গানের ভিডিও শেয়ার করে ট্রলড মিমি

আগের সংবাদ

ইকুয়েডরই খেলবে কাতার বিশ্বকাপে

পরের সংবাদ

টি-টোয়েন্টি সিরিজে পাক-ভারতের হার

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ

বিশ্বকাপের আগে টি-টোয়েন্টি সিরিজের শুরুটা ভালো হয়নি ভারত ও পাকিস্তানের। নিজেদের ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ভারত এবং ইংল্যান্ডের কাছে হেরেছে স্বাগতিক পাকিস্তান।
তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৪ উইকেটে পরাজিত হয় ভারত। মোহালিতে টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ২০৮ রানের বিশাল সংগ্রহ পায় ভারত। শুরুটা ভালো করতে পারেনি ভারতীয় ওপেনাররা। দলীয় ২১ রানে মাথায় প্রথম উইকেট হারায় স্বাগতিকরা।

ব্যক্তিগত ২১ রানের মাথায় জোস হ্যাজেলউডের বলে আউট হন রোহিত শর্মা। তিন নম্বরে নেমে ৭ বল খেলে ২ রানে বিদায় নেন বিরাট কোহলি। ৩৫ রানে ২ উইকেট হারায় ভারত। চাপের মুখে দলকে এগিয়ে নেন ওপেনার কেএল রাহুল ও চার নম্বরে নামা সূর্যকুমার যাদব। দুজনের আগ্রাসী ব্যাটিংয়ে ১২ ওভারে ১০০ রানের দেখা পায় ভারত। ৩২ বলে ক্যারিয়ারের ১৮তম হাফসেঞ্চুরি করেন রাহুল।

ব্যক্তিগত ৫৫ রানের মাথায় হ্যাজেলউডের দ্বিতীয় শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি। হাফসেঞ্চুরির সম্ভাবনা জাগিয়ে ৪৬ রানে আউট হন যাদব। এরপর অস্ট্রেলিয়ার বোলারদের ওপর চড়াও হন অলরাউন্ডার হার্দিক পান্ডিয়া। ৩০ বলে ৭১ রানের মারমুখী ইনিংস খেলেন তিনি।

শেষ ওভারের শেষ তিন বলে তিন ছক্কায় ভারতকে বড় সংগ্রহ এনে দেন পান্ডিয়া। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ২০৮ রানের সংগ্রহ পায় ভারত। অস্ট্রেলিয়ার হয়ে নাথান এলিস ৩ ও হ্যাজেলউড ২টি উইকেট নেন।

২০৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দ্বিতীয় ইনিংসের প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকান অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চ। ব্যক্তিগত ২২ রানের মাথায় অক্ষর প্যাটেলের বলে আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন অজি অধিনায়ক। ১০ ওভারেই ১০৯ রানের সংগ্রহ পায় অস্ট্রেলিয়া।

১১তম ওভারে প্যাটেলের প্রথম বলে আউট হওয়ার আগে ৮টি চার ও ৪টি ছক্কায় ৩০ বলে ৬১ রান করেন গ্রিন। ১৪৫ রানে ৫ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া।

ম্যাচ জিততে শেষ ৩৫ বলে অস্ট্রেলিয়ার প্রয়োজন ছিল ৬৪ রান। ষষ্ঠ উইকেট জুটিতে ৩০ বলে ৬২ রান তুলে দলকে জয়ের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যান ম্যাথু ওয়েড ও দলের নতুন মুখ টিম ডেভিড।

প্রথমবারের মতো অস্ট্রেলিয়ার হয়ে খেলতে নামা ডেভিড ১৮ রানে আউট হলেও ৪৫ রানে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিশ্চিত করেন ওয়েড।

৪ বল হাতে রেখেই জয় পায় অজিরা। ভারতের হয়ে ১৭ রানে ৩ উইকেট নেন প্যাটেল।

অন্যদিকে ১৭ বছর পর পাকিস্তানের মাটিতে খেলতে নেমে ৭ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম টোয়েন্টিতে ৬ উইকেটে জয় পেয়েছে ইংল্যান্ড। সর্বশেষ ইংল্যান্ড পাকিস্তান সফর করে ২০০৫ সালে। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেটে ১৫৮ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিকরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট আর ৪ বল হাতে রেখে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় সফরকারীরা।

পাকিস্তানের পক্ষে ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান করেন ৪৬ বলে ৬৮ রান। বাবর ২৪ বলে ৩১ রান। এরপর আর কেউ তেমন ভালো স্কোর উপহার দিতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ইফতিখার আহমেদের ১৭ বলে ২৮ রানের সুবাদে লড়াই করার পুঁজি পায় পাকিস্তান। ইংলিশ বোলারদের মধ্যে অভিষিক্ত লুক উড ৪ ওভারে মাত্র ২৪ রানে ৩টি উইকেট নেন।

১৫৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ওপেনার অ্যালেক্স হেলসের হাফসেঞ্চুরিতে সহজে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ইংল্যান্ড। ৪০ বলে ৫৩ রান করে হেলস আউট হলেও হ্যারি ব্রুকসের ২৫ বলে ৪২ রানের সুবাদে ৬ উইকেট হাতে রেখে জয় পায় মঈন-রশিদরা। আজ রাত ৮.৩০ মিনিটে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে পাকিস্তান। আর ২৩ সেপ্টেম্বর নাগপুরে হবে ভারত-অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজ।

এই সিরিজ শেষ করে ভারত আবারো তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। ২৮ সেপ্টেম্বর প্রথম টি-টোয়েন্টিতে দেশের মাটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার মোকাবিলা করবে রোহিত-কোহলিরা। আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ শেষ করে বিশ্বকাপের উদ্দেশে দেশ ত্যাগ করবে ভারত। অন্যদিকে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ শেষ করে ত্রি-দেশীয় সিরিজ খেলার লক্ষ্যে নিউজিল্যান্ডের উদ্দেশে রওনা করবে পাকিস্তান ক্রিকেট দল।

যেখানে বাংলাদেশ ও নিউজিল্যান্ডকে নিয়ে শুরু হবে ত্রি-দেশীয় সিরিজ। ত্রি-দেশীয় সিরিজ শেষে পাকিস্তান নিউজিল্যান্ড থেকে বিশ্বকাপের উদ্দেশে অস্ট্রেলিয়ায় রওনা করবে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ২৩ অক্টোবর মুখোমুখি হবে চিরপ্রতিদ্বন্দী ভারত ও পাকিস্তান। এর আগে এশিয়া কাপে দুবার মুখোমুখি হয়েছিল ভারত ও পাকিস্তান। যেখানে গ্রুপ পর্বের ম্যাচে পাকিস্তানকে হারায় ভারত। আর সুপার ফোরে ভারতকে হারায় পাকিস্তান।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়