বাইডেনের অভ্যর্থনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আগের সংবাদ

ঝোড়ো হাওয়াসহ বজ্রবৃষ্টির আভাস

পরের সংবাদ

প্লাবনভূমিতে বসতি ও স্থাপনা

বন্যার ঝুঁকিতে ৯ কোটি মানুষ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১১:৪৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১২:৫০ অপরাহ্ণ

এক দশকেরও কম সময়ের মধ্যে দেশে নতুন করে বন্যার ঝুঁকিতে পড়েছেন দেড় কোটি মানুষ। যা বাংলাদেশের মোট জনসংখ্যার ৯ শতাংশ। প্লাবনভূমি ও নদী অববাহিকায় মানববসতি এবং অবকাঠামোর উন্নয়ন বেড়ে যাওয়ায় এ ঝুঁকি আরো বাড়ছে। আর জলবায়ুর বিরূপ প্রভাবে বন্যার ভয়াবহতা সামনের দিনগুলোতে তীব্রতর করবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া, যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশের তিনটি বিশ্ববিদ্যালয়ের যৌথ গবেষণায় এমন তথ্য পাওয়া গেছে। এতে দেখা গেছে, বর্তমানে বাংলাদেশে আট কোটি ৭০ লাখ (প্রায় পৌনে ৯ কোটি) মানুষ সরাসরি বন্যাকবলিত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন। এসব মানুষ বাস করছেন দেশের ছোট-বড় নদীগুলোর দুই কিলোমিটারের মধ্যে।

এ ছাড়াও বিভিন্ন কারণে মানুষের জন্য বন্যার ঝুঁকি বেড়েছে। যেমন, নদীর ১-২ কিলোমিটার তীরবর্তী বনাঞ্চল ৯১.৯৮ শতাংশ সংকুচিত হয়ে গেছে। তৃণভূমি ৬ শতাংশ ও অনুর্বর ভূমি কমেছে ২৭.৯২ শতাংশ। এ ছাড়াও প্লাবনভূমি আর নদী অববাহিকায় বসতবাড়ি ও স্থাপনা নির্মাণ বেড়েছে ১১ শতাংশের বেশি।

উপগ্রহের রাত্রিকালীন আলো (এনটিএল) বা আলোর উজ্জ্বলতা ব্যবহার করে সারা দেশে এ বন্যার ঝুঁকি নির্ধারণ করা হয়েছে। ২০০০ সাল থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত সারা দেশের বার্ষিক উপগ্রহ তথ্যচিত্র পর্যালোচনা করা হয়েছে। দূর অনুধাবন বা রিমোট সেন্সিং প্রযুক্তির মাধ্যমে ২৪ ঘণ্টায় দুবার ছবি নেয়া হয়েছে—সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত ৮টা ও রাত ২টা থেকে ৩টা।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়