দুর্ভোগ লাঘবে চালু হচ্ছে ফেরি

আগের সংবাদ

থাইল্যান্ডে নিহত বেড়ে ৩৮

পরের সংবাদ

পদ্মা সেতুর সুফল

বিভাগীয় শহর বরিশালে চালু হচ্ছে গার্মেন্টস শিল্প

প্রকাশিত: অক্টোবর ৭, ২০২২ , ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৭, ২০২২ , ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ

বরিশাল বিভাগীয় শহরে এই প্রথম চালু হচ্ছে গার্মেন্টস কারখানা। বরিশাল বিসিক শিল্পনগরীতে প্রায় ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন গার্মেন্টসটির অবকাঠামো তৈরির পর এখন চলছে মেশিন স্থাপনের কাজ। নেমর‌্যাক ডিজাইন গার্মেন্টস নামের পোশাক কারখানাটি চালু হলে এটিই হবে বরিশালের প্রথম পোশাক তৈরির কারখানা। পাশাপাশি শীতবস্ত্রে ব্যবহৃত কমফোর্টার কারখানা ও বোতলজাত মোহিনী মিনারেল ওয়াটারও চলতি বছরের মধ্যে উৎপাদনে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানগুলোর স্বত্বাধিকারীরা। এ তিনটি প্রতিষ্ঠান চালু হলে কয়েক হাজার লোকের কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

মূলত পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর পাল্টাতে শুরু করেছে বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপট। ইতোমধ্যে পিছিয়ে পড়া বরিশালের বিভিন্ন স্থানে শিল্প-কারখানাসহ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান স্থাপনের লক্ষ্যে জমি কেনাসহ বিভিন্ন ধরনের স্থাপনা নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোর অর্থনীতি পাল্টে যাবে। কমে যাবে বেকারত্বের হার। পাশাপাশি ব্যবসার জন্য ভালো পরিবেশ সৃষ্টি হলে উদ্যোক্তার সংখ্যাও বৃদ্ধি পাবে।

সূত্রমতে, গোটা বরিশাল বিভাগের ছয় জেলায় পদ্মা সেতু নির্মাণ হওয়ার আগে কোনো পোশাক কারখানা ছিল না। তবে পদ্মা সেতু চালুর পর বরিশালে পোশাক কারখানা স্থাপনে আগ্রহী হয়েছেন অনেক শিল্প মালিক। ইতোমধ্যে প্রথমবারের মতো পোশাক তৈরির কারখানা স্থাপন হচ্ছে বিভাগীয় শহর বরিশালে। ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন গার্মেন্টসটির অবকাঠামো তৈরির পর এখন চলছে মেশিন স্থাপনের কাজ। নেমর‌্যাক ডিজাইন গার্মেন্টস নামের পোশাক কারখানাটি চালু হলে এটিই হবে বরিশালের প্রথম পোশাক তৈরির কারখানা। যেখানে প্রায় সহস্রাধিক মানুষের কর্মসংস্থান হবে। নগরীর বিসিক এলাকায় নির্মিতব্য নেমর‌্যাক ডিজাইন গার্মেন্টসের স্বত্বাধিকারী তৌহিদুল ইসলাম বলেন, সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চলতি বছরের মধ্যেই আমাদের উৎপাদনে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে।
শুধু নেমর‌্যাক গার্মেন্টসই নয়, পদ্মা সেতু চালুর পর সড়ক পথে যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় নগরীর বিসিক এলাকায় গড়ে উঠছে শীতবস্ত্রে ব্যবহৃত কমফোর্টার কারখানা। কারখানাটি উৎপাদনে গেলে বিদেশে কমফোর্টার রপ্তানি করা সম্ভব হবে। এ বিষয়ে বিএনসি হোম টেক্সটাইল লিমিটেডের স্বত্বাধিকারী খায়রুল হাসান বলেন, পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর চীনের সহযোগীরা আমাদের সঙ্গে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

এছাড়া এখানে বোতলজাত পানি পরিশোধনের কারখানাও স্থাপিত হচ্ছে। আগামী নভেম্বর মাসের মধ্যে দক্ষিণাঞ্চলের বাজারে ছাড়ার আগেই এখন পরীক্ষা-নিরীক্ষা পর্যায়ে রয়েছে মোহিনী মিনারেল ওয়াটার। মোহিনী মিনারেল ওয়াটারের স্বত্বাধিকারী জামাল হোসেন বলেন, আমরা আগে যে জিনিস বরিশাল থেকে ঢাকায় আট ঘণ্টায়ও ডেলিভারি দিতে পারতাম না, এখন সেটি পাঠাতে তিন ঘণ্টা সময় লাগছে। এতে আমাদের জন্য অনেক সুবিধা হয়েছে। তাই আমরা বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছি।

বরিশাল বিভাগ উন্নয়ন ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান আতিক বলেন, পদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর ধীরে ধীরে পাল্টাতে শুরু করেছে বরিশালসহ গোটা দক্ষিণাঞ্চলের প্রেক্ষাপট। ইতোমধ্যে পিছিয়ে পড়া বরিশালের বিভিন্ন স্থানে শিল্পকল-কারখানাসহ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান স্থাপনের লক্ষ্যে জমি কেনাসহ বিভিন্ন ধরনের স্থাপনা নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, আগামী কয়েক বছরের মধ্যে বরিশালসহ দক্ষিণাঞ্চলের জেলাগুলোর অর্থনীতি পাল্টে যাবে। কমে যাবে বেকারত্বের হার। পাশাপাশি ব্যবসার জন্য ভালো পরিবেশ সৃষ্টি হলে উদ্যোক্তাদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, মাত্র ৩ মাসের মধ্যে শুধু বরিশাল থেকে পায়রা বন্দর পর্যন্ত মহাসড়কের পাশে এবং বরিশাল, ঝালকাঠি ও পটুয়াখালীসহ বিভাগের ৬ জেলার বিসিক শিল্পনগরীগুলোকে কেন্দ্র করে ইতোমধ্যে জায়গা কিনতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন ছোট-বড় উদ্যোক্তারা। একইসঙ্গে বরিশাল, ঝালকাঠি ও পটুয়াখালী জেলার বিসিক নগরে নতুন নতুন শিল্প কারখানার অবকাঠামো নির্মাণ ও সম্প্রসারণের কাজ চলছে। বরিশাল বিসিক শিল্প মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইব্রাহিম খান বলেন, পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর মাত্র ৩ মাস যেতে না যেতেই পাল্টে যেতে শুরু করেছে বরিশালের অর্থনীতি। শিল্পে বিনিয়োগে আগ্রহী হয়েছেন উদ্যোক্তারা।

অপরদিকে ভোলার গ্যাস বরিশালে আনা হলে বিসিক আরো সমৃদ্ধ হবে জানিয়ে বিসিক বরিশালের উপমহাব্যবস্থাপক মো. জালিস মাহমুদ বলেন, সম্প্রতি বিসিকে ৭৪ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পে ৩৭ একর নিচু জমি ভরাট করে ১১০টি প্লট করা হচ্ছে। যার মধ্যে ৩০টি প্লট বরাদ্দ নিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। একইভাবে ঝালকাঠি, পটুয়াখালীসহ আশপাশের জেলাগুলোর বিসিক নগরীর উন্নয়ন কার্যক্রমও এগিয়ে চলছে বলে জানা গেছে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়