তরুণদের পাশাপাশি শিশুরাও আক্রান্ত হচ্ছে হৃদরোগে

আগের সংবাদ

ইরাকে ক্ষেপণাস্ত্র হামলা, নিহত ১৩

পরের সংবাদ

রং তুলির আঁচড়ে সাজছে দেবী দুর্গা

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২ , ৯:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২ , ৯:০২ পূর্বাহ্ণ

বাতাসে দুলতে থাকা কাশফুল মনে করিয়ে দেয় প্রকৃতিতে এখন শরৎকাল। আর শরৎ মানেই সার্বজনীন শারদীয়া দুর্গোৎসবের আগমনী বার্তা। কালের অমোঘ নিয়মে আবার এসেছে পুণ্য শারদীয়া দুর্গাপূজা। মণ্ডপে মণ্ডপে শুরু হয়েছে উৎসবের প্রস্তুতি। আর বাপের বাড়ি যাওয়ার অপেক্ষায় রং তুলির আঁচড়ে সাজছেন দেবী দুর্গা।

উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির আহ্বায়ক ও উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা দীপক কুমার ঘোষ জানান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় এবার ২২টি পূজা মণ্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে পৌরশহরে ১১টি ও উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়নের ১১টি পূজা মণ্ডপে এবার শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হবে।

তিনি আরো জানান, সব পূজা মণ্ডপেই প্রতিমা তৈরির অবকাঠামো কাজ শেষ। এখন প্রতিমা শিল্পীরা তাদের সুনিপুণ হাতে রং তুলির আঁচড়ে দেবী দুর্গার প্রতিমা জীবন্ত করে তুলছেন।

পৌরশহরের রাধানগর রাধামাধব আখড়া কেন্দ্রীয় মন্দির পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক অলক কুমার চক্রবর্তী জানান, শাস্ত্র মতে জগতের মঙ্গল কামনায় এবার দেবী দুর্গা আসবেন হাতির পিটে চড়ে আর প্রস্থান করবেন ঘোড়ায় চড়ে। তিনি আরো জানান, ১ অক্টোবর মহাষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে উৎসবের শুরু হবে ও ৫ অক্টোবর বিজয়া দশমীর মাধ্যমে শারদীয় দুর্গোৎসবের সমাপ্তি হবে। আশা করছি এবার আমরা বর্ণিলভাবে উৎসবের আয়োজন করতে পারব।

উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সদস্য সচিব বিশ্বজিৎ পাল জানান, আইনশৃঙ্খলার সভায় এবার প্রতিটি পূজা মণ্ডপে সিসি ক্যামেরা রাখা ও সূর্যাস্তের আগে প্রতিমা বিসর্জনের গুরুত্বারোপ করা হয়েছে। তাছাড়া উপজেলার প্রত্যেকটি পূজা মণ্ডপে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি আমাদের উপজেলা কমিটিও কাজ করবে।

আখাউড়া থানার অফিসার ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক মো. আসাদুল ইসলাম জানান, পূজা উদযাপন কমিটির সঙ্গে সমন্বয় করে পূজা মণ্ডপগুলোতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থির সৃষ্টি না হয়, সেদিকে লক্ষ্য রাখা হচ্ছে। শারদীয় দুর্গোৎসব এবার সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে সম্পন্ন হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অংগ্যজাই মারমা বলেন, সনাতন ধর্মাবলম্বীরা যাতে নির্বিঘ্নে ও আনন্দঘন পরিবেশে শারদীয় দুর্গোৎসব উদযাপন করতে পারে তার জন্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব ধরনের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পূজায় সব মণ্ডপে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার থাকবে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়