ইউনিলিভার-সিটি গ্রুপের বিরুদ্ধে মামলা

আগের সংবাদ

ধোবাউড়ায় সাফজয়ী ফুটবলারের অভিভাবকদের সংবর্ধনা

পরের সংবাদ

উপজেলা পরিষদও দেবে সংবর্ধনা

পরিষ্কার হচ্ছে নিলুফার বাড়িতে যাতায়াতের পথ

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১০:৩৬ অপরাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১০:৩৬ অপরাহ্ণ

সাফজয়ী কুষ্টিয়ার মেয়ে নিলুফার বাড়ির আঙিনায় ফেলা হয়েছে বালু ও ঘাস, লতা-পাতা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে যাতায়াতের রাস্তা। কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়ক থেকে সাফজয়ী নিলুফার বাড়ি পর্যন্ত যাওয়ার পথ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। বৃহস্পতিবার (২২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে কুষ্টিয়া পৌরসভার বর্ধিত জুগিয়া সবজি ফার্মপাড়ায় গিয়ে এ চিত্র চোখে পড়ে।

জানা যায়, সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপাজয়ী দলের সদস্য কুষ্টিয়ার মেয়ে নিলুফা ইয়াসমিন নিলা এখন ঢাকায়। বুধবার দুপুরে শিরোপাজয়ী দলটি দেশে ফিরেছে। এখন ছুটি পেলেই নিলুফা বাড়ি ফিরবেন। আর মেয়ের জন্য পথ চেয়ে আছেন মা বাছিরন আক্তার। নিলুফার ছোট বোন সুরভী আক্তারেরও যেন তর সইছে না।

চ্যাম্পিয়ন নিলুফার বাড়ি ফেরার আনন্দ ছুঁয়েছে এলাকাবাসীকেও। তাই মূল সড়ক থেকে নিলুফার বাড়ি পর্যন্ত যাওয়ার পথ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে। কুষ্টিয়া পৌরসভার স্থানীয় ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর ও প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দীন তার ব্যক্তিগত খরচে শ্রমিক দিয়ে এ কাজ করাচ্ছেন।

কুষ্টিয়া পৌরসভার বর্ধিত জুগিয়া সবজি ফার্মপাড়ায় নিলুফার বাড়ি। শহরের ভেতর হলেও ওই এলাকায় এখনো গ্রামীণ পরিবেশ। প্রধান সড়ক থেকে হেঁটে কিছুদূর যেতেই নিলুফার বাড়ি। পুরো পথে ইট বিছানো। তবে বৃষ্টির পানিতে শেওলা ও লতা-পাতা জন্মেছিল। বৃহস্পতিবার বিকেলে দেখা যায়, শ্রমিকেরা সেগুলো ঘষে মেজে পরিষ্কার করছেন।

গত মঙ্গলবার সকালে নিলুফাদের বাড়িতে গিয়েছিলেন প্যানেল মেয়র শাহিন উদ্দীন। নিলুফার মা ও বোনের সঙ্গে তিনি কথা বলেছেন। কোনো সমস্যা আছে কি না, খোঁজখবর নেন। এ সময় নিলুফার বাড়ির উঠানে পানি জমে থাকতে দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন। এরপর বুধবার বিকেল থেকেই নিলুফার বাড়ির উঠানে বালু ফেলা শুরু হয়। এর আগে নালা কেটে পানি বের করে নেয়া হয়। বালু ফেলে উঠান উঁচু করা হয়। সড়ক পরিষ্কারের কাজ করছিলেন শ্রমিক আনিসুর রহমান।

তিনি বলেন, ফুটবল খেলায় জিতে আসা নিলুফার বাড়িতে বালু ফেলা হয়েছে। এখন রাস্তা পরিষ্কার করা হচ্ছে। নিলুফা বাড়ি আসবে এ জন্য সবকিছু চকচকে করা হচ্ছে।

নিলুফার মা বাছিরন আক্তার বলেন, নিলুফা এখন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনেই আছে। এখনো ছুটি পায়নি। রাতে কথা হয়েছে। ছুটি পেলেই বাড়িতে আসবে। এখন মন ছটফট করছে। কাউন্সিলর বাড়ির উঠানে বালু ফেলে দিয়েছেন। নিলুফার বাড়ির আসার পথও পরিষ্কার করেছেন। খুবই ভালো লাগছে।

শাহিন উদ্দীন বলেন, সাফজয়ী নিলুফা এই এলাকার গর্ব। তিনি বাড়িতে এলে তাকে সংবর্ধনা দেয়া হবে। তাকে নিয়ে আনন্দ উৎসব করা হবে।

এলাকাবাসী ফরিদ উদ্দিন জানান, কুষ্টিয়ার মেয়ে নিলুফা আমাদের গর্ব। সে বাড়িতে ফিরলেই আমরা এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে তাকে সংবর্ধনা দেয়ার ব্যবস্থা করবো। এত দারিদ্রতার মধ্যে তার এমন সাফল্য আমরা খুবই আনন্দিত।

এ ব্যাপারে সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, নিলা আমাদের কুষ্টিয়ার গর্ব। আমরাও উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে নিলাকে সংবর্ধনা দেয়ার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছি। বৃহস্পতিবার সন্ধায় নিলা ও তার পরিবারের সাথে আমার কথা হয়েছে আগামী ২৮ সেপ্টেম্বরের পরে বেশ কয়েকদিনের জন্য তাদের ছুটি পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে সে জানিয়েছে। তার ভিত্তিতেই আমরা আশা করছি একটা তারিখ নির্ধারণ করে উপজেলা পরিষদের পক্ষ থেকে নিলাকে সংম্বর্ধনা দেয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

এনজে

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়