১০ ডিসেম্বরের গণসমাবেশ কেউ রুখতে পারবে না

আগের সংবাদ

রাজনৈতিক উদ্দেশে কাউকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না

পরের সংবাদ

ঢাবিতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনবিষয়ক সভা

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ৫, ২০২২ , ৭:০১ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ৫, ২০২২ , ৭:০১ অপরাহ্ণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ অডিটোরিয়াম হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং শিক্ষার্থীবৃন্দের সঙ্গে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইন বিষয়ক একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (৫ ডিসেম্বর) সকালে এ সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর(শিক্ষা) অধ্যাপক ড. এ এস এম মাকসুদ কামাল, বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন মার্কেটিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান , মূখ্য আলোচক হিসেবে ছিলেন জাতীয় ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব ) জনাব এ.এইচ.এম. সফিকুজ্জামান এবং সভাপতি হিসেবে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগের চেয়ারম্যান অধ‍্যাপক ড. এবিএম শহিদুল ইসলাম। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন অধিদপ্তরের পরিচালক জনাব মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার, প্রধান কার্যালয়ের উপপরিচালকবৃন্দ ও সহকারী পরিচালকবৃন্দ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ।

অধিদপ্তরের পরিচালক জনাব মনজুর মোহাম্মদ শাহরিয়ার এর স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে সেমিনারের কার্যক্রম শুরু হয়।

সেমিনারে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইনের বিভিন্ন দিক বিশেষ করে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের নিজের অধিকার সম্পর্কে সচেতন হওয়ার বিষয়ে আলোচনা করা হয়। ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইনটি ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণে কিভাবে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে সে বিষয়ে একটি প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করা হয় এবং ডকুমেন্টারি প্রদর্শন করা হয়।

সেমিনারে প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি এবং সভাপতি ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দিকের বিশ্লেষণধর্মী বক্তব্য প্রদান করেন।

আলোচনায় মহাপরিচালক বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যান্টিন এবং ডাইনিং এ সাধারণ তদারকির বিষয় তুলে ধরেন। পরে মহাপরিচালক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে একটি MOU করার প্রস্তাব করলে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে প্রো-ভিসি মহোদয় বিষয়টিতে সম্মত হন এবং একসাথে কাজ করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

মহাপরিচালক উপস্থিত শিক্ষার্থীবৃন্দকে ভোক্তা-অধিকার সম্পর্কে সচেতন করার লক্ষ্যে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণ আইনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন এবং গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা প্রদান করেন।

পরবর্তীতে মুক্ত আলোচনায় মহাপরিচালক অংশগ্রহণকারীবৃন্দের ভোক্তা -অধিকার আইন সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন।

পরে উপস্থিত শিক্ষার্থীদের মধ্যে কুইজ প্রতিযোগিতার আয়োজন করে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

আলোচনা শেষে মহাপরিচালক শিক্ষার্থীবৃন্দকে ভোক্তা-অধিকার সম্পর্কে সচেতন হয়ে ভোক্তা-অধিকার সংরক্ষণে সকলে সমন্বিতভাবে যেন কাজ করে এই আশাবাদ ব‍্যক্ত করেন।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়