কাউন্সিলরদের জন্য বাসস্ট্যান্ডে থাকবে স্বেচ্ছাসেবক

আগের সংবাদ

ঢাবির হল অফিস সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকবে

পরের সংবাদ

ঢাবির ৫৩তম সমাবর্তন আজ

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৯, ২০২২ , ৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৯, ২০২২ , ৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ

৩০ হাজার ৩৪৮ জন গ্র্যাজুয়েট ও গবেষকের অংশগ্রহণে আজ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ৫৩তম সমাবর্তন। বেলা ১২টায় সমাবর্তনের মূল কার্যক্রম শুরু হবে।

মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর জনাব মোঃ আবদুল হামিদের সভাপতিত্বে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ এবং অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য ঢাকা কলেজ ও ইডেন কলেজ এইটি তিনটি ভিন্ন ভেন্যুতে সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এর মধ্যে মোট ২২ হাজার ২৮৭ জন গ্র্যাজুয়েট ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ ভেন্যুতে এবং ৭ হাজার ৭৯৬জন ঢাকা কলেজ ও ইডেন কলেজ ভেন্যুতে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেন।

এই অনুষ্ঠানে ১৩১জন কৃতী শিক্ষক, গবেষক ও শিক্ষার্থীকে ১৫৩টি স্বর্ণপদক, ৯৭জনকে পিএইচডি, ২ জনকে ডিবিএ এবং ৩৫জনকে এমফিল ডিগ্রি প্রদান করা হবে।

সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত থাকবেন নোবেল বিজয়ী ফরাসী অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. জঁ তিরোল। ৫৩ তম সমাবর্তনে ৫৩ তম সম্মানসূচক ডক্টরেট ডিগ্রি হিসেবে তাঁকে “ডক্টর অফ ল” প্রদান করা হবে। এর আগে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ৫২টি ডক্টরেট ডিগ্রি প্রদান করা হয়।

সমাবর্তনের মূল অনুষ্ঠানঃ আজ বেলা ১১টা ৫৫ মিনিটে কার্জন হল থেকে কেন্দ্রীয় খেলার মাঠ পর্যন্ত মাননীয় চ্যান্সেলরের শোভাযাত্রা এবং ১২টায় সমাবর্তনের মূল পর্ব শুরু হবে।

গ্র্যাজুয়েটদের জন্য নির্দেশনাঃ সংবাদ সম্মেলনে সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহকারী গ্র্যাজুয়েটদের জন্য কিছু নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটবৃন্দ খেলার মাঠের সুইমিংপুল সংলগ্ন গেইট দিয়ে সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ১১টার মধ্যে সমাবর্তনস্থলে প্রবেশ করতে হবে। অনুষ্ঠানস্থলে নিজ নিজ আসন গ্রহণ করার পর কোনক্রমেই মঞ্চের আশেপাশে ও অন্যান্য স্থানে ঘুরাফেরা করা যাবে না।

সমাবর্তনে অংশগ্রহণের জন্য আমন্ত্রণপত্র এবং জাতীয় পরিচয়পত্র/প্রতিষ্ঠান কর্তৃক আইডি/পাসপোর্ট সাথে আনতে হবে। আমন্ত্রণপত্র হস্তান্তরযোগ্য নয়। সমাবর্তনস্থলে মোবাইল ফোন, হাতব্যাগ, ব্রিফকেস, ক্যামেরা, ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ছাতা ও পানির বোতল নিয়ে প্রবেশ করা যাবে না। এছাড়া সমাবর্তনস্থলে প্রবেশের জন্য মাস্ক পরিধান বাধ্যতামূলক।

এছাড়াও, অধিভুক্ত সরকারি সাত কলেজের অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ, বিভাগীয় প্রধান, শিক্ষক পরিষদের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকবৃন্দ এবং রেজিস্ট্রেশনকৃত গ্র্যাজুয়েটগণ ডিজিটাল প্রযুক্তির মাধ্যমে ঢাকা কলেজ ও ইডেন মহিলা কলেজ ভেন্যু থেকে সরাসরি সমাবর্তন অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন এবং তারা সমাবর্তনস্থলে সকাল ১১.২০ টার মধ্যে আসন গ্রহণ করবেন।

উল্লেখ্য, এর আগে ঢাবির ৫২তম সমাবর্তন ২০১৯ সালে ৯ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। সেসময় ২০ হাজার ৭৯৬জন গ্র্যাজুয়েট অংশগ্রহণ করেন।

এমকেএইচ

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়