ঢাকার প্রবেশপথ বাবুবাজারে তল্লাশি: ৪ যুবক আটক

আগের সংবাদ

সকালের নিউজ ফ্ল্যাশ

পরের সংবাদ

রাজধানীর সড়কে সড়কে আওয়ামী লীগের নিয়ন্ত্রণ

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১০, ২০২২ , ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১০, ২০২২ , ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ

কেন্দ্রের নির্দেশনা অনুযায়ী বিএনপির নাশকতা মোকাবিলায় প্রস্তুত ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ। সংগঠনটির উত্তর ও দক্ষিণ শাখার নেতাকর্মীরা প্রতিটি পাড়া-মহল্লা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও অলিগলিতে সতর্ক পাহারা দিচ্ছেন। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত অবস্থান, খণ্ড খণ্ড মিছিল ও মোটরসাইকেল শোডাউন দিয়ে নিজেদের দখলে রেখেছেন ঢাকার স্ব স্ব এলাকা। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ছাড়াও ছাত্রলীগ, যুবলীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, যুব মহিলা লীগের নেতাকর্মীরাও সরব। বলা যায়, ঢাকার রাজপথ এখন ক্ষমতাসীনদের দখলে। এমনকি বিএনপির দলীয় কার্যালয় নয়াপল্টন এলাকা ঘিরেও সতর্ক পাহারায় দলটির নেতাকর্মীরা।

জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা পুরোদমে মাঠে নেমেছেন। তারা নিজ নিজ এলাকায় অবস্থান নিয়েছেন। সরকারদলীয় স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলররাও নিজ নিজ এলাকা নিজেদের দখলে রাখতে পেরেছেন। গতকাল শুক্রবারও একই অবস্থান দেখা গেছে।

এদিকে ঢাকা নিজেদের দখলে রাখতে গতকাল ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ পৃথক কর্মসূচি পালন করেছে। ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের প্রতিটি থানা ওয়ার্ডে বিক্ষোভ মিছিল আয়োজন করে। মহানগর ও থানা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা এসব কর্মসূচিতে অংশ নেন। রাজধানীর বাড্ডা, মিরপুর, গুলশান, বনানী, উত্তরা, খিলক্ষেত, দক্ষিণখান, রামপুরা, কাফরুল, মিরপুর, মোহাম্মদপুর, গাবতলী এলাকায় জুমার নামাজের পর বিক্ষোভ মিছিল করে। ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মোটরসাইকেল শোডাউন দেয়। এছাড়া ঢাকার প্রবেশপথ গাবতলী ও উত্তরা এলাকায় অস্থায়ী চৌকি বসিয়ে অবস্থান নিয়েছেন আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। আব্দুল্লাপুর এলাকায় ঢাকা-১৮ আসনের সংসদ সদস্য হাবিব হাসান নেতৃত্ব দেন। আর গাবতলী বাস টার্মিনাল এলাকায় অস্থায়ী মঞ্চ নির্মাণ করে অবস্থান নিতে দেখা যায় ঢাকা-১৪ আসনের সংসদ সদস্য আগা খান মিন্টু, যুব মহিলা লীগ নেত্রী সাবিনা আক্তার তুহিনসহ আওয়ামী লীগের থানা কমিটির নেতারা। তাদের অনুসারীরা এসব এলাকায় সতর্ক অবস্থান নিয়ে আছেন। আজ প্রতিটি এলাকায় সকাল থেকেই তারা অবস্থান নিয়ে থাকবেন।

অন্যদিকে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগও সতর্ক অবস্থানে আছে। নিজেদের শক্তি জানান দিতে গতকাল শুক্রবার লক্ষাধিক লোকের সমাগম ঘটিয়ে সমাবেশ করেছে সংগঠনটি। প্রতিটি থানা, ওয়ার্ডের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে সমাবেশে অংশ নেন। রাজধানীর মহানগর নাট্যমঞ্চে অনুষ্ঠিত সমাবেশে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ কেন্দ্রীয় ও মহানগর দক্ষিণের নেতারা অংশ নেন। সহযোগী সংগঠনের শীর্ষ নেতারাও এতে অংশ নেন। সমাবেশটি মহানগর নাট্যমঞ্চ ছাড়িয়ে বায়তুল মোকাররম, গুলিস্তান, বঙ্গবন্ধু এভিনিউ, অন্যদিকে দৈনিক বাংলা এলাকা পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে। সমাবেশ থেকে ঘোষণা দেয়া হয় আজ ভোর থেকেই প্রতিটি এলাকায় যেন সতর্ক পাহারা থাকে।

গতকাল ঢাকা দক্ষিণের বিভিন্ন এলাকায় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিছিল করেছেন। মোটরসাইকেল বহর নিয়ে অনেকেই বিএনপির নয়াপল্টন অফিসের আশপাশে মহড়া দিয়েছেন। রাজধানীর সবুজবাগে ছাত্রলীগ মিছিল করেছে। খিলগাঁও, মালিবাগ, শাহজাহানপুর, মতিঝিল, শাহবাগ, মগবাজার, রমনা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, ঢাকা কলেজ, ইডেন মহিলা কলেজ, পুরান ঢাকায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়, কবি নজরুল সরকারি কলেজ, সরকারি শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা ক্যাম্পাসের সামনে সতর্ক পাহারা দিচ্ছিলেন। এছাড়া আবুজর গিফারী কলেজ ও সিদ্ধেশরী কলেজ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরাও স্ব স্ব^ ক্যাম্পাসের প্রধান ফটকে বেঞ্চ পেতে রাত পর্যন্ত সতর্ক পাহারায় ছিলেন। আজ শনিবার বিএনপির সমাবেশের দিনেও তারা সতর্ক থাকবে।

কেএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়