শনিবার ১১টায় বিএনপির সমাবেশ শুরু

আগের সংবাদ

সবখানেই যেন টাকাওয়ালাদের জয়জয়কার

পরের সংবাদ

আদালতে ফখরুল-আব্বাস

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৯, ২০২২ , ৪:৫০ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৯, ২০২২ , ৪:৫১ অপরাহ্ণ

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে গ্রেপ্তার দেখানোর পর আদালতে হাজির করা হয়েছে।

শুক্রবার (৯ ডিসেম্বর) বিকেল ৩ টা ১০ মিনিটের দিকে ঢাকা চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের হাজির করা হয়। এরপর তাদের আদালতের হাজতখানায় নেয়া হয়। এদিকে মির্জা ফখরুলের স্ত্রী ও মেয়েকে আদালতে হাজির হতে দেখা গেছে।

অন্যদিকে মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাসকে আদালতে হাজির করার খবর শুনে শত শত বিএনপিপন্থী আইনজীবী আদালত চত্ত্বরে মিছিল দিচ্ছেন। তাদের মুক্তির দাবিতে মিছিল ও স্লোগান দিচ্ছেন। এসময় পুলিশ ও আনসারদের বাড়তি মোতায়েন করা হয়েছে। কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা করা হয়েছে।

এরআগে মির্জা ফখরুল ও মির্জা আব্বাসকে গ্রেপ্তারের বিষয়ে এদিন দুপুর সোয়া ২টার দিকে মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের ডিবি প্রধান মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেছেন, আমরা মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে এসেছিলাম। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবারের ঘটনায় তাদের নির্দেশদাতা হিসেবে গ্রেপ্তার করেছি।

তিনি বলেন, পুলিশের উপর একটি বর্বরোচিত হামলা হয়েছে। ককটেল নিক্ষেপ করেছে এবং জানমালের ক্ষতি করেছে। সেই পরিপ্রেক্ষিতে তাদের অপরাধটা হচ্ছে আসলে, এই অপরাধসমূহের উসকানিদাতা, পরিকল্পনাকারী ও নির্দেশদাতা হিসেবে।

এরআগে গত বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) দিনগত রাতে তাদের তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলে বিএনপির মিডিয়া সেলের সদস্য শায়রুল কবির খান জানান। তিনি বলেন, রাত ৩টার পরে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে তার উত্তরার বাসা থেকে এবং ৩টা ২০ মিনিটে স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসকে তার শাহজাহানপুরের বাসা থেকে গোয়েন্দা পুলিশ তুলে নিয়ে যায়।

বিএনপির আর কোনো কেন্দ্রীয় নেতা নজরদারিতে রয়েছে কি না জানতে চাইলে ডিবিপ্রধান বলেন, আমরা সবকিছু খেয়াল রাখছি। কেউ যদি আরও এমন অপরাধ করে তারা আমাদের নজরদারিতে থাকবে এবং তাদের বিষয়েও আমরা ব্যবস্থা নেবো।

তারও আগে গত বুধবার বিকেলে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ হয় বিএনপি নেতাকর্মীদের। সেখানে নিহত হন মকবুল নামে বিএনপির এক কর্মী। আহত হন অন্তত ২০ জন। এ ঘটনার পর গ্রেপ্তার করা হয় প্রায় ৪০০ নেতাকর্মীকে। তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয় বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়