×
Icon এইমাত্র
কমপ্লিট শাটডাউন কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কোটা আন্দোলনকারীরা বাংলাদেশ টেলিভিশনের মূল ভবনে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। বিটিভির সম্প্রচার বন্ধ। কোটা সংস্কার আন্দোলনে সারা দেশে এখন পর্যন্ত ১৯ জন নিহত কোটা ইস্যুতে আপিল বিভাগে শুনানি রবিবার: চেম্বার আদালতের আদেশ ছাত্রলীগের ওয়েবসাইট হ্যাক ‘লাশ-রক্ত মাড়িয়ে’ সংলাপে বসতে রাজি নন আন্দোলনকারীরা

খেলা

ব্রাজিলের জয়ের নায়ক

Icon

কাগজ প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৬ নভেম্বর ২০২২, ১১:১৫ এএম

ব্রাজিলের জয়ের নায়ক

ছবি: সংগৃহীত

ব্রাজিলের জয়ের নায়ক

ছবি: সংগৃহীত

কাতারের লুসাইল স্টেডিয়ামে সার্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছে রেকর্ড পাঁচবারের চ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। এ ম্যাচে দলের হয়ে জোড়া গোল করেন রিচার্লিসন। অসাধারণ পারফরমেন্সে ম্যাচসেরার পুরস্কারও উঠে তার হাতে।

দরিদ্র পরিবারের জন্মগ্রহণ করেন রিচার্লিসন। মা-বাবার পাঁচ সন্তানের মধ্যে সবার ছোট তিনি। তার বাবা ছিলেন দৈনিক মজুরির বিনিময়ে কাজ করা একজন রাজমিস্ত্রি। মা রাস্তায় রাস্তায় ঘুরে বিক্রি করতেন আইসক্রিম। জন্মস্থান ব্রাজিলের এসপিরিতো সান্তো প্রদেশের নোভা ভেনিসিয়া শহরে। এই শহরটি মাদক ব্যবসায়ীদের স্বর্গরাজ্য হিসেবে পরিচিত। যেখানে আকাশে-বাতাসে উড়ে বেড়ায় কালো টাকা। এমন প্রতিকূল জায়গা থেকে উঠে আসা রিচার্লিসন হন ব্রাজিলের জয়ের নায়ক।

সে ম্যাচে গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর ৬২তম মিনিটে দলকে এগিয়ে নেন তিনি। ভিনিসিয়াস জুনিয়রের শট সার্ভিয়ার গোলরক্ষক ঝাঁপিয়ে ফেরালেও রাখতে পারেননি নিয়ন্ত্রণে। ছয় গজ বক্সের মুখে বল পেয়েই ডান পায়ের শটে বাকি কাজ সারেন রিচার্লিসন। ৭৩তম মিনিটে চোখধাঁধানো গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন তিনি। বাঁ দিক থেকে সাইড ফুট ক্রস বাড়ান ভিনিসিয়াস, আর বাঁ পায়ের টোকায় বল উপরে তুলে শরীরটকে শূন্যে ভাসিয়ে দুর্দান্ত ওভারহেড কিকে ঠিকানা খুঁজে নেন টটেনহ্যাম হটস্পার ফরোয়ার্ড।

ব্রাজিলের হয়ে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সবশেষ সাত ম্যাচে রিচার্লিসনের গোল হলো ৮টি। ২০১৪ সালে নেইমারের পর প্রথম ব্রাজিলিয়ান খেলোয়াড় হিসেবে বিশ্বকাপের ম্যাচে জোড়া গোল করেন তিনি।

সার্বিয়া বিপক্ষে ম্যাচের পর প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে টটেনহ্যাম হটস্পারের এই খেলোয়াড় বলেন, ‘আমাদের প্রফেসর তিতে যেমনটা বলে থাকেন, তুমি গোলের ঘ্রাণ পাচ্ছো এবং তাই ঘটছে। এটি একটি দুর্দান্ত রাত ছিল, একটি সুন্দর জয় এবং লক্ষ্যে পৌঁছাতে আমাদের হাতে ছয়টি ম্যাচ আছে।’

বিশ্বকাপ অভিষেক ম্যাচে রং ছড়িয়ে সেলেসাও সমর্থকদের মন জয় করে নিয়েছেন ২৫ বছর বয়সি এই ফরোয়ার্ড। ম্যাচ শেষে সব উচ্ছ্বাস তাকে ঘিরে। লুসাইল স্টেডিয়ামের বাইরেও সে উচ্ছ্বাসের ঢেউ আছড়ে পড়ে ‘রিচার্সিলন, রিচার্লিসন’ শ্লোগানে। সমর্থকদের কাছ থেকে তো এই ভালোবাসাটুকুই পেতে চেয়েছিলেন তিনি। ৯ নম্বর জার্সিতে রিচার্লিসন এখন ব্রাজিল সমর্থকদের নয়নমণি। তার প্রমাণ মেলে অল্প বয়সি এক ব্রাজিলিয়ান এক সমর্থকের বক্তব্যে, ‘ভীষণ খুশি (দলের জয়ে)। ব্রাজিলই এবার চ্যাম্পিয়ন। রিচার্লিসন, রিচার্লিসন।’

সাবস্ক্রাইব ও অনুসরণ করুন

সম্পাদক : শ্যামল দত্ত

প্রকাশক : সাবের হোসেন চৌধুরী

অনুসরণ করুন

BK Family App