স্লোভেনিয়ার প্রথম নারী প্রেসিডেন্ট নাতাশা

আগের সংবাদ

ফারদিনের মাদক সংশ্লিষ্টতার প্রশ্নই আসে না

পরের সংবাদ

শিশুর ডায়াবেটিস উদ্বেগজনক

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৪, ২০২২ , ২:৩০ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৪, ২০২২ , ২:৫০ অপরাহ্ণ

বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবসে উদ্বেগজনক খবর হলো সারাদেশে ১ কোটি ৩০ লাখ মানুষ ডায়াবেটিস রোগে আক্রান্ত, যাদের ৫ শতাংশই হলো শিশু। সে হিসাবে বর্তমানে ২৫ লাখ শিশু ডায়াবেটিসে ভুগছে। গত এক দশকে শিশুদের ডায়াবেটিসের হার উদ্বেগজনক বাড়ছে বলে দাবি করেছেন একাধিক বিশেষজ্ঞ। তারা বলছেন, দেশে শিশুদের টাইপ-১ ডায়াবেটিসের প্রকোপ অনেক কম। তবে বড়দের মধ্যে দেখা যাওয়া টাইপ-২ ডায়াবেটিসে শিশুরা বেশি আক্রান্ত হচ্ছে।

টাইপ-১ ডায়াবেটিস জন্ম ও পরিবেশগত বিভিন্ন কারণে হয়ে থাকে। এতে এক ধরনের ইমিউন সিস্টেম জটিলতায় দেহের অগ্ন্যাশয়ের বিটা কোষগুলো দ্রুত ধ্বংস হয়ে ইনসুলিন উৎপাদনের ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে। ফলে বাকি জীবন তাকে ইনসুলিনের ওপর নির্ভর করেই বেঁচে থাকতে হয়। টাইপ-২ ডায়াবেটিসের কারণে রক্তে শর্করার আধিক্যে ভুগে হৃদরোগ, কিডনি জটিলতা, অন্ধত্ব বা পা হারানোর মতো জটিলতার আশঙ্কাও তৈরি হচ্ছে।

মূলত যেসব শিশুর ওজন বেশি, অতিমাত্রায় শরীরে মেদ, কায়িক পরিশ্রম কম; তাদের এ রোগ বেশি হয়। বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত নগরায়ণ, জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাসে পরিবর্তন, প্রাত্যহিক পরিশ্রমের অভাব এবং অতিমাত্রায় মোবাইল ফোনে আসক্তির কারণে শিশুদের মধ্যে ডায়াবেটিসের হার উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে। এটি কমাতে বাচ্চাদের খেলাধুলা, পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা, দৌড়ঝাঁপ ছাড়াও দাঁত ও মুখের যত্ন নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

এদিকে, ২০১৮ সালে দেশের সব উপজেলায় ডায়াবেটিস নিয়ে জরিপ চালিয়েছিল স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেখানে দেখা যায়, শহর ও গ্রামের মানুষের মধ্যে আক্রান্তে পার্থক্য খুব বেশি নয়। শিক্ষিত কিংবা অশিক্ষিত মানুষের মধ্যেও বড় পার্থক্য দেখা যায়নি। যাদের মধ্যে ধূমপান, অস্বাভাবিক জীবনযাপন ও শারীরিক পরিশ্রমের হার কম; তাদের ডায়াবেটিসে ভোগার হার অন্যদের থেকে কিছুটা বেশি।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়