জঙ্গিদের ছিনিয়ে নেওয়া খুবই অস্বাভাবিক ঘটনা

আগের সংবাদ

সংবিধানের বাইরে যাওয়ার সুযোগ নেই

পরের সংবাদ

কাতার বিশ্বকাপ: ফিফার সবচেয়ে বড় স্পন্সর চীন

প্রকাশিত: নভেম্বর ২০, ২০২২ , ৯:৪০ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ২০, ২০২২ , ৯:৪০ অপরাহ্ণ

কাতার বিশ্বকাপে খেলুড়ে দেশ হিসেবে অংশ নেয়ার সুযোগ না পেলেও এই মহারণের পদে পদে জড়িয়ে রয়েছে চীনের নাম। কারণ, ২২তম ফুটবল বিশ্বকাপ আয়োজনে চীন থেকেই সবচেয়ে বেশি স্পন্সর পেয়েছে ফিফা।

এক্ষেত্রে কোকা-কোলা, ম্যাকডোনাল্ডস, বাডউইজারের মতো মার্কিন ব্র্যান্ড তো বটেই, স্বাগতিক কাতারি কোম্পানিগুলোকেও ছাড়িয়ে গেছে চীন। খবর-চায়না ডেইলির

গ্লোবাল ডেটার তথ্যমতে, ২০২২ বিশ্বকাপে ফিফাকে সবচেয়ে বেশি অর্থ দিচ্ছে চীনা স্পন্সররা। এর পরিমাণ প্রায় ১৪০ কোটি মার্কিন ডলার। বিপরীতে, যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানিগুলোর কাছ থেকে ১১০ কোটি মার্কিন ডলার পাচ্ছে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

বার্ষিক হিসাব অনুসারে, ফিফায় চীনা স্পন্সরদের অবদান ২০ কোটি ৭০ লাখ ডলার। আর কাতারিদের অবদান ১২ কোটি ৪০ লাখ ও যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানিগুলোর অবদান ১২ কোটি ৯০ লাখ ডলার।

কাতার বিশ্বকাপে স্পন্সর করা চারটি চীনা কোম্পানির মধ্যে রয়েছে ওয়ান্ডা গ্রুপ, ভিভো, মেংনিউ ডেইরি ও হাইসেন্স। এর মধ্যে ফিফার সাত করপোরেট অংশীদারের একটি ওয়ান্ডা গ্রুপ। এই তালিকায় আরও রয়েছে কোকা-কোলা, আডিডাস, হুন্দাই-কিয়া, কাতার এয়ারওয়েজ, কাতার এনার্জি ও ভিসা। ওয়ান্ডা গ্রুপ ফিফার সঙ্গে ১৫ বছরের জন্য ৮৫ কোটি ডলারের চুক্তি সই করেছে। চুক্তি অনুসারে, ২০৩০ সাল পর্যন্ত প্রতিটি বিশ্বকাপে সহায়তা দেবে বেইজিংভিত্তিক কোম্পানিটি।

ইলেক্ট্রনিকস কোম্পানি ভিভোর সঙ্গে ফিফার ছয় বছরের চুক্তি রয়েছে। ৪৫ কোটি ডলারের ওই চুক্তিতে ২০১৭ কনফেডারেশনস কাপ এবং ২০১৮ বিশ্বকাপও অন্তর্ভুক্ত ছিল। চীনা সংবাদমাধ্যম সিসিটিভি জানিয়েছে, বিশ্বকাপ উপলক্ষে কাতারকে ১০ হাজারের বেশি কন্টেইনার হাউজ সরবরাহ করেছে চীনা কোম্পানিগুলো। এগুলো অতিথিদের থাকার জায়গা হিসেবে ব্যবহৃত হবে।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়