বাংলাদেশ-নেপাল দ্বৈরথ আজ

আগের সংবাদ

ঘুরে দাঁড়িয়ে ভারতের সিরিজ জয়

পরের সংবাদ

টাইগারদের লক্ষ্য হোয়াইটওয়াশ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২ , ১০:০৪ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৭, ২০২২ , ১০:০৪ পূর্বাহ্ণ

দুই ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে আজ সংযুক্ত আরব আমিরাতের মোকাবিলা করবে বাংলাদেশ। দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত আটটায়। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে এ পর্যন্ত আরব আমিরাতের বিপক্ষে দুবারের মুখোমুখিতে শতভাগ জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। সব মিলিয়ে এখন পর্যন্ত টি-টোয়েন্টিতে ১৩৪টি ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। এর মধ্যে টাইগারদের জয় আছে ৪৬টিতে, হার ৮৫টিতে। তিনটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়।

দুর্বল আমিরাতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে বলতে গেলে বেগ পেয়েই জিততে হয়েছে বাংলাদেশকে। দলের পারফরম্যান্স মোটেই আশানুরূপ ছিল না। আজ সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে আরো পরিপাটি পারফরম্যান্সের আশা মেহেদি হাসান মিরাজের, আমরা এখানে বিশ্বকাপের প্রস্তুতিটা ভালোভাবে নেয়ার জন্য এসেছি। সে জন্য এখানে দু-তিন দিন ধরে অনুশীলন করেছি, একটা ম্যাচ খেলেছি। আমরা যে ছোট ছোট ভুলগুলো করছিলাম, সেটা যেন কমে আসে, সেই চেষ্টাই করছি। সামনের ম্যাচেও সে চেষ্টা থাকবে।

আমিরাতের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে ৫ উইকেটে ১৫৮ রান তুলে বাংলাদেশ। বাজে শুরুর পরও লড়াকু পুঁজি পায় টাইগাররা। আরব আমিরাত ইনিংসের শেষ পর্যন্ত আফজাল খান ক্রিজে থাকায় কপালে চিন্তার ভাঁজ ছিল বাংলাদেশের। ১৭ ওভার শেষে আমিরাতের স্কোর ছিল ৮ উইকেটে ১২৪ রান। তাতে সহজ জয় দেখছিল বাংলাদেশ। কিন্তু অষ্টম উইকেটে জুনায়েদ সিদ্দিকীকে নিয়ে ম্যাচের মোড় ঘুড়িয়ে দেন সাত নম্বরে নামা আয়ান। শেষ ওভারে ১১ রান দরকার পড়ে আরব আমিরাতের। কিন্তু তৃতীয় ও চতুর্থ বলে আয়ান-জুনায়েদকে বিদায় দিয়ে স্বস্তির জয় পায় বাংলাদেশ।

এই জয়কে ইতিবাচক হিসেবে দেখতে চান মিরাজ, আমাদের একটা ম্যাচ জেতা দরকার ছিল। দলের পরিবেশ এখন খুব ভালো। কোচিং স্টাফরা আমাদের সমর্থন দিচ্ছে। আফিফ দারুণ একটি ইনিংস খেলেছে। আমাদের চাপের মুখে জয় তুলে নেয়া দরকার ছিল। কেননা এমন পরিস্থিতিতে আমরা অনেক ম্যাচ হেরেছি। শ্রীরাম দায়িত্ব নেয়ার পর বাংলাদেশের ওপেনিং জুটিতে এসেছে পরিবর্তন। মেকশিফট ওপেনার মেহেদি হাসান মিরাজ আর সাব্বির রহমানই এখন মূল ওপেনারের ভূমিকায়।

ওপেনিং প্রসঙ্গে মিরাজ বলেন, টিম ম্যানেজমেন্ট আমাকে ইনিংস ওপেন করার একটি সুযোগ দিয়েছে। কেননা তারা মনে করছে, এটা ভালো আইডিয়া। আমি তাই নিজেকে (এই জায়গায়) প্রস্তুত করার চেষ্টা করছি।

তিনি যোগ করেন, সম্ভবত তারা আমার কাছ থেকে বড় ইনিংস প্রত্যাশা করেন না। বরং আমি যদি ইমপ্যাক্টফুল ইনিংস খেলে দিতে পারি, তবে দলের বড় উপকার হবে।

এমকে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়