বিশ্বের ১০০ প্রভাবশালী নারীর তালিকায় প্রিয়াঙ্কা

আগের সংবাদ

দিল্লির ‘দিল’ থেকে মুছে গেল কংগ্রেস

পরের সংবাদ

টাইম ম্যাগাজিনের ‘বর্ষসেরা ব্যক্তি’ জেলেনস্কি

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৮, ২০২২ , ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৮, ২০২২ , ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ

‘বর্ষসেরা বৈশ্বিক ব্যক্তি-২০২২’ হিসেবে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির নাম ঘোষণা করেছে টাইম ম্যাগাজিন। বুধবারের (৭ ডিসেম্বর) এই ঘোষণার পাশপাশি জেলেনস্কিকে ‘ইউক্রেনের মনোবল’ (দ্য স্পিরিট অব ইউক্রেন) উপাধিতেও ভূষিত করেছে টাইমস।

ইউক্রেনে রুশ বাহিনীর হামলা ও তার ফলে দেশটির অনিশ্চিত পরিণতির দিকে এগিয়ে যাওয়া সত্ত্বেও ভলোদিমির জেলেনস্কি যেভাবে তার দেশ ও জাতিকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন, তাতে চলতি বছরের সেরা ব্যক্তিত্ব বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে ‘কোনো বেগ পেতে হয়নি’ বলে এক বার্তায় জানিয়েছেন টাইম সাময়িকীর শীর্ষ সম্পাদক এডওয়ার্ড ফেলসেন্থাল। চলমান যুদ্ধের মধ্যে জেলেনস্কির কিয়েভে থাকার সিদ্ধান্তকে ‘সৌভাগ্যজনক’ বলেও অভিহিত করেন তিনি। খবর বিবিসির।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে রুশ বাহিনী বিশেষ সামরিক অভিযান শুরুর পর সামনে থেকে দেশের নেতৃত্ব দিচ্ছেন ভলোদিমির জেলেনস্কি, সেই সঙ্গে প্রায় প্রতিদিনই দিচ্ছেন ভিডিওবার্তা। এসব ভিডিওবার্তায় তিনি কেবল নিজ দেশের জনগণই নয়, বরং বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে থাকা মানুষ ও বিভিন্ন দেশের সরকারের উদ্দেশেও কথা বলেছেন।

জেলেনস্কি সম্পর্কিত এক বার্তায় এডওয়ার্ড ফেলসেন্থাল আরও লেখেন, ‘বছরজুড়েই আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে তার বক্তব্যের প্রভাব পরিলক্ষিত হয়েছে। রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের আগ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক রাজনীতি নিয়ে সাধারণ মানুষের যেসব ধারণা ছিল, যুদ্ধ শুরুর পর তাতে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে।’

‘এই যুদ্ধ কোথায় গিয়ে শেষ হবে, আমরা কেউ যেমন জানি না, তেমনি যুদ্ধে ইউক্রেন জয়ী হতে পারবে কিনা— তাও এখন পর্যন্ত অনিশ্চিত। কিন্তু জেলেনস্কি আন্তর্জাতিক রাজনীতিকে যেভাবে আমাদের সামনে তুলে ধরেছেন, এ পর্যন্ত আর কেউ তা সেভাবে পারেননি।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতোমধ্যে টাইমস সাময়িকীর এই স্বীকৃতি শেয়ার করেছেন ভলোদিমির জেলেনস্কি। সেই সঙ্গে বলেছেন, ইউক্রেনের প্রকৃত মনোবল বা ‘স্পিরিট অব ইউক্রেন’ আসলে ইউক্রেনের জনগণ, তিনি নন।

এসএম

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়