করোনায় মৃত্যু ১, শনাক্ত ৩৫

আগের সংবাদ

আমিরাতের বিপক্ষে মাঠে নেমেছে আর্জেন্টিনা

পরের সংবাদ

পিয়নের প্রহারে হাসপাতালে হাবিপ্রবির পাঁচ শিক্ষক

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৬, ২০২২ , ৯:৪৭ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৬, ২০২২ , ৯:৪৭ অপরাহ্ণ

দিনাজপুর হাজী মাহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যানসহ পাঁচ শিক্ষককে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেছে একই বিভাগের অফিস সহায়কের দায়িত্ব পালন করা পিয়ন। বুধবার (১৬ নভেম্বর) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে এ ঘটনা ঘটে।

আহত শিক্ষকদের দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলাকারীকে আটক করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তার নাম তাজুল ইসলাম। তিনি ২০ বছরের বেশি সময় ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিস সহায়ক পদে কর্মরত আছেন।

আহত শিক্ষকরা হলেন-সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান সহযাগী অধ্যাপক রোকনুজ্জামান রনি, একই বিভাগর সহযাগী অধ্যাপক বেলাল হাসান, প্রভাষক নির্মল চদ্র রায়, প্রভাষক হারুনুর রশিদ এবং সদ্য নিয়োগ পেয়ে যোগদান করতে আসা প্রভাষক মাহবুব রহমান।

সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগর চেয়ারম্যান সহযোগী অধ্যাপক রোকনুজ্জামান রনি বলন, বুধবার সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগর চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীদের শিক্ষা সফরের কথা ছিল। এই শিক্ষা সফরে ছাত্র-ছাত্রীদর সঙ্গে দুইজন শিক্ষকও যাওয়ার কথা ছিল। সকাল সাড়ে ৮টার মধ্যে সবার বিভাগে উপস্থিত হওয়ার কথা, কিন্তু সকাল ৯টা পেরিয়ে গেলেও কর্মচারী তাজুল ইসলাম অফিসে না আসায় তাকে ফোন করা হলে তিনি ফোন কেটে দেন।

তিনি বলেন, তাজুল অফিস আসলে তাকে মোবাইল ফোনের লাইন কেটে দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি উত্তেজিত হয়ে উল্টো তর্কে জড়িয়ে পড়েন। প্রথমেই সদ্য যোগদানকারী শিক্ষক মাহবুব রহমানের মাথায় গ্লাস দিয়ে আঘাত করেন। এরপর অন্য শিক্ষকদের এলোপাতাড়ি মাথায় আঘাত করতে থাকেন। আমি নিজে তাকে থামাতে আসলে সে আমার ওপরও হামলা করে। এতে আমার ঠোঁট কেটে যায়। এ ঘটনায় আরও চারজন শিক্ষক মাথায় আঘাত পান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (অতিরিক্ত দায়িত্ব) প্রফেসর ড. মো. সাইফুর রহমান বলেন, অভিযুক্ত কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। এ ঘটনায় পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়