বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা প্রধানমন্ত্রীর

আগের সংবাদ

জলাবদ্ধ জমি থেকে রিকশা চালক উদ্ধার

পরের সংবাদ

কদমতলী থেকে দুজনের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত: অক্টোবর ৭, ২০২২ , ১২:৪১ অপরাহ্ণ আপডেট: অক্টোবর ৭, ২০২২ , ১:১০ অপরাহ্ণ

রাজধানীতে পৃথক ঘটনায় কদমতলী থেকে নুরুল ইসলাম সজিব (২৬) ও শাহজাহানপুরে শুক্কুর ওরফে অন্তু (১৯) নামে দুই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাতে ময়নাতদন্তের জন্য মৃতদেহ দুটি ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়।

শরীয়তপুর পালং উপজেলার কাগদী গ্রামের মৃত শেখ ফরিদের ছেলে শুক্কুর শাহজাহানপুর টিটিপাড়া সুইপার কলোনির একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

শাহজাহানপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. কামরুল ইসলাম জানান, শুক্কুর ভবঘুরে প্রকৃতির এবং মাদকাসক্ত। ৫-৬ মাস আগে তিনি বিয়ে করেন। তবে কোন কাজ না করায় ২-৩ মাস আগে স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যান। এনিয়ে বিষন্নতায় ছিলেন তিনি। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাড়ির বাঁশের আড়ার সাথে রশি দিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে প্রাথমিক ভাবে জানা গেছে।

এদিকে, লক্ষীপুর রামগঞ্জ উপজেলর দক্ষিণ কিউরি গ্রামের মৃত আবু তালেবের ছেলে সজিব। স্ত্রী রিমি ও এক মাত্র সন্তান আ. রহমানকে (১) নিয়ে কদমতলীর পূর্ব জুরাইন মেডিকেল রোডের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। কদমতলী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মাহবুবুল হক বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দশটার দিকে মরদেহটি উদ্ধার করেন।

মৃত সজীবে বড় বোন আমেনা আক্তার শিলা জানান, বাস চালক ছিলেন সজীব। গতকাল রাতে পুলিশের মাধ্যমে তারা খবর পান, সজীব গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

মর্গে সজীবের শাশুড়ি শামসুন্নাহার বেগম জানান, গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে স্ত্রী রিমি সজিবকে বাজার করতে বলেন। তবে তার কাছে টাকা নেই বলে জানায় সজীব। এ নিয়ে স্বামী স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া ও একটু হাতাহাতি হয়। পরে সজিব রুমের ভিতরে ঢুকে দরজা বন্ধ করে দেন। এরপর তাকে ডাকাডাকি করলেও তিনি কোন সাড়াশব্দ করেননি। রুমের ভেতর ঘুমিয়ে পড়েছেন ভেবে তারা বিকেল পর্যন্ত আর তাকে ডাকেননি। এরপরও তিনি রুম না খোলায় রাত ৯টার দিকে থানা পুলিশের খবর দেন। রাত ১০টার দিকে পুলিশ গিয়ে দরজা ভেঙে দেখে, ফ্যানের সাথে ওড়না পেচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছে সে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়