সুরে, তালে চারুকলায় শরৎ উৎসব

আগের সংবাদ

শাওন হত্যার প্রতিবাদ গণঅধিকার পরিষদের

পরের সংবাদ

জাতিসংঘে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ আজ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২২ , ১:৩৫ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২২ , ১:৩৬ অপরাহ্ণ

শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় বিকেল সাড়ে তিনটায় জাতিসংঘের ৭৭তম সাধারণ অধিবেশনে ভাষন দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ভাষণে কোভিড ও সন্ত্রাস মোকাবেলাসহ তার সরকারের গুরুত্বপূর্ণ অর্জনগুলো তুলে ধরবেন তিনি। একই সঙ্গে যুদ্ধের পথ পরিহার করে আলোচনার মাধ্যমে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য রাশিয়া ইউক্রেনসহ বিশ্বনেতাদের প্রতি আহ্বান জানাবেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া, প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে রোহিঙ্গা ইস্যু, সবার জন্য সাশ্রয়ী ও নিরাপদ আবাসনসহ ঠাঁই পাবে একাধিক বিষয়।

স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) রাতে ম্যানহাটনের লোটে প্যালেস হোটেলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। সাংবাদিকদের তিনি বলেন, জাতিসংঘের ৭৭ তম সাধারন অধিবেশনে গত তিনদিনে ২১টিরও বেশি ইভেন্টে যোগ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রতিদিন সকাল থেকে কাটাচ্ছেন ব্যস্ত সময়।

মন্ত্রী আরও বলেন, তবে বিশ্ব নেতাদের এই বড় আয়োজনে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে সাধারণ পরিষদে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ। কারণ এ ভাষণে সরকারের সাফল্য যেমন তুলে ধরা হয়েছে, তেমনি অনুন্নত বা উন্নয়নশীল দেশ থেকে একটি দেশকে কিভাবে উন্নত দেশে রুপান্তরিত করা যায় তারও সবিস্তার পরিকল্পনা বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরার সুযোগ রয়েছে।

ভোরের কাগজের এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এবারে প্রধানমন্ত্রীর ভাষণে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাবে সংঘাতের পথ পরিহার করে আলোচনার মাধ্যমে যুদ্ধ এড়িয়ে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা। কারণ তা না হলে এক বিভীষিকাময় পরিস্থিতির মুখোমুখি হবে বিশ্ব। এতে পুরো বিশ্বে দারিদ্র্য ও অশান্তি বাড়বে।

এছাড়া বিশ্বের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে বড় দেশগুলোর একক সিদ্ধান্ত যাতে প্রভাবিত করা যায় এ জন্য ভারতের সঙ্গে সাউথ সাউথ নামে একটি আঞ্চলিক ফোরাম গঠনের চেষ্টা অনেক দূর এগিয়েছে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

তিনি আরও জানান, এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে তার বৈঠক হয়েছে। যেখানে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ ঢেলে সাজানোর বিষয়ে তিনি ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে ঐক্যমত পোষণ করেছেন।

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি আব্দুল মুকিত, পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের মহাপরিচালক তেৌফিক হাসান, স্থায়ী মিশনের ফার্স্ট সেক্রেটারি (প্রেস) নূর এলাহি মিনা, প্রধানমন্ত্রীর উপ প্রেস সচিব শাখাওয়াত মুনসহ সরকারের গুরুত্বপুর্ণ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়