প্রবাসীর সোনা ছিনতাইয়ে দুই পুলিশ

আগের সংবাদ

‌‘হিজরতে’ ৫০ যুবক, নিরাপত্তাহীনতায় দুর্গাপূজা

পরের সংবাদ

বেনাপোল সীমান্তে বিজিবির অভিযান

২৫ কেজি স্বর্ণসহ ১৫ চোরাকারবারি আটক

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২ , ১০:৫৭ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২ , ১১:৩১ অপরাহ্ণ

বেনাপোলের বিভিন্ন সীমান্তে বিজিবির চলমান অভিযানে ২৫ কেজি ৯৭১ গ্রাম স্বর্ণের চালানসহ ১৫ জন স্বর্ণ চোরাকারবারি আটক হয়েছে। বিজিবির কয়েক দফা অভিযানে ভারতে পাঁচারের সময় সীমান্তের বিভিন্ন এলাকা থেকে খণ্ড খণ্ড এ স্বর্ণের চালান উদ্ধার করা হয়। সবমিলিয়ে সরকারের রাজস্ব কোষাগারে জমা দেয়া হয় আঠারো কোটি বিরানব্বই লক্ষ দুই হাজার টাকা মূল্যের স্বর্ণের চালান।

বিষয়টি নিশ্চিত করে খুলনা ২১ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ তানভীর রহমান, পিএসসি, ইঞ্জিনিয়াস জানান, সর্বশেষ গত মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর ) রাতে বেনাপোল পোর্ট থানাধীন পুটখালী বিওপি’র মসজিদ বাড়ি বিজিবি চেকপোষ্টে একটি প্রাইভেটকারে তল্লাশি চালিয়ে ১.০৬০ কেজি ওজনের বড় একপিস স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়েছে। এসময় উক্ত প্রাইভেট কারসহ স্বর্ণ বহনকারি সোহানুর রহমান বিশাল (২৭) ও কুতুব উদ্দিন আশা (২৮) নামে দুই স্বর্ণ চোরাচালানীকে আটক করা হয়।

আটককৃত স্বর্ণ চোরাচালানী সোহানুর রহমান বিশাল যশোর জেলার বেনাপোল পোর্ট থানার পৌর এলাকার নামাজ গ্রামের মৃত কামাল হোসেনের ছেলে, কুতুব উদ্দিন আশা ছোটআঁচড়া গ্রামের ইসমাইল সরদারের ছেলে।

এছাড়া, এ স্বর্ণের চালান আটকের মাত্র ১২ ঘন্টা আগে একইদিন দুপরে পশ্চিম রুদ্রপুর গ্রামস্থ আজগরের আম বাগানের মধ্যে তল্লাশি অভিযান পরিচালনা করে ইউরিয়া সারের বস্তায় বিশেষ কায়দায় লুকানো ১.২৩৩ কেজি ওজনের ১০টি স্বর্ণের বারসহ সাকিব হোসেন (১৯) নামে এক স্বর্ণ পাঁচারকারিকে আটক করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের সিজার মূল্য ৮৯,৪৬,৪৫০ টাকা। আটককৃত সাকিব হোসেন যশোর জেলার শার্শা থানার গোগা গ্রামের মৃত কালাম হোসেনের ছেলে।

সবমিলিয়ে, ২১ ব্যাটালিয়নের দায়িত্বাধীন সীমান্ত এলাকা হতে ১২ বারে ১৫ জন আসামীসহ সর্বমোট ২৩ কেজি ৮৭১ গ্রাম স্বর্ণ আটক হয়েছে, যার মূল্য- সতেরো কোটি চব্বিশ লক্ষ দুই হাজার টাকা। ১২ বারের মধ্যে আগস্ট ২০২২ মাসে চারবার এবং সেপ্টেম্বর-২০২২ মাসে ছয় বার স্বর্ণ আটক করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে যশোর ৪৯ ব্যাটালিয়ন (বিজিবি) এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল শাহেদ মিনহাজ ছিদ্দিকী জানান, মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর) রাতে বেনাপোল পোর্ট থানার মালিপুতা নামক স্থানে একটি মটর সাইকেলে তল্লাশি চালিয়ে ২.১০০ কেজি ওজনের ১৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের মূল্য এক কোটি আটষট্টি লক্ষ টাকা।

তিনি জানান, গোয়েন্দা তথ্যের বর্ণনা অনুযায়ী আমড়াখালী বিজিবি পোস্টে সন্দেহভাজন মোটরসাইকেলটি থামানোর সংকেত দেয়া হয়। তখন উক্ত মোটরসাইকেল চালক না থেমে পালানোর চেষ্টা করলে পিকআপনিয়ে ধাওয়া করা হয়। একপর্যায়ে মোটরসাইকেল চালক মালিপুতা নামক স্থানে গিয়ে মোটরসাইকেল ফেলে দৌড়ে পালানোর চেস্টা করলে বিজিবি টহল দল পিকআপ থেকে দ্রুত নেমে তাকে ধরার জন্য পিছু ধাওয়া করে কিন্তু সে গ্রামের মধ্যে দিয়ে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরবর্তীতে ওই মোটরসাইকেলটি তল্লাশি করে হেড লাইটের কেসিং এর ভিতরে বিশেষ কায়দায় ফিটিং অবস্থায় লুকানো ২.১০০ কেজি ওজনের ১৮টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করা হয়।

এনজে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়