এক বছরের সাজা এড়াতে ২৭ বছর পলাতক!

আগের সংবাদ

ফারদিন হত্যা: চনপাড়া তদন্ত বৃত্ত থেকে সরে এল ডিবি

পরের সংবাদ

চ্যালেঞ্জ থাকলেও ল্যাভরভকে স্বাগত জানাবে ঢাকা

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৪, ২০২২ , ৮:৫২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৪, ২০২২ , ৮:৫২ পূর্বাহ্ণ

ভূ-রাজনৈতিক চ্যালেঞ্জ থাকলেও রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের সম্ভাব্য ঢাকা সফরকে স্বাগত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন। রবিবার (১৩ নভেম্বর) বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল এন্ড স্ট্র্যাটিজক স্টাডিজ-বিআইআইএসএসর এক অনুষ্ঠান শেষে পররাষ্ট্র সচিব এ কথা জানান।

তিনি বলেন, অবশ্যই এখন যে মেরুকরণ চলছে তাতে চ্যালেঞ্জের বিষয় তো আছে। তারপরও রাশিয়ার সঙ্গে আমাদের যে ঐতিহ্যবাহী সম্পর্ক আছে, সেটার আলোকে আমরা তাকে স্বাগত জানাব। আমাদের পক্ষ থেকে যে অগ্রাধিকার ও চ্যালেঞ্জগুলো আছে, সেগুলো আরো স্পষ্ট করে বলতে পারব।

ইন্ডিয়ান ওশেন রিম এসোসিয়েশনের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠকে অংশগ্রহণের জন্য ল্যাভরভসহ আরও অনেক দেশকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। এর মধ্যে ল্যাভরভ আসবেন বলে ইতিবাচক সাড়া দিয়েছেন। আমরা আমন্ত্রণ জানিয়েছি এবং তার আসার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্র সচিব।

সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, গত শনিবার ঢাকাস্থ রাশিয়ান দূতাবাস নোট ভারবালের মাধ্যমে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে ল্যাভরভের প্রস্তাবিত সফরটি নিশ্চিত করে। আগামী ২৩ নভেম্বর দুদিনের সফরে ঢাকা আসছেন তিনি। ঢাকায় অনুষ্ঠেয় ভারত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশগুলোর জোট ইন্ডিয়ান ওশান রিম এসোসিয়েশনের (আইওআরএ) মন্ত্রী পর্যায়ের সম্মেলনে অংশ নেয়ার পাশাপাশি সফরকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেনের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে তার।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও সাক্ষাৎ করবেন রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী। বাংলাদেশের ৫০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম ঢাকা আসছেন রাশিয়ার কোনো পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তাই তার সফরটি নানা কারণে তাৎপর্যপূর্ণ।

উল্লেখ্য, গত মাসে কাজাখস্তানের রাজধানী আস্তানায় অনুষ্ঠিত সিআইসিএ শীর্ষ সম্মেলনের সাইড লাইনে রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সর্বশেষ বৈঠক হয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোমেনের। সেখানেও ল্যাভরভকে ঢাকা সফরের মৌখিক আমন্ত্রণ জানান মোমেন।

এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে যোগাযোগ ও আস্থা বৃদ্ধির লক্ষ্যে অনুষ্ঠিত সিআইসিএ সম্মেলনের ফাঁকে ল্যাভরভের সঙ্গে বৈঠকে মোমেন রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে আন্তর্জাতিক মহলের জোরালো সমর্থনের ওপর গুরুত্বারোপ করেন। ইউক্রেনের সঙ্গে সরাসরি যুদ্ধে অবতীর্ণ রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভের প্রস্তাবিত সফর নিয়ে অনেক দিন ধরে কূটনৈতিক অঙ্গনে জল্পনা-কল্পনা চলছে।

ল্যাভরভের সফর নিয়ে চ্যালেঞ্জ আছে কিনা জানতে চাইলে ঢাকায় পররাষ্ট্র সচিব বলেন, তিনি আসার পরে বোঝা যাবে, কোনো চাপ আছে কিনা। ইন্ডিয়ান ওশেন রিম এসোসিয়েশনে এই প্রথমবারের মতো তারা (রাশিয়া) অবজারভার দেশ হিসেবে অংশগ্রহণ করবে। সেটাই হয়তো তাদের একটি মূল লক্ষ্য থাকবে। এই সংস্থা নিয়ে যদি তাদের কোনো বক্তব্য থাকে সেটি আমরা শুনব।

রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে যেসব বিষয়ে বাংলাদেশের আগ্রহ রয়েছে সেসব বিষয়ের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, রোহিঙ্গা সমস্যা, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পসহ অন্যান্য চলমান প্রকল্প, জ্বালানি সহযোগিতাসহ অন্যান্য বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে চায় বাংলাদেশ।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, রাশিয়া নানাভাবে বিভিন্ন ইস্যুতে চাপের মধ্যে আছে। সুতরাং, সের্গেই ল্যাভরভ এলে পরে অবশ্যই আলোচনা হবে, পররাষ্ট্রমন্ত্রীর (একে আব্দুল মোমেন) সঙ্গে দেখা হবে। সেখানে দ্বিপক্ষীয় বিষয় নিয়ে আলোচনার সুযোগ হবে। যেমন, বর্তমান যে পরিস্থিতি, সেখানে জ্বালানি সংকটের বিষয়ে কোনো ধরনের সম্ভাবনা আছে কিনা, সেটি নিয়ে আলোচনা হতে পারে। তিনি বলেন, নিষেধাজ্ঞা ও পাল্টা নিষেধাজ্ঞার ফলে আমাদের চলমান যে প্রকল্পগুলো আছে, সেগুলোর যাতে কোনো সমস্যা না হয়, সেটি নিয়ে আলোচনা হবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়