কুষ্টিয়ায় পৃথক হত্যা মামলায় চেয়ারম্যানসহ ১০ জনের যাবজ্জীবন

আগের সংবাদ

চৌগাছায় চোর চক্রের সংবাদ সম্মেলনের প্রতিবাদ

পরের সংবাদ

হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার পাচ্ছেন যারা

প্রকাশিত: নভেম্বর ১০, ২০২২ , ৫:৩৬ অপরাহ্ণ আপডেট: নভেম্বর ১০, ২০২২ , ৫:৩৬ অপরাহ্ণ

সাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য এ বছর এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার পাচ্ছেন কথাসাহিত্যিক আনোয়ারা সৈয়দ হক ও নবীন সাহিত্যশ্রেণিতে মৌরি মরিয়ম। তারা পুরস্কার হিসেবে পাবেন যথাক্রমে পাঁচ লাখ এবং এক লাখ টাকা।

এছাড়া তাদের ক্রেস্ট, উত্তরীয় ও সনদপত্র প্রদান করা হবে। বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ মিলনায়তনে আগামী শনিবার (১২ নভেম্বর) বিকেলে আনুষ্ঠানিকভাবে এ পুরস্কার প্রদান করা হবে।

২০১৫ সাল থেকে প্রবর্তিত হয় ‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার।’প্রথমবার এই দুটি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার পেয়েছিলেন যথাক্রমে শওকত আলী ও সাদিয়া মাহজাবীন ইমাম। দ্বিতীয়বার ২০১৬ সালে হাসান আজিজুল হক ও স্বকৃত নোমান। ২০১৭ সালে জ্যোতিপ্রকাশ দত্ত ও মোজাফ্ফর হোসেন। ২০১৮ সালে পুরস্কৃত রিজিয়া রহমান ও ফাতিমা রুমি। ২০১৯ সালে পুরস্কার পেয়েছেন রাবেয়া খাতুন ও সাদাত হোসাইন। ২০২০ সালে পুরস্কৃত হয়েছেন হাসনাত আবদুল হাই ও নাহিদা নাহিদ। ২০২১ সালে পুরস্কার পেয়েছেন সেলিনা হোসেন ও ফাতেমা আবেদীন।

ছয় দশক ধরে লিখছেন আনোয়ারা সৈয়দ হক। তার লেখায় বারবার উঠে আসে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি বঙ্গবন্ধু আর মহান মুক্তিযুদ্ধের গৌরবগাথা। এ ছাড়াও নারী জীবনের টানাপোড়েন, নারীর বঞ্চিত, লাঞ্ছিত ও অবহেলিত জীবনযাপনের কথা তার সাহিত্যে প্রধান একটি উপাদান হিসেবে কাজ করেছে। একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ হিসেবে নারী-পুরুষের মনস্তাত্ত্বিক দিকগুলোও তিনি তুলে ধরেন তার লেখায়।

আনোয়ারা সৈয়দ হকের জন্ম ১৯৪০ সালের ৫ নভেম্বর, যশোর জেলার মোহনগঞ্জের চুড়িপট্টিতে। মা প্রয়াত আছিয়া খাতুন চৌধুরী। বাবা প্রয়াত গোলাম রফিউদ্দিন চৌধুরী। স্বামী সব্যসাচী লেখক ও কবি সৈয়দ শামসুল হক। ১৯৬৫ সালে আনোয়ারা সৈয়দ হক ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। লন্ডন থেকে মনোবিজ্ঞানে এমআরসিপি ডিগ্রি লাভ করেন ১৯৮১ সালে। বর্তমানে তিনি ঢাকার বারডেম হাসপাতালে মনোরোগ বিভাগের অধ্যাপক ও বিশেষজ্ঞ হিসেবে কর্মরত।

বাংলা সাহিত্যে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে আনোয়ারা সৈয়দ হক বহু পুরস্কার ও সম্মানে ভূষিত হয়েছেন। অর্জন করেছেন বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার (২০১০) এবং দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক রাষ্ট্রীয় সম্মান একুশে পদক (২০১৯)। এবার কথাসাহিত্যে সামগ্রিক অবদানের জন্য ‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার ২০২২’অর্জন করলেন আনোয়ারা সৈয়দ হক।

এই সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় তরুণ লেখক মৌরি মরিয়ম। তার লেখায় মানবিক সম্পর্ক, প্রেম, মান-অভিমান, ভ্রমণ, যাপিত জীবন ও সমকালের প্রেক্ষাপটে এইসব বিষয় মূর্ত হয়ে ওঠে। তার জন্ম বরিশালের গৌরনদী উপজেলায়, ১৯৯১ সালের ২৫ মে। মা মনজু বেগম। বাবা প্রয়াত আজিজুল হক।

মৌরি মরিয়মের লেখালেখির সূচনা গল্প-উপন্যাস পড়ার সূত্রে। তার প্রিয় লেখকদের মধ্যে রয়েছেন বিভূতিভূষণ বন্দ্যোপাধ্যায়, শরদিন্দু বন্দ্যোপাধ্যায়, সত্যজিৎ রায়, বুদ্ধদেব গুহ, হুমায়ূন আহমেদ, জে. কে. রাওলিং, নিকোলাস স্পার্কস। প্রথম লেখাটি প্রকাশিত হয় স্কুল ম্যাগাজিনে। তবে তিনি
২০১৫ সালে নিয়মিত লেখালেখি শুরু করেন অনলাইনে। প্রথম প্রকাশিত গ্রন্থ ‘প্রেমাতাল’।

২০১৮ সালে বাংলা একাডেমির অমর একুশে গ্রন্থমেলায় প্রকাশিত হয় তার এই উপন্যাস। তাকে সুপরিচিতি এনে দেয় ২০১৯ সালে প্রকাশিত ‘অভিমানিনী’ উপন্যাসটি।‘ফানুস’উপন্যাসের জন্য নবীন সাহিত্যশ্রেণিতে ‘এক্সিম ব্যাংক-অন্যদিন হুমায়ূন আহমেদ সাহিত্য পুরস্কার ২০২২’পাচ্ছেন মৌরি মরিয়ম। এটি তার প্রথম পুরস্কার।

এনজে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়