খেলাপি ঋণ এক লাখ ৩৪ হাজার কোটি টাকা

আগের সংবাদ

কেন আর্মব্যান্ড পরে নেমেছিল বাটলাররা

পরের সংবাদ

সাংবাদ সম্মেলনে বাবর

শাহিন ইনজুরিতে না পড়লে ভিন্ন কিছু হতো

প্রকাশিত: নভেম্বর ১৩, ২০২২ , ১০:১৬ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১৩, ২০২২ , ১০:১৬ অপরাহ্ণ

শাহিন ইনজুরিতে না পড়লে ভিন্ন কিছু হতে পারতো বলে মন্তব্য করেছেন পাকিস্তানের অধিনায়ক বাবর আজম। ফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হারের পর এমন মন্তব্য করেছেন তিনি।

ম্যাচ শেষে বাবর আজম বলেন, আমাদের এমনিতেই ২০ রান কম হয়েছে। এই কম পূঁজি নিয়েও আমরা প্রায় শেষ ওভার পর্যন্ত লড়েছি। আমাদের বোলিং বিশ্বসেরা। কিন্তু শাহিন ইনজুরিতে পড়ে যাওয়ার কারণে আমাদের মূল্য দিতে হয়েছে। নাহলে ম্যাচের ফল ভিন্নও হতে পারতো। তবে, এটা খেলারই অংশ।

ইংল্যান্ডকে অভিনন্দন জানিয়ে তিনি বলেন, ভালো খেলেই তারা জিতেছে। যারা আমাদের সমর্থন দিতে মাঠে এসেছেন, আপনাদের নিকট আমরা কৃতজ্ঞ। শেষ ৪ ম্যাচ আমরা যেভাবে খেলেছি, তা দূর্দান্ত। আমি ছেলেদের বলেছিলাম, তাদের সহজাত খেলা স্বাধীনভাবে খেলতে।

এর আগে স্বপ্নের ফাইনালে ইংল্যান্ডের কাছে হেরে গিয়ে মন ভেঙেছে পাকিস্তানের। প্রথমে ব্যাট করে ভালো স্কোর দাঁড় করাতে পারেনি পাকিস্তানের ব্যাটাররা। ইংল্যান্ডের ফর্মে থাকা ব্যাটারদের বিপক্ষে ১৩৮ রানের লক্ষ্য মানানসই নয়। তারপরও শুরু থেকেই দারুণ আধিপত্য দেখাচ্ছিলেন পাকিস্তানের বোলাররা।

এক সময় তো মনে হচ্ছিল, ১৩৭ রান নিয়েও জয় পেয়ে যেতে পারে পাকিস্তান। কিন্তু ৩০ বলে যখন ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ৪১ রান, তখন ১৬তম ওভারে বল করতে এসেই ইনজুরিতে পড়েন দলের সবচেয়ে নির্ভরযোগ্য বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদি। পা খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে মাঠও ছাড়েন তিনি। শাহিন ইনজুরিতে পড়েছিলেন তার আগেই, লং অফে সামারাহ ব্রুকসের ক্যাচ ধরতে গিয়ে। তখন দেখা গিয়েছিল তাকে মাঠের বাইরে চলে যেতে।

কিন্তু দলের গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বোলিং করতে এসেও পারলেন না তিনি আর। শাহিনের পরিবর্তে বল করতে এসে ইফতেখার আহমেদ বাকি ৫ বলে দেন ১৩ রান। মূলত সেখান থেকেই ম্যাচটা হাতছাড়া হয়ে যায় পাকিস্তানের। শাহিন থাকলে ম্যাচের ভাগ্য অন্যদিকেও ঘুরতে পারতো বলে মনে করেন পাক অধিনায়ক বাবর আজম।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়