আমদানি-রপ্তানির অন্তরালে অর্থ পাচার

আগের সংবাদ

৩ মাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স এলো নভেম্বরে

পরের সংবাদ

‘ব্যান্ড মিউজিক ডে’র উদ্বোধনীতে খালিদ

শিল্পীদের সৃষ্টিকর্মের মেধাস্বত্ব সংরক্ষণের আহ্বান

প্রকাশিত: ডিসেম্বর ১, ২০২২ , ৯:৪১ অপরাহ্ণ আপডেট: ডিসেম্বর ১, ২০২২ , ৯:৪১ অপরাহ্ণ

শিল্পীরাই জাতির জ্ঞান, সৃজনশীলতা ও বুদ্ধিবৃত্তিক সম্পদের আধার। তাদের সৃষ্টিকর্মের যথাযথ মূল্যায়ন এবং নিজেদের ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের স্বার্থে কপিরাইট অফিসের মাধ্যমে সংরক্ষণ করা জরুরি। শিল্পীদেরকে মূল্যবান এ সৃষ্টিকর্মের মেধাসত্ব সংরক্ষণ করার আহবান জানাই।

বৃহস্পতিবার (১ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর তেজগাঁওয়ে চ্যানেল আই অফিস প্রাঙ্গণে ‘বামবা-চ্যানেল আই ব্যান্ড মিউজিক ফেস্ট ২০২২’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ আহ্বান জানান সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন চ্যানেল আইয়ের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফরিদুর রেজা সাগর, গান বাংলা টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কৌশিক হোসেন তাপস, বাংলাদেশ মিউজিক্যাল ব্যান্ড অ্যাসোসিয়েশনের (বামবা) প্রেসিডেন্ট হামিন আহমেদ ও ব্যান্ড আইকন প্রয়াত আইয়ুব বাচ্চুর স্ত্রী ফেরদৌস আক্তার চন্দনা। স্বাগত বক্তব্য দেন ‘বামবা-চ্যানেল আই ব্যান্ড মিউজিক ফেস্ট ২০২২’ পাওয়ার্ড বাই গান বাংলা- এর প্রকল্প পরিচালক ইজাজ খান স্বপন। শুরুতে আইয়ুব বাচ্চু স্মরণে গাওয়া হয়, ‘সেই তুমি’। গান শেষে লাল সবুজ বেলুন উড়িয়ে ব্যান্ড ফেস্টের উদ্বোধন করা হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সংশোধিত কপিরাইট আইনকে যুগোপযোগী করে প্রণয়ন করা হচ্ছে, যা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। আগামী সংসদ অধিবেশনে এটি উত্থাপন করা হবে বলে আশা রাখি। বর্তমান সরকার শিল্পী-সাহিত্যিক-সংস্কৃতিকর্মীদের বিষয়ে অত্যন্ত আন্তরিক।

তিনি বলেন, কপিরাইট অফিসের মাধ্যমে ব্যান্ড আইকন আইয়ুব বাচ্চুর সৃজনকর্ম সংরক্ষণপূর্বক রয়্যালটি প্রাপ্তি নিশ্চিত করা হয়েছে। একইভাবে গত মাসে বাউল সম্রাট শাহ আবদুল করিমের সৃষ্টিকর্ম সংরক্ষণপূর্বক রয়্যালটি বাবদ ১০ হাজার ডলার তার পুত্র শাহ নূর জালালের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সংগীতের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ শাখা হলো ব্যান্ড সংগীত। এর মাধ্যমে তরুণ ও যুবসমাজকে সহজে উদ্বুদ্ধ ও অণুপ্রাণিত করা সম্ভব।

প্রতিমন্ত্রী এ সময় বামবা ও চ্যানেল আইসহ আয়োজক কর্তৃপক্ষকে আগামীতে প্রতি জেলায় এ ধরনের ব্যান্ড সংগীত উৎসব আয়োজনের আহ্বান জানান এবং সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পৃষ্ঠপোষকতার আশ্বাস দেন।

ফরিদুর রেজা সাগর বলেন, আগামীতে এই স্বপ্ন আরও বড় হবে, বিশাল হবে। স্বপ্ন পূরণ হবে। অনেক মানুষ যারা ব্যান্ড সংগীত শুনতে ভালোবাসেন, সেই তরুণরা সবসময় তাদের বিনোদনের প্ল্যাটফর্ম খুঁজে পাবে।

হামিন আহমেদ বলেন, আজ আইয়ুব বাচ্চু নেই, তার স্মৃতি আছে। এই মানুষটির যে স্বপ্নটি ছিল, সেই স্বপ্নে হাতে হাত দিয়ে চ্যানেল আই এই প্রাঙ্গণ থেকে ব্যান্ড মিউজিক ডে-এর আয়োজন শুরু হয়। সেই যাত্রার শুরু থেকে যারা তার সঙ্গে ছিলেন তাদের অভিনন্দন জানাতে চাই। তার স্বপ্নটিকে আরও বৃহৎ পরিসরে আমরা নিয়ে যেতে চলেছি শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) আর্মি স্টেডিয়ামে।

এখন থেকে প্রতি বছর বিজয়ের মাস ডিসেম্বরের ১ তারিখে দেশজুড়ে পালিত হবে ‘ব্যান্ড মিউজিক ডে’। ডিসেম্বরের প্রথম শুক্রবার অনুষ্ঠিত হবে ‘বামবা চ্যানেল আই ব্যান্ড মিউজিক কনসার্ট’। এর অংশ হিসেবে শুক্রবার (২ ডিসেম্বর) ঢাকার আর্মি স্টেডিয়ামে দেশের ১৬টি ব্যান্ড নিয়ে কনসার্ট অনুষ্ঠিত হবে।

কনসার্টে যেসব ব্যান্ড থাকছে- নগর বাউল, মাইলস, ওয়ারফেইজ, সোলস, রেনেসাঁ, ফিডব্যাক, অর্থহীন, মাকসুদ ও ঢাকা, অবসকিউর, দলছুট, আর্টসেল, শিরোনামহীন, ভাইকিংস, ক্রিপটিকফেইট, পেন্টাগন ও পাওয়ারসার্জ। এটিকে বলা হচ্ছে দেশের ইতিহাসে অন্যতম বড় কনসার্ট। কনসার্টের প্রবেশমূল্য ধরা হয়েছে ৫০০ টাকা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়