জঙ্গি ছিনতাই: আত্মসমর্পণের পর আসামি ঈদী রিমান্ডে

আগের সংবাদ

রাতের নিউজ ফ্লাশ

পরের সংবাদ

ঢাবি আন্তঃবিভাগ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট

জয় দিয়ে সাংবাদিকতা বিভাগের দুর্দান্ত সূচনা

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৭, ২০২২ , ৭:৩৫ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৭, ২০২২ , ৯:৩০ অপরাহ্ণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আন্তঃবিভাগ (ছাত্র) ক্রিকেট প্রতিযোগিতা ২০২২-এ ছয় উইকেট ও আট বল হাতে রেখে যোগাযোগ বৈকল্য বিভাগের বিপক্ষে এক দুর্দান্ত জয় দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছে গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ।

রবিবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী খেলায় এই জয় পায় সাংবাদিকতা বিভাগ।

শুরুতে টস জিতে বোলিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন সাংবাদিকতা বিভাগের অধিনায়ক মো. ইয়াসিন হাসান সাকিল। ব্যাটিং-এ নেমে যোগাযোগ বৈকল্য বিভাগ নির্ধারিত ১০ ওভারে পাঁচ উইকেটে ৮৯ রান করতে সক্ষম হয়। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৯ রান করেন ফরিদ।

ছবি: ভোরের কাগজ

৯০ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে দ্বিতীয় ওভারে উইকেট হারালে কিছুটা চাপে পড়লেও পরবর্তী সময়ে অধিনায়ক সাকিলের ১০ বলের ২৫ রানের ঝড়ো ইনিংস এবং উইকেট রক্ষক ব্যাটসম্যান সালমানের ২৫ রানে ওপর ভর করে চার উইকেট হারিয়ে জয়ের দারপ্রান্তে পৌঁছে যায় সাংবাদিকতা বিভাগ৷ এছাড়াও দলের পক্ষে ২১ রান করেন মনিরুল ইসলাম সৈকত। দলের পক্ষে দুটি উইকেট সংগ্রহ করেন আবির।

এর আগে সকাল ১০টায় টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) ও বর্তমানে উপাচার্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত অধ্যাপক ড এ এস এম মাকসুদ কামাল।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক ড এ এস এম মাকসুদ কামাল বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় দেহ ও মন গঠন করার গুরুত্বপূর্ণ একটি জায়গা। ক্যাম্পাস জীবনে এই সুবিধাটা যদি শিক্ষার্থীরা গ্রহণ করতে না পারে তবে পরবর্তী জীবনে ক্ষতিগ্রস্ত হবে শিক্ষার্থীরাই। সুতরাং এ দিকটাতে তাদের নজর দিতে হবে। শিক্ষা জীবন শেষে শিক্ষার্থীরা কর্মজীবন ও পারিবারিক জীবনে পদার্পণ করবে। সেসময় যদি মানসিক ও শারীরিক স্পিরিট থাকে তবে ভালো করবে এটা নিশ্চিত।

এসময় শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সুস্থ দেহে সুস্থ মন বাস করে। মন ভালো থাকলে সবকিছুই ভালো থাকবে। আবার মন খারাপ থাকলে খেলাধুলা, লেখাপড়া, খাওয়া-দাওয়াসহ সবকিছুই পানসে মনে হয়। এই মন ভালো রাখতে হলে শারীরিক ব্যায়ামসহ সহশিক্ষা কার্যক্রমগুলো নিয়মিতভাবে করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

সভাপতির বক্তব্যে ঢাবি ক্রিকেট কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বলেন, খেলাধুলা যেমন মানসিক ও শারীরিক বিকাশ ঘটাবে সেই সঙ্গে একটি ভালো মানুষ হিসেবে, অপরের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে চলার পথে পাথেয় হিসেবে কাজ করবে। আমরা খেলাধুলাকে প্রতিযোগিতা হিসেবে নিবো এবং সেটা হবে সৌহার্দপূর্ণ।

অনুষ্ঠানে এসময় অন্যান্যের মতো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. নিজামুল হক ভূঁইয়া, বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. আব্দুস সামাদ, জগন্নাথ হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মিহির লাল সাহা, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক আমিনা খাতুন, যোগাযোগ বৈকল্য বিভাগের চেয়ারপার্সন সহকারী অধ্যাপক তাওহিদা জাহান, শারীরিক শিক্ষা কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মো. শাহজাহান আলী, উপ-পরিচালক মো. শাহাদাত হোসাইনসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়