সচিবসহ স্বাস্থ্যের ২২ পদে রদবদল

আগের সংবাদ

রাহুল-আথিয়ার বিয়ের ছবি ভাইরাল

পরের সংবাদ

নাসিমের বোলিং আগুনে ছারখার ঢাকা

প্রকাশিত: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ , ১২:২৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ , ১২:২৭ পূর্বাহ্ণ

কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমেই বল হাতে আগুন ঝরিয়েছেন পাকিস্তানের পেস তারকা নাসিম শাহ। মাত্র ১৯ বছর বয়সী এই পেসার আজ একাই ধসিয়ে দিয়েছেন ঢাকা ডমিনেটর্সকে। ৪ ওভার বল করে মাত্র ১২ রানে শিকার করেছেন ৪ উইকেট। টেনেটুনে ১০০ পার হয়েছে ঢাকার স্কোর। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ৬০ রানে জয় পেয়েছে।

রান তাড়ায় নেমে ঢাকার শুরুটাও ভালো হয়নি। দলীয় ১০ রানে মিজানুর রহমানকে (৫) অসাধারণ এক ডেলিভারিতে বোল্ড করে দেন পাকিস্তানি পেসার নাসিম শাহ। স্কোরবোর্ডে আর ২ রান যোগ হতেই ফেরেন অপর ওপেনার সৌম্য সরকার। ব্যর্থতার বোঝা আরো বাড়িয়ে সৌম্যর সংগ্রহ ৭ বলে ৩ রান। পারেননি মোহাম্মদ মিঠুনও। ১১ বলে ৩ রান করে নাসিম শাহর দ্বিতীয় শিকার হন।

ধারাবাহিকভাবে ভালো করে যাওয়া ঢাকা অধিনায়ক নাসির হোসেন আজ পারেননি। ১৫ বলে ‌১৭ রান করে খুশদিল শাহর বলে নাসিমের তালুবন্দি হন। এনামুল হককে (১১) রিভিউ নিয়ে ফেরায় কুমিল্লা। এর সাথে ৬২ রানে শেষ হয় ঢাকার ইনিংসের অর্ধেক। ১৬তম ওভারের পরপর দুই বলে জোড়া আঘাত হানেন নাসিম শাহ। ফেরেন মুক্তার আলী (৯) ও আমির হামজা (০)। ঢাকার পরাজয় নিশ্চিত হয়ে যায়। বাকি ছিল আনুষ্ঠানিকতা। শেষ পর্যন্ত ৯ উইকেটে ১০৪ রানে থামে ঢাকার ইনিংস। নাসিম ছাড়াও খুশদিল শাহ নেন ২৪ রানে ২ উইকেট।

এর আগে মিরপুর শেরেবাংলায় টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৬ উইকেটে ১৬৪ রান তোলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। তাদের শুরুটা হয়েছিল খুবই ধীরগতির। রানের খাতা খুলতে ৮ বল লাগিয়ে দেন লিটন দাস। তৃতীয় ওভারে ৭ বলে ৩ রান করা মোহাম্মদ রিজওয়ানকে তুলে নেন আল আমিন। তাসকিন-আল আমিনের পেস আক্রমণের মুখে প্রথম ৩ ওভারে মাত্র ৪ রান নিতে পেরেছে কুমিল্লা! চতুর্থ ওভারে কুমিল্লা অধিনায়ক ইমরুলের ব্যাট থেকে আসে ইনিংসের প্রথম বাউন্ডারি। এই বাউন্ডারি দিয়েই যেন নিজেদের ফিরে পান কুমিল্লার ব্যাটসম্যানরা।

দ্রুতই বিধ্বংসী হয়ে ওঠেন লিটন। দেখা যেতে থাকে একের পর এক দৃষ্টিনন্দন শট। পাওয়ারপ্লেতে আসে ৩৫ রান। ঢাকা অধিনায়ক নাসির হোসেনের করা সপ্তম ওভারে থামে লিটনের ২০ বলে তিন চারে ২০ রানের ইনিংস। কুমিল্লা অধিনায়ক ইমরুল কায়েস ২২ বলে ৫ চারে ২৮ রান করে আমির হামজার বলে বোল্ড হয়ে যান। বিধ্বংসী মেজাজে ছিলেন জনসন চার্লস। এই ক্যারিবিয়ানের ২৫ বলে ৩২ রানের ইনিংস থামে রান আউটে। ১৪তম ওভারে তিন অঙ্ক স্পর্শ করে কুমিল্লার স্কোর। নাসিরের বলে আমির হামজার দারুণ ক্যাচে ফেরেন মোসাদ্দেক (১১ বলে ৯)। ১৭ বলে ৩০ রান করা খুশদিলকে ফিরিয়ে প্রথম শিকার ধরেন তাসকিন। দারুণ স্টাম্পিং করেন মোহাম্মদ মিঠুন। শেষদিকে জাকের আলীর ১০ বলে ২০* রানের ক্যামিওতে কুমিল্লার সংগ্রহ দাঁড়ায় ৬ উইকেটে ১৬৪ রান। ২ উইকেট নিয়েছেন ঢাকা অধিনায়ক নাসির।

ডি- এইচএ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়