টাইম ম্যাগাজিনের ‘বর্ষসেরা ব্যক্তি’ জেলেনস্কি

আগের সংবাদ

সকালের নিউজ ফ্ল্যাশ

পরের সংবাদ

অরবিন্দ কেজরিওয়াল সম্মানের লড়াই

দিল্লির ‘দিল’ থেকে মুছে গেল কংগ্রেস

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৮, ২০২২ , ১১:২৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৮, ২০২২ , ১১:২৮ পূর্বাহ্ণ

ভারতের রাজধানী দিল্লির ‘দিল’ থেকে মুছে যাচ্ছে কংগ্রেসের নাম। রবিবার (৪ ডিসেম্বর) দিল্লির পৌরসভা ভোটের চিত্র থেকেই তেমনটাই ইঙ্গিত মিলছে। অথচ এক দশক আগেও ভারতের রাজধানীতে ক্ষমতায় ছিল কংগ্রেস। কিন্তু এখন শোচনীয় অবস্থা। তবে ভারতের রাজধানী দিল্লি পৌরসভার নির্বাচনে ব্যাপক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে আম আদমি পার্টি (আপ)। অরবিন্দ কেজরিওয়াল সম্মানের লড়াই উতরে তো গেলেনই, দিল্লিতে আপের মুঠো আরো শক্ত করে ফেললেন।

ভারতীয় প্রভাবশালী গণমাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, দিল্লি পৌরসভার ২৫০টি ওয়ার্ডের মধ্যে কংগ্রেস পেয়েছে মাত্র ৯টি। ৫ বছর আগে এই ভোটে কংগ্রেস প্রায় ২১ শতাংশ ভোট পেয়েছিল। এ বার তা ১১ শতাংশের ঘরে নেমে এসেছে। এমনকি পুরোনো দিল্লির যেসব মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় কংগ্রেস বরাবর জিতে এসেছে, সেখানেও এবার হেরেছে দলটি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, কংগ্রেস নেতাদের একাংশ অবশ্য দিল্লি পৌরসভায় বিজেপিকে হারিয়ে আপের জয়কে ‘লেসার ইভল’-এর জয় হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করেছেন। অন্য পক্ষের যুক্তি হলো, পুরো বিজেপিবিরোধী ভোটই আম আদমি পার্টির কাছে চলে গেছে। আর তাই আপের দপ্তরে যখন জয়ের উৎসব চলেছে, তখন ঠিক বিপরীতে দিল্লির প্রদেশ কংগ্রেস দপ্তর ফাঁকা পড়ে থেকেছে।

এদিকে, দিল্লি পৌরসভায় হারের পরে কংগ্রেসের একমাত্র আশা গুজরাট ও হিমাচল প্রদেশের ভোটের ফল। কংগ্রেস নেতাদের আশঙ্কা হিমাচলেও জিততে না পারলে তাদের কর্মীদের মনোবল ফের ভেঙে পড়বে। রাহুলের ‘ভারত জোড়ো যাত্রা’-ও ধাক্কা খাবে। তবে রাহুল-ঘনিষ্ঠ কংগ্রেস নেতা মাণিকম টেগোর যুক্তি দিয়েছেন, আপের থেকে বিজেপিবিরোধী ভোট ফের কংগ্রেসের কাছে ফিরছে। তার প্রমাণ হলো, ২০২০ সালের বিধানসভা ভোটের তুলনায় আপের ভোট কমেছে। বিজেপির ভোট একই থাকলেও কংগ্রেসের ভোট বিধানসভা নির্বাচনে পাওয়া ৪.৩% থেকে বেড়ে ১১.৬% হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২৫০ আসনের মধ্যে আপ জিতেছে ১৩৪টি আসন। ২০১৭ সালের তুলনায় ৮৬টি বেশি। দেশটির নির্বাচন কমিশনের ওয়েবসাইট বলছে, কেজরিওয়ালের আম আদমি পার্টি এ বছর পেয়েছে ৪২ দশমিক ২ শতাংশ ভোট। ২০১৭ সালের পৌর নির্বাচনে আপ ভোট পেয়েছিল ২৬ দশমিক ২৩ শতাংশ। যদিও শতাংশের বিচারে ভোট বেড়েছে বিজেপিরও। তারা পেয়েছে ৩৯.১২ শতাংশ ভোট, যা ২০১৭ সালে ছিল ৩৬.০৮ শতাংশ। ২০১৭ সালের তুলনায় ভোট বাড়লেও, বিজেপির জেতা ওয়ার্ড ১৮২ থেকে নেমেছে ১০৪ এ। কংগ্রেস পেয়েছে ১১.৬৪ শতাংশ ভোট। গতবার ভোট পেয়েছিল ২১.০৯ শতাংশ। কংগ্রেসের ওয়ার্ড ছিল ৩০। এবার তা ৯-এ নেমেছে। এছাড়া দিল্লিতে বিজেপির টানা দেড় দশকের পৌর-শাসনকালের সমাপ্তি ঘটল সেই সাথে। বিধানসভার মতো দিল্লি পৌরসভাতেও শুরু হচ্ছে ঝাড়ু-রাজ। ওয়ার্ড সংখ্যার বিচারে গতবারের ভোটে আপের প্রাপ্তি ছিল ৪৮ (২৭০ আসনে ভোট হয়েছিল)।

কেএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়