নুহাশের সিনেমার প্রযোজক ২ অস্কারজয়ী

আগের সংবাদ

ভারতে করোনায় ন্যাস্যাল ভ্যাকসিন অনুমোদন

পরের সংবাদ

গৌরীপুরে বাবা-ছেলে এসএসসি পাস!

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৯, ২০২২ , ১:২৭ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ৩০, ২০২২ , ৪:১৫ অপরাহ্ণ

লেখাপড়া করার কোন বয়স নেই, তারই প্রমাণ রাখলেন ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ২ নং গৌরীপুর ইউনিয়নের সাবেক ইউপি সদস্য এখলাছ উদ্দিন নয়ন ও ছেলে রাকিবুল হাছান। তারা একসঙ্গে এসএসসি পরীক্ষার ফলাফলে বাবা ও ছেলে পাস করেছেন। ফলাফলে বাবা জিপিএ-৫ পেলেও, ছেলে পেয়েছেন ৪.৮৬।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফলাফলে একই সঙ্গে বাবা ও ছেলে পাস করায় পরিবার ও এলাকায় আনন্দের বন্যা বইছে। এখলাছ উদ্দিন নয়ন ও ছেলে রাকিবুল হাছান ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ২ নং গৌরীপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা। এখলাছ উদ্দিন নয়ন উপজেলার ২ নং গৌরীপুর উপজেলার ২ নং গৌরীপুর ইউনিয়নের বায়ড়াউড়া গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে। তিনি এখলাছ উদ্দিন নয়ন গৌরীপুর উপজেলার শারীরিক প্রতিবন্ধী সমিতির সাধারণ সম্পাদক।

তিনি জানান, তিনি দুই সন্তানের জনক। তার বড় মেয়ে আঁখি আক্তার গৌরীপুর মহিলা ডিগ্রি কলেজ থেকে স্নাতক (অনার্স) সমাজ কর্ম বিভাগে দ্বিতীয় বর্ষে অধ্যয়নরত। তার স্ত্রী সমলা বেগমের উৎসাহে ও ইচ্ছার কারণে আবারও খাতা কলম নিয়ে বিদ্যালয়ে ছুটে যান।

এখলাছ উদ্দিন নয়ন বায়ড়াউড়া সরকরি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করেন পরে গৌরীপুর আর কে সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় থেকে এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন ১৯৯৬ সালে। কিন্তু শারীরিক সমস্যার কারণে তিনি আর পরীক্ষা দিতে পারেনি। এবার বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে নেত্রকোনা জেলার মগরুল আদর্শ কারিগরি ইন্সটিটিউড থেকে পরীক্ষা দেন।

তার ছেলে রাকিবুল হাছান রায়হান একই বোর্ডের অধীনে গৌরীপুর সরকারি টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ থেকে বিভাগের নিয়মিত ছাত্র হিসাবে পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ করে জিপিএ ৪.৫৮ পেয়ে এসএসসি পাস করেন।

পিতা-পুত্রের এ বিজয় অর্জনে তাদের তাৎক্ষনিকভাবে শুভেচ্ছা জানান ময়মনসিংহ-৩ গৌরীপুর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ। তিনি বলেন, ৪১ বছর বয়সে এসে এখলাছ উদ্দিন নয়ন জিপিএ-৫ পেয়ে সবাইকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। এতে আমরা আানন্দিত।

এ খবরে উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন গৌরীপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হাছান মারুফ। তিনি বলেন, খবরটি শুনে ভালোই লেগেছে। শিক্ষার কোন বয়স নাই, শিক্ষা প্রতিটি মানুষের মৌলিক অধিকার। অদম্য এই বাবাকে দেখে সাধারণ মানুষ লেখাপড়ার প্রতি আরও আগ্রহ প্রকাশ করবে।

কেএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়