ড্রাগ ডিলারের চরিত্রে বাঁধন

আগের সংবাদ

কম্বোডিয়াকে হারাতে মরিয়া জামালরা

পরের সংবাদ

অভিযোগের তীর ‘অপারেশন সুন্দরবন’ ছবির দিকে

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১১:০৫ পূর্বাহ্ণ আপডেট: সেপ্টেম্বর ২২, ২০২২ , ১১:০৬ পূর্বাহ্ণ

বিশ্বের সবচেয়ে বড় ম্যানগ্রোভ বনভূমি সুন্দরবন বনদস্যু মুক্ত করার ক্ষেত্রে র‌্যাবের দুঃসাহসিক অভিযান নিয়ে নির্মিত হয়েছে দেশের প্রথম ওয়াইল্ড অ্যাকশন সিনেমা ‘অপারেশন সুন্দরবন’। আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর মুক্তি পাচ্ছে সিনেমাটি।

গত ২০ সেপ্টেম্বর বসুন্ধরা সিটির স্টার সিনেপ্লেক্সে সিনেমার বিশেষ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এই অনুষ্ঠানের রেশ কাটার আগেই সামাজিক মাধ্যমে বিস্ফোরক এক লেখা পোস্ট করেন সিনেমার সহকারী পরিচালক তানিন খান। তিনি অভিযোগ করেন তার কাজের পারিশ্রমিক পরিশোধ করেননি পরিচালক দীপঙ্কর দীপন ও র‌্যাব কর্তৃপক্ষ।

শুটিংয়ের সময় দুর্গম এলাকায় বেশ কষ্ট করে কাজ করতে হয়েছে টিম ‘অপারেশন সুন্দরবন’কে। সে সময়ের নানা ভোগান্তি ও কষ্টের বর্ণনা দিয়ে তানিন লেখেন, ‘এত কষ্ট করে টানা ২৭ দিন শুট শেষ করে যদি পেমেন্ট না করে তাহলে আর কী করার থাকে। বলে নিই, এই ছবির জন্য আমার সঙ্গে দাদার ডিল হয় ২৫ হাজার টাকা, যেটা এত বড় একটা ছবির সহকারী হিসেবে পারিশ্রমিক অনেক কম। দাদার এক কথায় আমি রাজি হয়েছিলাম এই পারিশ্রমিকে কাজ করার জন্য। কারণ কাজটাকে আমি ভালোবাসি। করোনার শুরুর দিকে আমার পেমেন্টের মধ্যে ৫ হাজার টাকা সে রর‌্যাবের মাধ্যমে আমায় বিকাশে পরিশোধ করে। বাকি টাকা এখনো আমি পাইনি। আমি জানি যদি দীপন দা রর‌্যাবকে পুরো টাকাটা আমায় দিতে বলত তাহলে অবশ্যই তারা সেটা পরিশোধ করত। কিন্তু সেটা সে করেনি।’ র‌্যাবের লিগ্যাল মিডিয়ার দায়িত্বরত কর্মকর্তা, যিনি প্রযোজনার নানা দায়িত্ব পালন করেছেন তার সম্পর্কে তানিন লেখেন, “উনি আমায় ডেকে পাঠালেন, বললেন তুমি দীপনকে এত কল, মেসেজ করে বিরক্ত করো কেন, তার এক্সপ্রেশনে খুব বিরক্তির ছাপ ছিল। আমি রীতিমতো বললাম, স্যার আমি এখনো টাকা পাই, আমার বাকি টাকাটা ক্লিয়ার করে দিন, আমি খুব ফিন্যান্সিয়ালি সমস্যায় আছি। তো উনি আমাকে শুধু বললেন এরপর থেকে দীপনকে আর কল করবে না কখনো, সে খুব চাপে আছে, এখন যাও দীপন আসুক সামনাসামনি কথা হবে। ব্যাপারটা আমার কাছে খুব ‘ভদ্রবেশী থ্রেট মনে’ হয়েছে।” তবে বিষয়টি নিয়ে র‌্যাব বা সিনেমা কর্তৃপক্ষ কিছু জানায়নি। তবে বিনোদন জগতের অনেকেই এ ব্যাপারে একমত প্রকাশ করেছেন। তাদের মতে অনেক কলাকুশলী আছেন যারা দীর্ঘদিন ধরে পারিশ্রমিক পান না, কাজ ছেড়ে দিতেও বাধ্য হন।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, ভোরের কাগজ লাইভ এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়