প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামের উন্নয়নে আরো কিছু ঘোষণা দিতে পারেন

আগের সংবাদ

ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন: উজ্জীবিত ও মুখরিত কাশিয়ানী আ.লীগ

পরের সংবাদ

এনআইডির তথ্যে হবে পাসপোর্ট সংশোধন

প্রকাশিত: নভেম্বর ২৪, ২০২২ , ১১:২৬ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২৪, ২০২২ , ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ

ইউরোপে বৈধতা পাবেন অনেক প্রবাসী

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুর উপজেলার গোহালা গ্রামের রাজ্জাক গাজীর ছেলে রাসেল গাজী। নিজের ও পরিবারের ভাগ্য বদলাতে ইতালি যাবেন বলে মনস্থির করেন। দালালের কথা মতো নিজের আসল নাম, ঠিকানা ও পরিচয় গোপন করে পাসপোর্ট বানান। পরে দুচোখ জোড়া স্বপ্ন নিয়ে ২০১৩ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি সাগর পথে ট্রলারে করে রওনা হন রাসেল গাজী। নানা ঘাত-প্রতিঘাত পেরিয়ে, অনাহারে-অর্ধাহারে থেকে দালালদের অত্যাচার সহ্য করে পাড়ি জমান ইতালিতে। কিন্তু স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছেই ফের পড়েন অথৈ সাগরে!

চাকরি নেই, থাকার জায়গা নেই, খাওয়ার টাকা নেই। এ যেন স্বপ্নের শহরে এসে দুঃস্বপ্নের বেড়াজালে বন্দি হওয়া। এরই মধ্যে আবার পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার আতঙ্ক। শুরু হয় পালিয়ে বেড়ানোর আরেক জীবনযুদ্ধ। এখানেই শেষ নয়, পালিয়ে বেড়ানো জীবনের মধ্যেই ভুল তথ্যের পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হওয়ায় ভেস্তে যায় বৈধ হওয়ার সুযোগটাও। বাড়ি ফেরার পথও হয়ে যায় বন্ধ।

তবে গত ৩ নভেম্বর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগ থেকে জারি হওয়া এক পরিপত্রে কপাল খুলে গেছে রাসেলের। শুধু রাসেলই নয়, পরিপত্রটি জারি হওয়ায় কপাল খুলছে ভুয়া তথ্যে পাসপোর্ট বানিয়ে অবৈধভাবে ইউরোপসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশে পাড়ি জমানো হাজারো প্রবাসীর। পরিপত্রে বলা হয়েছে, দেশে এবং বিদেশে অবস্থানরত ও বসবাসরত বাংলাদেশি পাসপোর্ট আবেদনকারীদের এনআইডি ও আগের পাসপোর্টের মধ্যে তথ্যের গরমিল হলে এনআইডিতে থাকা তথ্যানুয়ী (যেমন- নাম, পিতা-মাতার নাম, বয়স) পাসপোর্ট দেয়া হবে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, আগে এই সুযোগটি দেয়া হয়নি বলে প্রবাসে আটকা পড়া হাজার হাজার বাংলাদেশি সে দেশে বৈধ হওয়ার জন্য কাগজপত্রই জমা দিতে পারেননি। এমনটি ফিরতে পারেননি দেশেও। যারা এখন চাইলেই পাসপোর্ট রিইস্যু করে বৈধ হওয়ার আবেদন করতে পারবেন। ইচ্ছে করলে ফিরে আসতে পারবেন দেশেও।

ইতালিতে থাকা রাসেল মুঠোফোনে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে ভোরের কাগজকে বলেন, অবৈধ উপায়ে এক বুক স্বপ্ন নিয়ে ইতালিতে এসে চরম বিপাকে পড়ি। দালালরা এখানে পৌঁছে দিয়ে লাপাত্তা হয়ে যায়। থাকা-খাওয়ার টাকা পর্যন্ত ছিল না। খুব কষ্ট করে একটা কাজ জোগাড় করি। কিন্তু পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়ার ভয়ে কোথাও বেশি দিন থাকতে পারতাম না। এরই মধ্যে ভুয়া তথ্যে বানানো পাসপোর্টের মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। তখন পাসপোর্ট রিইস্যুর জন্য দূতাবাসে আবেদন করলে আগের পাসপোর্টের সঙ্গে তথ্যের মিল না থাকায় আবেদন আটকে যায়। ইতালিতে বৈধ হওয়া দূরে থাক, কখনো বাড়ি ফিরতে পারব কিনা তা নিয়েই সংশয়ে ছিলাম। কিন্তু এনআইডির তথ্যে পাসপোর্ট রিইস্যুর সুযোগ দেয়ায় আবারো নতুন স্বপ্নে বুক বাঁধছি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মো. আবদুল্লাহ আল মাসুদ চৌধুরী ভোরের কাগজকে বলেন, বিদেশে যাদের পাসপোর্টের সমস্যা রয়েছে তারা এখন থেকে জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) তথ্য অনুযায়ী আবেদন করবেন। আশা করছি, প্রবাসী বাংলাদেশিদের পাসপোর্ট জটিলতা আর থাকবে না।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়