপ্তার করেন তার প্রধান নির্বাচনী এজেন্ট মুসা মিয়াকে (৭৫)। যদিও পুলিশ বলেছিলো মারামারির মামলায় গ্রেপ্তার করা হয় তাকে।

রবিবার আশুগঞ্জে খবর ছড়িয়ে পড়ে যে, আবু আসিফ নিখোঁজ। তার স্ত্রী মেহেরুন্নিছা জানান, গত দুদিন ধরে আমার স্বামী ঘরে ফেরেনি। আমাদের লোকজনও ভয়ে থাকছে। এজেন্ট নিয়োগ দিতে সমস্যা হচ্ছে। কাজের লোক এলেও ছবি তুলে রাখে, ভিডিও করে রাখে। এভাবে তো সুষ্ঠু নির্বাচন হয় না। তারা একজনকে জয়ী করবে এটি আগেই বললেই তো পারে। কেন আমাদের এতো টাকা খরচ করালো? আমার ছোট ভাইকেও বুধবার থেকে পাচ্ছি না।

মেহেরুন্নিছা বলেন, ‘আমার স্বামী আত্মগোপনে যাননি’। এ বিষয়ে থানায় বা কোথাও লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমাদেরকে পালিয়ে থাকতে হচ্ছে। আমিও ভয়ের মধ্যে আছি। দ্রুত একটা কিছু করবো’।

তবে আবু আসিফ নিখোঁজ হওয়ার খবর সারাদেশে ছড়িয়ে পড়লে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আসিফের স্ত্রী ও বাসার কেয়ারটেকারের (তত্ত্বাবধায়কের) ফোনালাপ বলে একটি অডিও ফাঁস হয়। যেখানে আসিফের স্ত্রী হিসেবে বাড়ির কেয়ারটেকারকে আসিফের জন্য জামা-কাপড় গোছানোর জন্য নির্দেশ দিতে শোনা যায়। সেখানে একটি নারী কণ্ঠ, ‘ইফসুফ (কেয়ারটেকার) স্যার কই, স্যারের (আসিফ) কতগুলো জামাকাপড়, গেঞ্জি, প্যান্ট, শীতের কাপড়, জুতা মোজা ব্যাগে ভরে দিয়ে দে তাড়াতাড়ি। আরে তাড়াতাড়ি দে। কেউ যেন না জানে, স্যার কই গেছে। ক্যামেরা বন্ধ করে দে। ক্যামেরার লাইন বন্ধ কর বাসার। স্যার গেলে আরও ১০ মিনিট পর ক্যামেরার লাইন খুলবে।’

ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনায় বিএনপি নেতা আসিফ নিখোঁজ নাকি আত্মগোপনে গেছেন এ বিষয়ে আলোচনা আরো ডালপালা মেলতে শুরু করে। এরপর থেকে সোমবার সারাদিন ফোন করলেও আসিফের স্ত্রী ফোন রিসিভ করেননি। পাশাপাশি, আসিফের ফোনও বন্ধ পাওয়া গেছে।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়