কাঙ্ক্ষিত জয় পাবে আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল

আগের সংবাদ

গুজরাটে রেকর্ড জয়ে বিজেপির উল্লাস

পরের সংবাদ

মেসি-নেইমারদের অগ্নিপরীক্ষা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৯, ২০২২ , ৮:৪২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০২২ , ৮:৪২ পূর্বাহ্ণ

আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ডস ও ব্রাজিল-ক্রোয়েশিয়া ম্যাচ আজ

শিরোপা থেকে তিন ধাপ দূরে ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা। এখন অপেক্ষা কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ের। এরপর সেমিফাইনাল, তারপর ফাইনাল। ইউরোপ ও দক্ষিণ আমেরিকার বাইরে অন্য কোনো মহাদেশের দল এখন পর্যন্ত জিততে পারেনি বিশ্বকাপ। জাদুকর লিওনেল মেসির হাত ধরে এবার শিরোপা খরা কাটাতে মরিয়া আর্জেন্টিনা। অন্যদিকে ব্রাজিল সওয়ার হয়েছে নেইমারের মতো অভিজ্ঞ, রিচার্লিসন-ভিনিসিয়াস জুনিয়রদের মতো তরুণদের কাঁধে। সর্বশেষ রাশিয়া বিশ্বকাপে এই দুই দলের অভিজ্ঞতা সুখকর ছিল না। ফ্রান্সের বিপক্ষে ৪-৩ গোলে হেরেছিল মেসিরা।

নকআউট পর্বের শুরুতে জয় পেলেও পরের ধাপে বিদায় ঘণ্টা বেজেছিল ব্রাজিলেরও, বেলজিয়ামের বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরেছিল সেলেসাওরা। লাতিন আমেরিকার দুই দল আর্জেন্টিনা-ব্রাজিলের সামনে আজ বাধা হয়ে দাঁড়াতে মরিয়া ইউরোপের ক্রোয়েশিয়া ও নেদারল্যান্ডস। তাই সেমির টিকেট নিশ্চিত করতে মেসি-নেইমারদের অগ্নিপরীক্ষায় উত্তীর্ণ হতে হবে। আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ইউরোপের দুই দলকে হারাতে পারলে কাতার বিশ্বকাপে সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে লাতিন আমেরিকার দুই প্রতিনিধি আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল।

লুসাইল আইকনিক স্টেডিয়ামে কোয়ার্টার ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছে আর্জেন্টিনা ও নেদারল্যান্ডস। ১৯৭৮ বিশ্বকাপ ফাইনালের পুনরাবৃত্তি হচ্ছে এই ম্যাচ। ওই হারের প্রতিশোধ নিতে পারলে ডাচরা উঠে যাবে সেমিফাইনালে, বিদায় নিতে হবে আর্জেন্টিনাকে। এজন্য মেসিকে

ঠেকানোর যাবতীয় কলাকৌশল রপ্ত করেছে ডাচরা। রেকর্ড পাঁচ শিরোপাজয়ী ব্রাজিল সর্বশেষ শিরোপা জিতেছে ২০০২ সালে। আর্জেন্টিনা ১৯৮৬ সালে ডিয়াগো ম্যারাডোনার হাত ধরে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে। নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে কোয়ার্টার ফাইনালের লড়াইয়ে নামার আগে আলবিসেলেস্তারা শিবিরে স্বস্তির খবর। ঊরুর চোটে রাউন্ড অব সিক্সটিনের ম্যাচ না খেললেও পুনর্বাসন শেষ করে পুরোপুরি ফিট হয়ে উঠেছেন অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। ডাচদের বিপক্ষে তাকে পাচ্ছে দল। বিশ্বকাপ শুরুর পর থেকে একেবারে টাইট শিডিউল আর্জেন্টিনার। ব্যাক টু ব্যাক গ্রুপ পর্ব। এরপর রাউন্ড অব সিক্সটিন। টানা খেলার ধকলে যে ক্লান্তি ভর করেছিল গেল চারদিনের বিশ্রামে এখন দলটা আবারো ফিরেছে চাঙা মনোভাবে।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে জয় তুলে নিয়ে এখন কোয়ার্টার ফাইনালে মেসিরা। তবে সেই ম্যাচে স্পষ্টভাবেই অনুভূত হয়েছে ডি মারিয়ার অভাব। ঊরুর চোটের কারণে তিনি ছিলেন বাইরে। স্বস্তির খবর হলো রিকভারি শেষে এখন পুরোপুরি ফিট আর্জেন্টাইন উইঙ্গার। ডাচদের বিপক্ষে তিনি থাকছেন শুরুর একাদশে।

তবে শঙ্কা আছে মিডফিল্ডার পাপু গোমেজকে নিয়ে। সকারুদের বিপক্ষে অ্যাঙ্কেলে চোট পেয়ে রিপ্লেস হয়েছিলেন তিনি। সেখান থেকে এখনো পুরপুরি ফিট হয়ে ওঠেননি বলে আভাস দিয়েছেন টিম ম্যানেজমেন্ট। এছাড়া ডি পলের ইনজুরির গুঞ্জনও শোনা যাচ্ছিল। যদিও খোদ এ ফুটবলার নিজেই সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়েছেন।

ধারণা পাওয়া যাচ্ছে, নেদরল্যান্ডসের বিপক্ষে ম্যাচে দলে খুব একটা পরিবর্তন আনছেন না স্ক্যালোনি। ডিফেন্স লাইনে গেল ম্যাচে যারা শুরু করেছিলেন তারাই থাকছেন। মিডফিল্ডও থাকছে অপরিবর্তিত। পাপু গোমেজের জায়গায় খেলবেন ডি মারিয়া। এই এক পরিবর্তন নিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করার মিশনে নামবে সাবেক বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা। এ পর্যন্ত আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ডস ৯ বার মুখোমুখি হয়েছে। এর মধ্যে ডাচরা জিতেছে ৪ বার। অন্যদিকে আর্জেন্টিনা জিতেছে ৩ বার। ড্র হয়েছে ২টি ম্যাচ।

এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে আজ সেমিফাইনালের টিকেট নিশ্চিতের ম্যাচে মুখোমুখি ব্রাজিল আর ক্রোয়েশিয়া। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত নয়টায়। বিশ্বকাপে টানা অষ্টমবার কোয়ার্টার ফাইনালে খেলছে ব্রাজিল। গতবারের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়া কোয়ার্টার ফাইনালে খেলছে তৃতীয়বারের মতো।

এবার শেষ ষোলোতে নির্বিঘ্নে উঠেছে তিতের দল। ক্যামেরুনের বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরে গ্রুপ পর্ব শেষ করলেও তারা ‘জি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউটে পা রাখে। দক্ষিণ কোরিয়াকে ৪-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে ব্রাজিল উঠেছে কোয়ার্টার ফাইনালে।

অন্যদিকে জাৎকো দালিচের ক্রোয়েশিয়া মরক্কোর সঙ্গে ড্র করার পর কানাডাকে হারায়। বেলজিয়ামের সঙ্গে ড্র করায় ‘এফ’ গ্রুপের রানার্সআপ হয় ক্রোয়েশিয়া। শেষ ষোলোতে জাপানের সঙ্গে নির্ধারিত ও অতিরিক্ত সময়ে ১-১ গোলে ড্র করে তারা। পেনাল্টি শুটআউটে ৩-১ গোলে জিতে শেষ আটে পা রেখেছে লুকা মড্রিচ বাহিনী। এ নিয়ে বিশ্বকাপে তিনটি পেনাল্টি শুটআউটে অজেয় থাকল দলটি। আজ বিশ্বকাপে তৃতীয়বারের মতো মুখোমুখি হচ্ছে দুই দল। ২০০৬ ও ২০১৪ সালের বিশ্বকাপে গ্রুপ পর্বে দেখা হয়েছিল তাদের, দুটি ম্যাচই জিতেছিল ব্রাজিল।

প্রথমবার বিশ্বমঞ্চে কাকার গোলে ১-০ তে জয় পায়। আর ব্রাজিল নিজেদের মাঠে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে ৩-১ গোলে হারায় ক্রোয়াটদের, নেইমার করেন জোড়া গোল। সব মিলিয়ে চারবারের দেখায় ব্রাজিল কখনো ক্রোয়েশিয়ার কাছে হারেনি। সবশেষ ২০১৮ সালে নেইমার ও রবার্তো ফিরমিনোর দ্বিতীয়ার্ধের গোলে ২-০ তে প্রীতি ম্যাচ জিতেছিল সেলেসাওরা। পাঁচবারের চ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে ক্রোয়েশিয়া কেবল একবারই হার এড়াতে পেরেছিল। ২০০৫ সালে প্রথমবারের দেখায় ড্র করেছিল দুই দল।

কাতার বিশ্ববিদ্যালয়ের তিন নম্বর মাঠে গতকাল প্রস্তুতি নিয়েছে আর্জেন্টিনা। দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা কোয়ার্টার ফাইনালে নেদারল্যান্ডসের মুখোমুখি হওয়ার আগে অস্ট্রেলিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছে লিওনেল স্ক্যালোনির আর্জেন্টিনা।

গ্রুপ পর্বে এবার আর্জেন্টিনা ও ব্রাজিলের শুরু ও শেষ দুই রকম। সৌদি আরবের বিপক্ষে ২-১ গোলে হেরে যাত্রা শুরু করা মেসি-মার্তিনেসরা পরের দুই ম্যাচে মেক্সিকো ও পোল্যান্ডকে হারিয়ে উঠে আসে নকআউট পর্বে। অন্যদিকে সার্বিয়া ও সুইজারল্যান্ডকে হারানোর পর আফ্রিকার দল ক্যামেরুনের কাছে ১-০ গোলে হেরে যায় ব্রাজিল। অবশ্য ওই ম্যাচে বেঞ্চের শক্তি পরীক্ষা করেছিলেন সেলেসাও কোচ তিতে। শেষ ষোলোতে দক্ষিণ কোরিয়ার জালে প্রথমার্ধেই পরপর চারবার বল পাঠিয়েছে ব্রাজিল। গোল করার পর তারা উদযাপনে মাতেন দেশটির সংস্কৃতির সঙ্গে জড়িত ‘সাম্বা’ নাচ দিয়ে। এই নাচই পছন্দ হয়নি সাবেক আয়ারল্যান্ডের লিজেন্ড ফুটবলার রয় কিনের। সমালোচনা করেছেন অ্যাথলেট অ্যালেক্সি লালাসও। বিষয়টি পছন্দ হয়নি সেলেসাও কোচ তিতের।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়