ঘোড়াশালে ফের বিদ্যুৎ উৎপাদন শুরু

আগের সংবাদ

মশারি ব্যবহার করেন না ২৫ ভাগ ডেঙ্গু রোগী

পরের সংবাদ

রামেকে ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি

প্রকাশিত: অক্টোবর ২০, ২০২২ , ১:৫৪ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ২০, ২০২২ , ৫:২৫ অপরাহ্ণ

রাজশাহী মেডিকিলে কলেজ (রামেক) হাসপাতালে হামলা ও ভাঙচুরের প্রতিবাদে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

বুধবার রাত ১১টার দিকে কর্মবিরতি করে হাসপাতালের সামনে অবস্থান নেন ইন্টার্ন চিকিৎসকরা।

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) রাত ১২টার দিকে ধর্মঘটের ডাক দিয়ে একযোগে হাসপাতাল ছাড়েন। হাসপাতাল ছাড়ার আগে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে ধর্মঘট ও কর্মবিরতির ঘোষণা দেন ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডা. ইমরান হোসেন।

হাসপাতালে প্রায় পৌনে এক ঘণ্টা অবস্থান করলেও শাহরিয়ারকে চিকিৎসা দেয়া হয়নি- এমন অভিযোগ তুলে হাসপাতাল ভাঙচুর ও কর্তব্যরত দুজন চিকিৎসককে অবরুদ্ধ করে রাখেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় হাসপাতালের আনসার সদস্য ও ইন্টার্ন চিকিৎসকদের সঙ্গে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এতে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) পাঁচজন শিক্ষার্থী আহত হন। চিকিৎসায় অবহেলা ও শিক্ষার্থীদের ওপর হামলায় জড়িতদের শাস্তি এবং আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার ব্যবস্থার দাবিতে হাসপাতালের সামনে অবস্থান নেয় রাবি শিক্ষার্থীরা। এ সময় তাদেও তিন দফা দাবি আদায়ে বিক্ষোভ করে। রাত দুইটার দিকে তদন্ত কমিটি গঠন ও দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থার আশ্বাসে হাসপাতাল ত্যাগ করেন রাবি শিক্ষার্থীরা।

রামেকের পরিচালক বিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী বলেন, হাসপাতালে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। তাদের নিরাপত্তা দিতে হবে। ইন্টার্ন চিকিৎসকেরা নিরাপত্তাহীনতার কথা বলে রাত ১২টার দিকে হাসপাতাল ছেড়ে চলে গেছেন। হাসপাতালের বিষয় নিয়ে রাতে বৈঠকে বসে কর্তৃপক্ষ। পাশাপাশি, রাতেই বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র শাহরিয়ারের চিকিৎসার অবহেলার অভিযোগ তদন্তে ছয় সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। একই সঙ্গে তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, বুধবার রাত আটটার দিকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শহীদ হবিবুর রহমান হলের চারতলার ছাদ থেকে পড়ে আহত হন মার্কেটিং বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র শাহরিয়ার। পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ৮ নং ওয়ার্ডে ভর্তি করা হলে রাত নয়টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন তাকে।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়